বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > IPL বন্ধ, তাই নেটিজেনরা ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছে Indian Idol-এর উপর! বিস্ফোরক আদিত্য
আদিত্য নারায়ণ
আদিত্য নারায়ণ

IPL বন্ধ, তাই নেটিজেনরা ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছে Indian Idol-এর উপর! বিস্ফোরক আদিত্য

  • ‘শো থামিয়ে দেওয়ার ইচ্ছা হচ্ছিল’, এর আগে আমিত কুমারের মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে নিজের মত জাহির করেছিলেন ‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এর হোস্ট আদিত্য নারায়ণ।

‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এ কিশোর কুমার স্পেশ্যাল এপিসোড নিয়ে নানা বিতর্কের ঝড় উঠেছিল। কিশোর-পুত্র অমিত কুমারের মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে মত প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছিল রিয়েলিটি শো-এর হোস্ট আদিত্য নারায়ণকে। অনেক টুইটার ব্যবহারকারীরা এই বিতর্কে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিল। বিচারক এবং প্রতিযোগিরা গায়কের উত্তরাধিকারকে নিয়ে যে আচরণ করেছে সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। 

এবার শো-এর হোস্ট আদিত্য নারায়ণ শো নিয়ে ফের একবার বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। তিনি বিশ্বাস করেন যে আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) শেষ হওয়ার কারণে লোকে হতাশ হয়ে পড়েছে তাই ইন্ডিয়ান আইডল নিয়ে সমালোচনা করতে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। 

বলিউড স্পাইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আদিত্য জানিয়েছে, ‘আমার মতে দু-তিন সপ্তাহ আগে আইপিএল বন্ধ হয়ে গেছে। সেটার সমস্ত ক্ষোভ আমাদের ওপর প্রকাশ করছে। মা-বাবা রিমোর্ট বাগিয়ে নিয়েছে। তাই নতুন প্রজন্ম খুশি নয়। তারা জানেনা কোথায় ক্ষোভ প্রকাশ করতে হবে। এই শূন্যতাটা আমিও অনুভব করি, যখনই ৭-৭.৩০টা বাজে। আমিতো মোবাইল অ্যাপেও সেই ক্রিকেট টিম বানিয়ে ফেলেছি। গত বছর এবং এই বছরও টিভিতে নতুন কিছু আসলে আমি উৎসাহ নিয়ে দেখছি। কারণ আমাদের হাতে অনেক সময় আছে তাই’।

শুধু সাধারণ মানুষ নয়, কিশোর পুত্র অমিত কুমারও শো নিয়ে নানা বিতর্কিত এবং সমালোচিত মন্তব্য করেছেন। কিছুদিন আগে ‘ইন্ডিয়ান আইডল ১২’-এর মঞ্চে হাজির ছিলেন অমিত কুমার। যেখানে বিশেষভাবে সম্মান জানানো হয় কিশোর কুমারকে তাঁর ১০০টি গানের দ্বারা। 

অমিত কুমার জানিয়েছিলেন, টাকার জন্য তিনি অতিথি বিচারক হতে রাজি হয়েছিলেন। আরও বলেছিলেন, শ্যুটিং শুরুর আগেই তাঁকে সকল প্রতিযোগির প্রশংসা করতে বলা হয়েছিল। সেদিন কারও গান তাঁর ভালো লাগেনি। অমিতের মিডিয়াকে দেওয়া এই মন্তব্য নিয়েই মুখ খুলেছিলেন আদিত্য নারায়ণও। 

এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আদিত্য নারায়ন বলেন, ‘অমিতজি-র প্রতি সম্মান জানিয়েই বলছি, মাত্র এক ঘণ্টায় কিশোর কুমারের মতো একজন কিংবদন্তি গায়ককে সম্মান জানানো সত্যিই কঠিন। উনি একজন গুরুজন, আমার বাবার থেকেও বয়স বেশি তাঁর। অমিতজি সম্পর্কে সত্যিই আমার মন্তব্য করা সাজে না। উনি এর আগেও বহুবার এসেছেন এবং আমাদের সঙ্গে খুব দারুণ সময় কাটিয়েছেন। আমার মনে হয় গত দুই মরসুমে তিনি ২-৩ বার এসেছেন। হঠাৎ কী হয়েছে তাঁর জানি না’।

 

বন্ধ করুন