বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > আলাদা থাকলেও স্বামী নির্মল কুমারের ৯২তম জন্মদিনে পাশে মাধবী মুখোপাধ্যায়
নির্মলকুমারের জন্মদিন উদযাপনে মাধবী মুখোপাধ্যায় (ছবি ফেসবুক)
নির্মলকুমারের জন্মদিন উদযাপনে মাধবী মুখোপাধ্যায় (ছবি ফেসবুক)

আলাদা থাকলেও স্বামী নির্মল কুমারের ৯২তম জন্মদিনে পাশে মাধবী মুখোপাধ্যায়

  •  বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে পঁচিশ বছর সংসার করেছেন। এরপরই আলাদা থাকতে শুরু করেন দুজনে। তবে স্বামী নির্মলকুমারের জন্মদিন উদযাপনে সামিল হন অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায়। 

স্বামী নির্মলকুমার চক্রবর্তীর ৯২ বছরের জন্মদিনটা একসঙ্গেই উদযাপন করলেন মাধবী মুখোপাধ্যায়। ষাটের দশকের বাংলা চলচ্চিত্র জগতের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায়, চারুলতা হিসাবেই যিনি আজও আমাপর সিনেপ্রেমীর মনে ঘর করে রয়েছেন। 

স্বামী নির্মলকুমারের জন্মদিনে মেয়ে এবং নাতি-নাতনিদের আবদারে মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন তিনি। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে পঁচিশ বছর সংসার করেছেন। এরপরই আলাদা থাকতে শুরু করেন দুজনে। আলাদা থাকলেও সবসময়ই খোঁজ নিয়েছেন, স্বামীর প্রতি সমস্ত দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। 

বর্তমানে ‘লেক উইন্ডো’ আবাসনে নিজের মতো করে একা থাকেন অভিনত্রী। তবে সময়ের সঙ্গে সম্পর্কগুলোতে ধুলো পড়তে দেননি তিনি। করোনা আবহে ঘরবন্দিই ছিলেন। নাতনিদের আবদারে স্বামীর জন্মদিনে জন্য মেয়ের বাড়ি যান। কেক কেটে একসঙ্গে উদযাপন করেন। সেই ছবি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করতেই ভাইরাল হয়ে যায়।

নির্মলকুমারের জন্মদিন উদযাপনে মাধবী মুখোপাধ্যায় (ছবি ফেসবুক)
নির্মলকুমারের জন্মদিন উদযাপনে মাধবী মুখোপাধ্যায় (ছবি ফেসবুক)
মানিকের 'চারুলতা'র দৃশ্যে চারু তথা মাধবী মুখোপাধ্যায় (ছবি সংগৃহীত)
মানিকের 'চারুলতা'র দৃশ্যে চারু তথা মাধবী মুখোপাধ্যায় (ছবি সংগৃহীত)

 ঘি-য়ে রঙের চাদর পরে একগাল হাসি নিয়ে স্বামীর পাশে একদম বাঙালি গিন্নীর রূপে দেখা যাচ্ছে। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হতেই আপ্লুত হয়ে পড়েন অনুরাগীরা।  দুই মেয়ে, মিমি আর নীলাঞ্জনা প্রতিষ্ঠিত হয়ে যাওয়ার পর স্বামীর সঙ্গে এক ছাদের নীচে থাকেননি মাধবী, কারণ মনের মিল না থাকলে আলাদা থাকাটাই শ্রেয়। তবে জন্মদিন থেকে জামাইষষ্ঠী সব উত্সব একসঙ্গেই পালন করেন। 

বন্ধ করুন