বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'যশ রাজ ফিল্মস'-এর ৫০ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানের টাকা এবার যাবে কোভিড ত্রাণে
'যশ রাজ ফিল্মস'-এর কর্ণধার আদিত্য চোপড়া।  ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
'যশ রাজ ফিল্মস'-এর কর্ণধার আদিত্য চোপড়া।  ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

'যশ রাজ ফিল্মস'-এর ৫০ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানের টাকা এবার যাবে কোভিড ত্রাণে

  • যশ রাজ ফিল্মস'-এর ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিরাট উদযাপন অনুষ্ঠানের সমস্ত পরিকল্পনা সম্পূর্ণ বাতিল করে সেই বাজেটের টাকা দেশের করোনা আক্রান্ত ও দুঃস্থদের জন্য ব্যবহৃত হবে বলে জানিয়েছেন আদিত্য চোপড়া।

বলিউডের অন্যতম বৃহৎ প্রযোজনা সংস্থা 'যশ রাজ ফিল্মস'-এর ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে এক বিরাট উদযাপন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা ফেঁদেছিলেন সংস্থার কর্ণধার আদিত্য চোপড়া। বলিউডে জোর গুঞ্জন ছিল চোখধাঁধানো সেই অনুষ্ঠানের জন্য কোটি কোটি টাকা বাজেট নির্ধারিত করা হয়েছিল। আজ্ঞে হ্যাঁ,'হয়েছিল'. কারণ বর্তমানে সেই অনুষ্ঠানের সমস্ত পরিকল্পনা সম্পূর্ণ বাতিল করে সেই বাজেটের টাকা দেশের করোনা আক্রান্ত ও দুঃস্থদের জন্য ব্যবহৃত হবে বলে জানিয়েছেন আদিত্য চোপড়া। বর্তমানে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাকানিচোবানি খাচ্ছে গোটা দেশ। এককথায় প্রায় বিধ্বস্ত। প্রতিদিনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুমিছিলের হার। রেকর্ডসীমা পেরিয়ে চলেছে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যাও। হাহাকার বাড়ছে অক্সিজেন সিলিন্ডার,হাসপাতালের বেড এবং ওষুধের জন্যও। এমতবস্থায় এহেন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যশ রাজ ফিল্মস সংস্থার পক্ষ থেকে। আসলে, গত বছরই নিজেদের প্রযোজনা সংস্থার ৫০তম জন্মদিন ধুমধাম করে পালন করার কথা ছিল আদিত্য চোপড়ার। তবে করোনার অতর্কিত হামলায় বাধ্য হয়েই বন্ধ রাখতে হয়েছিল সেই পরিকল্পনা। ভেবেছিলেন সুদে আসলে সেই উদযাপন এবার তাঁর সারবেন ভারত ছাড়াও ইউরোপের আরও কয়েকটি দেশে। কিন্তু বর্তমানে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় বন্ধ হয়েছে গোটা বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এই ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে জড়িয়ে থাকা বহু মানুষ। তাই সবদিক খতিয়ে দেখে যশ রাজ ফিল্মসের কর্ণধারের সিদ্ধান্ত তাঁদের এই উদযাপনের টাকা ব্যবহৃত হবে আরও উন্নততর স্বার্থে।

৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে 'যশ রাজ ফিল্মস'-এর লোগো। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে 'যশ রাজ ফিল্মস'-এর লোগো। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

ইতিমধ্যেই এই সংস্থার ' ষ্টুডিও কিচেন' থেকে গুরগাঁও-য়ে কর্মরত হাজার হাজার প্রথম সারির কোভিড যোদ্ধাদের দু'বেলার খাবারের যোগান দেওয়া হবে। এছাড়াও মুম্বইয়ের আন্ধেরি অঞ্চলে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকা আক্রান্তদের জন্যও নিত্যদিনের খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে ' যশ রাজ ষ্টুডিও কিচেন'-এর তরফে। পাশাপাশি বলিপাড়ার বর্ষীয়ান দুঃস্থ অভিনেতা ও মহিলাদের প্রত্যেককে নগদ ৫০০০ টাকা করে দেওয়া হবে। এছাড়াও ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যেসব মানুষের রোজগার 'দিন আনি দিন খাই'- এর পর্যায়ভুক্ত তাঁদের পরিবারের প্রতিটি ব্যক্তিদের এক মাসের রেশনের ব্যবস্থাও করা হবে এই ছবি প্রযোজনা সংস্থার তরফে। কানাগেছে, করোনা অধ্যুষিত এই কঠিন সময়ে কেটে যাওয়ার পরেও একটি টাকাও তাঁদের প্রযোজনা সংস্থার উদযাপন অনুষ্ঠানের পিছনে খরচ করা হবে না।

বন্ধ করুন