বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Srabanti: ‘আমায় আপন করে নিন’, পদ্মবনে মধুচন্দ্রিমা শেষ হতে না হতেই তৃণমূলে শ্রাবন্তী!
শ্রাবন্তী
শ্রাবন্তী

Srabanti: ‘আমায় আপন করে নিন’, পদ্মবনে মধুচন্দ্রিমা শেষ হতে না হতেই তৃণমূলে শ্রাবন্তী!

  • তৃণমূলে যোগ দিলেন শ্রাবন্তী? শাসকদলের সভামঞ্চে হাজির নায়িকা। 

'বাংলার স্বার্থকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিজেপির উদ্যোগ এবং আন্তরিকতার অভাব...', এর জেরেই গত ১১ নভেম্বর ভারতীয় জনতা পার্টির সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করছিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। দু-সপ্তাহ পার হতে না হতেই তৃণমূলের সভামঞ্চে শ্রাবন্তী। তবে কি ফুলবদল করলেন নায়িকা? যোগ দিলেন তৃণমূলে এই প্রশ্নই এখন বাংলার রাজনৈতিক মহলে। 

সোমবার বাসন্তী ব্লকের মসজিদবাটিতে তৃণমূলের দলীয় অনুষ্ঠানে সভামঞ্চে দেখা মিলল টলিউডের এই বিতর্কিত শ্রাবন্তীর। সেখানেই শেষ নয়, সভামঞ্চ থেকে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদও জানান নায়িকা। এদিন বাসন্তীর এই সভায় হাজির ছিল ঘাসফুল শিবিরের পাঁচ বিধায়ক। শওকত মোল্লা, পরেশরাম দাস, সুব্রত মণ্ডলদের সামনেই শ্রাবন্তী জানান, ‘আমি বাংলার জন্য কাজ করতে চাই। বাংলারই মেয়ে আমি। মমতাদি’কে অনেক ধন্যবাদ। আপনাদের কাছে অনুরোধ, আমায় আপন করে নিন। আমি আপনাদের জন্যই কাজ করতে চাই’। 

 এখানেই চমকের শেষ নয়, এদিন শ্রাবন্তীকে সভামঞ্চ দলীয় উত্তরীয় পরিয়ে দলের তরফে সম্মান জানানো হয়, ফলে স্পষ্ট বিজেপি ছাড়লেও রাজনীতির ময়দান থেকে সরতে না-রাজ শ্রাবন্তী। বরং শিবির বদলে এবার মমতাদির ছত্রছায়ায় রাজনৈতিক কেরিয়ারকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চান। 

বাসন্তীর মঞ্চে শ্রাবন্তী
বাসন্তীর মঞ্চে শ্রাবন্তী

শ্রাবন্তী আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন কি না তা এখনও স্পষ্ট নয়। সে বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি অভিনেত্রী তবে বাসন্তীর বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল জানান, ‘শ্রাবন্তী এখন তৃণমূলে, অন্য কোনও দলে নেই’। গোটা ঘটনায় তোলপাড় রাজ্য রাজনীতিতে। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি পুরনির্বাচনের আগেই তৃণমূল শিবিরে আরও তারকা প্রাপ্তি?

চলতি বছর বিধানসভা নির্বাচনের আগে আচমকা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, দিলীপ ঘোষের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেন শ্রাবন্তী। কিন্তু ভোটের ফল বের হওয়ার পর দেখা যায়, বেহালা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূল প্রার্থী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে ৫০ হাজারেরও বেশি ভোটে পরাজিত হয়েছেন ঘরের মেয়ে শ্রাবন্তী। তারপর থেকেই বিজেপির সঙ্গে আলগা হয় শ্রাবন্তীর সম্পর্ক। এরপর অগস্ট মাসে নায়িকার জন্মদিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে শুভেচ্ছা চিঠি পাঠালে আপ্লুত হয়ে দিদির প্রতি ভালোবাসা জাহির করেন শ্রাবন্তী। তারপর থেকেই শুরু হয়েছিল অভিনেত্রীর তৃণমূলে যোগদানের জল্পনা, আর সেই জল্পনায় এদিন কার্যত সিলমোহর পড়েগেল।

 

বন্ধ করুন