বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Sandhya Roy: হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন, এখন কেমন আছেন সন্ধ্যা রায়?

Sandhya Roy: হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন, এখন কেমন আছেন সন্ধ্যা রায়?

সন্ধ্যা রায়

জানা গিয়েছিল, দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ। হাসপাতালের তরফ মেডিক্যাল বুলেটিনে বলা হয়েছিল, গত ১৫ই জুন অর্থাৎ শনিবার বুকে অস্বস্তি-সহ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল প্রবীণ অভিনেত্রীকে। বুক ধড়পড় করছিল তাঁর।

অবশেষে স্বস্তি। হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন সন্ধ্যা রায়। হাসপাতাল সূত্রে খবর এখন তিনি অনেকটাই ভালো আছেন, সেকারণেই অভিনেত্রীকে হাসপাতাল থেকে ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। গত ১৫ জুন এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায়। বুকে অস্বস্তি নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি।

জানা গিয়েছিল, দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ। হাসপাতালের তরফ মেডিক্যাল বুলেটিনে বলা হয়েছিল, গত ১৫ই জুন অর্থাৎ শনিবার বুকে অস্বস্তি-সহ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল প্রবীণ অভিনেত্রীকে। বুক ধড়পড় করছিল তাঁর।

ভর্তির পর ৭৯ বছর বয়সী অভিনেত্রীর ইসিজি, ইকোকার্ডিওগ্রাফি করা হয়। ২৪ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল। করা হয়েছিল সমস্ত ধরনের রক্ত পরীক্ষাও। সেইসব পরীক্ষার ভিত্তিতেই চিকিৎসকরা মনে করছিলেন করোনারি ইনসাফিসিয়েন্সিতে ভুগছেন অভিনেত্রী। এর অর্থ অভিনেত্রী হৃদযন্ত্রের সমস্যা রয়েছে, তবে সেটির প্রভাব খানিক কম। তবে কোনওরকম অক্সিজেন সাপোর্টের দরকার পরেনি তাঁর। ডঃ এসবি রায় (ননইনভেনশন্যাল কার্ডিওলজি), ডঃ সুস্মিতা দেবনাথ (ক্রিটিক্যাল কেয়ার) এবং ডঃ পিকে মিত্র (ইনভেনশন্যাল কার্ডিওলজি)- তিন সদস্যের চিকিৎসকদের এই টিম সন্ধ্যা রায়ের চিকিৎসার দায়িত্বে ছিলেন। এই চিৎসকের টিমই জানিয়েছে সন্ধ্যা রায় এই মুহূর্তে মোটামুটি সুস্থ।

আরও পড়ুন-ছেলের জন্য ‘ব্রেস্টফিডিং’ মেয়ের জন্য ‘ফর্মুলা মিল্ক’! কোনটা কঠিন? প্রশ্ন তুলে কী বলছেন পরীমনি?

বাড়ি ফিরলেন সন্ধ্যা রায়
বাড়ি ফিরলেন সন্ধ্যা রায়

সাদা কালো থেকে রঙিন, বাংলা সিনেমায় দীর্ঘ ২৫ ধরে দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন সন্ধ্যা রায়। বছর তিনেক আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন হাসপাতালে ভর্তিও ছিলেন অভিনেত্রী। গত ২০২২ সালে স্বামী তরুণ মজুমদারকে হারান অভিনেত্রী। দীর্ঘদিন একসঙ্গে না থাকলেও কাগজে কলমে আলাদা হননি তাঁরা। ১৯৬৭ সালে বিখ্যাত পরিচালক তরুণ মজুমদারের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন সন্ধ্য়া রায়।

প্রসঙ্গত মাত্র ১৬ বছর বয়সে রুপোলি জগতে পা রাখেন সন্ধ্যা রায়। ‘মামলার ফল' (১৯৫৭) ছিল তাঁর প্রথম ছবি।। অসামান্য অভিনয় কৌশলের দক্ষতায় তিনি যে কোনও চরিত্রই ফুটিয়ে তুলতে পারতেন সহজেউ। সন্ধ্যা রায়ের অন্যতম চর্চিত ছবিগুলির মধ্যে রয়েছে সত্যজিৎ রায়ের ‘অশনি সংকেত’ এবং তরুণ মজুমদারের ‘ঠগিনি’। আবার ‘বাবা তারকনাথ’ কিংবা 'দাদার কীর্তি' , 'ছোট বউ'-এর মতো বাণিজ্যিক ছবিতেও অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী । 'মায়া মৃগয়া', 'কঠিন মায়া', 'বন্ধন', 'পলাতক', 'তিন অধ্যায়', 'আলোর পিপাসা', 'ফুলেশ্বরী', 'সংসার সীমান্তে', 'নিমন্ত্রণ', দীর্ঘ ফিল্মি জীবনে বাঙালিকে অজস্র ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি।

বায়োস্কোপ খবর

Latest News

হিন্দু মহিলাদের সঙ্গে মুসলিম যুবকদের গণবিবাহ, উদ্যোগী মৌলবী, শোরগোল যোগী রাজ্যে 'আপনার বাড়ির পাশে রাস্তা বেহাল সেটা আম্বানির দোষ নয়', ট্রোলারদের জবাব অন্তরার অমরনাথ যাত্রার জন্য বালতাল বেস ক্যাম্পে পৌঁছলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজু! কোহলিকে স্লেজ করতে মানা করলে খুব রাগ হত, অকপট প্রাক্তন অজি অধিনায়ক ভিন রাজ্যে আলু পাঠানো বন্ধের নির্দেশ দিল নবান্ন, সবজির দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে বৈঠক পুরসভার ওয়েবসাইটে মজাদার ‘হিংলিশ’! কুকুর পাগল হওয়ার কথা দেখে হাসছে নেটদুনিয়া নতুন অবতারে ফিরছেন প্রবীর-পোদ্দার জুটি! সৃজিত নন, প্রসেনজিৎ-অনির্বাণকে মেলাল কে? পিছিয়ে গেল শ্রীলঙ্কা সফরের দল নির্বাচন, ভারতীয় স্কোয়াড নিয়ে মিলল হাফ-ডজন আপডেট সমালোচনার মুখে পড়লেই আপনার মনমেজাজ প্রচণ্ড খারাপ হয়ে যায়? কোনও ট্রমা নেই তো মাঠে যা করেছি সব তোমার জন্য- হাতে আঁকা ছবি দিয়ে মাকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানালেন জাড্ডু

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.