বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বাবাকে মিথ্যা বলে লাস ভেগাস পালিয়েছিলেন জাহ্নবী কাপুর!
জাহ্নবী কাপুর (ছবি-ইনস্টাগ্রাম) 
জাহ্নবী কাপুর (ছবি-ইনস্টাগ্রাম) 

বাবাকে মিথ্যা বলে লাস ভেগাস পালিয়েছিলেন জাহ্নবী কাপুর!

  • ছোটবেলা থেকে ‘বাগী’ হওয়ার ইচ্ছা তাড়া করত জাহ্নবীকে। বাবা-মা'কে মিথ্যা বলে কম দুষ্টুমি করেননি শ্রীদেবী-বনি কাপুর কন্যা। 

বাবাকে মিথ্যা বলে বাড়ি থেকে 'পালিয়েছিলেন' জাহ্নবী কাপুর! তাও আবার লাস ভেসাগে, হ্যাঁ, বলিউডের ফিল্মের নয় বাস্তবের কাহিনি এটি। ছবি দেখবার বাহানায় বন্ধুদের সঙ্গে লাস ভেগাসে উড়ে গিয়েছিলেন জাহ্নবী। 

জাহ্নবী নিজের মুখে সম্প্রতি এই গোপন তথ্য ফাঁস করেছেন। তিনি জানান, লস এঞ্জেলস থেকে বিমানে চড়ে লাস ভেগাসে পৌঁছেছিলেন। এবং গোটা দিন শহরের আনাচে-কানাচে ঘুরে বেড়িয়েছেন। তবে বাবা বনি কাপুরকে তিনি বলেন, লস অ্যাঞ্জেলসেই সিনেমা দেখতে গিয়েছেন তিনি। করিনা কাপুর খানের রেডিও শো ‘হোয়াট ওমেন ওয়ান্ট’-এর সাম্প্রতিকতম এপিসোডে এই কথা জানালেন শ্রীদেবী কন্যা। তিনি বলেন, ‘মেয়েবেলা এবং বড়ো হয়ে উঠবার পড়েও একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত তুমি একটু বাগী হতে চাও। তোমার কিছু করা উচিত নয়, সেটা করে আনন্দ পাও’। 

‘যেমন ধরুন গতকালই প্রথমবার আমি বাবাকে বললাম, যে আমি ওঁনাকে মিথ্যা বলে ফ্লাইটে চড়ে সোজা ভেগাসে পৌঁছে গিয়েছিলাম। সারাদিন শহরের এদিন ওদিক ঘুরে পরের দিন সকালের ফ্লাইটে আবার ফিরে আসি। উনি জানতেন না’। 

সারা বিশ্ব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদার রাজধানী লাস ভেগাসকে চেনে রিসর্ট সিটি নামে। বলা হয় এই শহর রাতে কখনও ঘুময় না। রাত বাড়ার সঙ্গে বাড়ে ভেগাসের বিলাসিতা। বিশ্বের সবচেয়ে বিলাসবহুল শহর নামে পরিচিত ভেগাস। 

আপতত জাহ্নবী ব্যস্ত নিজের আসন্ন ছবি ‘গুড লাক জেরি’র শ্যুটিং। পঞ্জাবে এই ছবির শ্যুটিং চলাকালীন বিক্ষোভরত কৃষকদের হাতে ঘেরাও হতে হয় জাহ্নবী হয় গোটা টিমকে। সাময়িকভাবে শ্যুটিং বন্ধ থাকবার পর ফের চালু হয়। এই ছবি পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে সিদ্ধার্থ সেনগুপ্ত। ছবিতে দেখা মিলবে দীপক ডোবরিয়াল, নীরজ সুদ,সুশান্ত সিংয়দেরও। মার্চে শেষ ছবি ছবির প্রথম শেডিউল। 

জাহ্নবীকে শেষবার দেখা গিয়েছে ‘গুঞ্জন সাক্সেনা : দ্যা কার্গিল গার্ল’ ছবিতে। করোনা আবহে অগস্ট মাসে নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায় এই ছবি।

বন্ধ করুন