বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মেয়ের বিয়ে দিতে গিয়ে কেঁদে ভাসাচ্ছেন অনিন্দিতা!
অনিন্দতা রায়চৌধুরী
অনিন্দতা রায়চৌধুরী

মেয়ের বিয়ে দিতে গিয়ে কেঁদে ভাসাচ্ছেন অনিন্দিতা!

  • দেশের মাটি ধারাবাহিকে ‘নোয়া’ অর্থাত্ শ্রুতির মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করছেন অনিন্দিতা। 

‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিকের শুটিং করতে গিয়ে কেঁদে ফেললেন অভিনেত্রী অনিন্দিতা রায়চৌধুরি। ধারাবাহিকের প্লট অনুযায়ী মেয়ে শ্রুতির বিয়ে দিতে গিয়ে চোখে জল ধরে রাখতে পারেননি তিনি। আপাতত ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্র শ্রুতির গায়ে হলুদের পর্বের শ্যুটিং শেষ হয়েছে। 

ধারাবাহিকে শ্রুতির মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করছেন অনিন্দিতা। আর সেখানেই অনস্ক্রিন মেয়ের বিয়ে দিতে গিয়ে সত্যিই চোখের জল গড়িয়ে এল তাঁর! স্ক্রিপ অনুযায়ী বিয়ের আগেই কোনো টুইস্ট রয়েছে। অন্যদিকে, গায়ে হলুদের শ্যুটিং শেষ করে সেই ছবি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করলেন অনিন্দিতা। সেখানেই পর্দায় মা-মেয়ের জুটিকে দেখা গেল হলুদ শাড়ি জড়িয়ে গায়ে। ক্যাপশনে জানিয়েছেন, ‘গায়ে হলুদ...’।

ধারাবাহিক সম্পর্কে বলতে গিয়ে অনিন্দিতা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিয়ের আগে পর্যন্ত তিনি আর নোয়া যা যা দৃশ্যের শ্যুটিং করেছেন, খুব একটা ফিল আসেনি তাঁদের মধ্যে। তাঁর কথায়, ‘আসলে মেয়ে বড় হয়ে গেলে মায়ের খুব ভাল বন্ধু হয়। যেমন আমি আর আমার মা ভাল বন্ধু। আমি আর শ্রুতিও বন্ধু। সত্যি বলছি, গায়ে হলুদ করতে গিয়ে কুলো দিয়ে বরণ করতে করতে মনে হচ্ছে, আমি মা-মেয়ের বিয়ে দিচ্ছি। এই শটটা করতে গিয়ে আমি আর শ্রুতি দু’জনেই কেঁদে ফেলেছিলাম’।

অভিনেত্রী আরো জানিয়েছেন, তাঁর মা-কে ভেবেই তাঁর পক্ষে এই চরিত্রে অভিনয় করাটা আরো সহজ হয়েছে। অনিন্দিতার কথায়, ‘মেয়েকে যখন সাজানো হচ্ছে, তখন একটা সংলাপ রয়েছে। সব মেয়ের মায়েরাই হয়তো অপেক্ষা করে এই দিনটার জন্য। বুকের ভিতর কষ্ট হচ্ছে। তার থেকেও ভাল লাগার আনন্দটা বেশি। এটা বলতে গিয়ে আমি আমি ফিল করেছি’।

ধারাবাহিকে অনস্ক্রিনে দারুণ ফুটে উঠেছে মা-মেয়ের রসায়ন। অনিন্দিতা এবং শ্রুতি দুজনেই তাঁদের চরিত্রকে ফুটিয়ে নিখুঁত ভাবে তুলেছেন।

বন্ধ করুন