বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেন না', দিদিতেই আস্থা 'গদাধর' সৌরভের
রাজনীতি নিয়ে কথা বললেন সৌরভ।

'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেন না', দিদিতেই আস্থা 'গদাধর' সৌরভের

  • Sourav Saha: রাজনৈতিক ভাবে সচেতন সৌরভ। কলেজ জীবনে তৃণমূল সমর্থক ছিলেন। এখনও তা-ই। গত বছর মুখ্যমন্ত্রীর হয়ে নন্দীগ্রামে প্রচারেও গিয়েছিলেন।

রাজনৈতিক আবহে বেড়ে উঠেছেন। নিজেও দীর্ঘ দিন ছাত্র রাজনীতি করেছেন। এই প্রথম সেই সৌরভ সাহাকে দেখা গেল ২১ জুলাইয়ের মঞ্চে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে লেন্সবন্দিও হয়েছেন ‘করুনাময়ী রাণী রাসমণি’ ধারাবাহিকের অভিনেতা।

তবে কি এ বার প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে আসছেন পর্দার গদাধর? নাম লেখাচ্ছেন ঘাসফুল শিবিরে? অভিনেতার সাবলীল উত্তর, 'আমার বাবা বহু দিন বামপন্থী রাজনীতি করেছেন। একটা সময়ে সেই দলের দুর্নীতি দেখে সরে আসেন। তাঁকে দেখে আমার এখন আর সরাসরি রাজনীতি করতে ইচ্ছে করে না। তৃণমূল থেকেও ডাক পেয়েছিলাম। কিন্তু যোগ দিইনি।'

রাজনৈতিক ভাবে বরাবরই সচেতন সৌরভ। কলেজ জীবনে তৃণমূল সমর্থক ছিলেন। এখনও তা-ই। গত বছর মুখ্যমন্ত্রীর হয়ে নন্দীগ্রামে প্রচারেও গিয়েছিলেন। অভিনেতা জানান, তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর দলের উপর আস্থাশীল। পর্দার রামকৃষ্ণের কথায়, 'আমরা জানি দুর্নীতি আছে। চোখে আঙুল দিয়েই তা দেখিয়ে হচ্ছে। কিন্তু আমার বিশ্বাস, মুখ্যমন্ত্রী এ সবকে প্রশ্রয় দেন না। যে কোনও ভালো কাজ করতে গেলেই, এমন অনেক সমস্যার মুখে পড়তে হয়। তাই বলে তৎক্ষণাৎ কোনও সদস্যকে দল থেকে ছেঁটে ফেলা যায় না। উনি নিশ্চয়ই সবটা শক্ত হাতে দমন করবেন।'

এই তো গেল রাজনীতির কথা। ফের কবে অভিনয়ে ফিরবেন সৌরভ? খানিক হেসে তিনি বললেন, 'খুব শীঘ্রই ফিরব। পাঁচ বছর টানা একটাই চরিত্র নিয়ে থেকেছি। সেই চেনা ছক থেকে বেরনোর সুযোগ করে দিয়েছে 'ইস্মার্ট জোড়ি'। এ বার চেষ্টা করব অন্য ধরণের চরিত্র করার। দর্শককে নতুন কিছু উপহার দেব।'

বন্ধ করুন