বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অবশেষে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন অভিনেত্রী সুরেখা সিক্রি
সুস্থ হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৫ বছর বয়েসি সুরেখা সিক্রি।
সুস্থ হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৫ বছর বয়েসি সুরেখা সিক্রি।

অবশেষে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন অভিনেত্রী সুরেখা সিক্রি

  • সুস্থ হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর ফিরে এসেছেন ৭৫ বছর বয়েসি সুরেখা।

MUMBAI : প্রায় দশ দিনের ওপরে হাসপাতালে থাকার পর অবশেষে ছাড়া পেলেন বর্ষীয়ান বলি অভিনেত্রী সুরেখা সিক্রি। সুস্থ হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর ফিরে এসেছেন ৭৫ বছর বয়েসি সুরেখা।

আয়ুষ্মান খুরানা অভিনীত বাধাই হো খ্যাত সুরেখা ব্রেন স্ট্রোকের শিকার হয়ে ভর্তি ছিলেন মুম্বইয়ের হাসপাতালে। সেই সময় তাঁর আর্থিক পরিস্থিতি অভিনেত্রীর তরফ থেকে চিকিৎসার জন্য ইন্ডাস্ট্রির কাছে সাহায্যের আবেদন সংক্রান্ত একাধিক জল্পনা ছড়িয়েছিল বি টাউনের বাতাসে।

এই মাসের শুরুর দিকে আচমকাই মস্তিষ্কের স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে নিজের বাড়িতেই অজ্ঞান হয়ে যান সুরেখা। তাঁর রক্ষনাবেক্ষনের দায়িত্বে নিযুক্ত গৃহসেবিকা তৎক্ষণাৎ তাঁকে নিয়ে গিয়ে ক্রিটিকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেই সময় প্রাথমিক ভাবে গুঞ্জন ছড়ায় তাঁর চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তার প্রয়োজন। এমনকি গুজব রটে যায় চিকিৎসা খরচ এড়াতেই অন্য বড় হাসপাতালের বদলে ক্রিটিকেয়ারে ভর্তি করা হয়েছে জাতীয় পুরস্কার বিজয়ী এই অভিনেত্রীকে। এই প্রসঙ্গে টুইটও করেছিলেন অভিনেতা সোনু সুদ। তবে পরবর্তীকালে তাঁর ব্যবস্থাপক যাবতীয় গুজব উড়িয়ে দিয়ে জানিয়ে দেন, তাঁর ছেলেই মায়ের চিকিৎসার ব্যবস্থা করছেন। এ ছাড়া অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত সঞ্চয় যা রয়েছে তাতেই চলেছে চিকিৎসার খরচ।

শুক্রবারেই টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে হাসপাতালের স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডক্টর আশুতোষ শেট্টি জানিয়েছেন স্ট্রোকের পর থেকেই ধীরে ধীরে অবস্থার উন্নতি হয় অভিনেত্রীর। ধীরে ধীরে পরিজনদের চিনতে পারছেন তিনি। সাহায্য নিয়ে আস্তে আস্তে হাঁটা চলাও করছেন। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। তবে আবার স্বাভাবিক কাজে ফিরতে কিছুটা সময় লাগবে। এখন নিয়মিত ফিজিওথেরাপির মধ্যে দিয়ে যেতে হবে বলি তারকাকে।

আগেও ২০১৮ সালে একবার ব্রেন স্ট্রোক হয়ে বাথরুমে পরে গিয়ে মাথায় ছোট পেয়েছিলেন অভিনেত্রী। হিন্দুস্তান টাইমস-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সুরেখা নিজেই জানিয়েছিলেন, ‘মহাবালেশ্বরে শুটিং চলাকালীন ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে আমি আচমকা বাথরুমে পড়ে যাই। আর কাজ করতে পারছিলাম না কোনও ভাবেই। ডাক্তার আমায় বিশ্রাম নিতে বলেছেন।’ 

সে বার জানিয়েছিলেন চিকিৎসকের কথা মতো বিশ্রাম নিলেই শীঘ্রই সুস্থ হয়ে যাবেন। কিন্তু আবার একই সমস্যার পুনরাবৃত্তি ঘটায় চিন্তিত হয়ে পড়েন অনুরাগী মহল।

ইন্ডাস্ট্রিতে আসার আগে মূলত হিন্দি থিয়েটারের সাথে দীর্ঘ দিন যুক্ত ছিলেন সুরেখা । ১৯৮৯ সালে সংগীত নাটক একাডেমি সম্মানে ভূষিত হন তিনি । এছাড়া তমস (১৯৮৮), মাম্মো (১৯৯৫) এবং বাধাই হো (২০১৮) ছবিগুলিতে নিজের চরিত্রে অভিনয়ের সৌজন্যে সম্মানিত হন জাতীয় পুরস্কারে । সালিম লংড়ে পে মত্ রো , দিল্লাগি, জুবাইদা-র মতো একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী । এছাড়াও ছোট পর্দায় সাত ফিরে - সালোনি কা সফর , বালিকা বধূ , এক থা রাজা এক থি রানি এবং পরদেশ মে হ্যায় মেরা দিল -এর মতো একাধিক ধারাবাহিকে চুটিয়ে অভিনয় করেছেন সুরেখা।

বর্ষীয়ান অভিনেত্রীকে শেষ দেখা গিয়েছিলো জোয়া আখতারের পরিচালনায় নেটফ্লিক্স-এ মুক্তিপ্রাপ্ত 'গোস্ট স্টোরিজ'-এ, যেখানে জাহ্নবী কাপুর এবং বিজয় ভার্মার সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছিলেন তিনি। এ ছাড়াও কিছু দিনের মধ্যেই মুক্তি পেতে চলা শের কুরমা ছবিতে অভিনেত্রী দিব্যা দত্তের ঠাকুমার ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যাবে তাঁকে। বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর দ্রুত আরোগ্যের জন্য প্রার্থনা করছে অনুরাগী মহল।

বন্ধ করুন