বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্ত মামলায় কঙ্গনার দাবি মিথ্যা,এবার ওঁর উচিত পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দেওয়া, দাবি ‘প্রাক্তন প্রেমিক’ আদিত্য পাঞ্চলির
আদিত্য পাঞ্চলির নিশানায় কঙ্গনা 
আদিত্য পাঞ্চলির নিশানায় কঙ্গনা 

সুশান্ত মামলায় কঙ্গনার দাবি মিথ্যা,এবার ওঁর উচিত পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দেওয়া, দাবি ‘প্রাক্তন প্রেমিক’ আদিত্য পাঞ্চলির

  • এবার আদিত্য পাঞ্চলির নিশানায় কঙ্গনা। সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে অভিনেত্রীর নোপোটিজম থিয়োরি উড়িয়ে দিলেন সূরজ পাঞ্চলির বাবা।

সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা সালিয়ানের সঙ্গে সূরজ পাঞ্চলির নাম জড়িয়ে একাধিক ষড়যন্ত্রের তত্ত্ব গত দু মাস ধরে ঘোরাফেরা করছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে সূরজ এবং দিশার পরিবারের তরফে সেই সব জল্পনা খারিজ করা হয়েছে। এই বিতর্কে আগেই ছেলের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন মা জারিনা ওয়াহাব। এবার সূরজ পাঞ্চলির সপক্ষে মুখ খুললেন বাবা আদিত্য পাঞ্চলি। শুধু তাই নয় সুশান্তের মৃত্য তদন্ত কঙ্গনা রানাওয়াতের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুললেন নায়িকার এক সময়ের চর্চিত বয়ফ্রেন্ড। 

 সুশান্তের মৃত্যুতে সূরজের নাম জড়ানোটা আজ তককে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে আদিত্য পাঞ্চলি বলেন,' একজন বোকা মানুষ এটা পোস্ট করে।এরপর সব সংবাদমাধ্যম সেই খবরটা ছড়িয়ে দেয় এবং এটাকে এটা বড় ইস্যু হিসাবে তুলে ধরে। এটা একেবারেই অনুচিত। সবার একটু বেশি সতর্ক হওয়া উচিত।আমাদের অনেক পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে। আমি একেবারেই সোশ্যাল মিডিয়ার মানুষ নই, কিন্তু সকলে সূরজকে ট্রোল করছে, বলছে ও নাকি খুনি! এই কারণে ও বাধ্য হয়ে কমেন্ট সেকশন বন্ধ করে দিয়েছে। এগুলো কী? 

সূরজের মা জারিনার ওয়াহাব এবং অভিনেতা নিজেও আগেই জানিয়েছেন কোনওভাবেই দিশা সালিয়ানের সঙ্গে কোনওরকম পরিচয় ছিল না সূরজের। এবং সুশান্তের মৃত্যুর আগের রাতে (১৩ জুন) সুরজের বাড়িতে কোনওরকম পার্টি হয়নি কিংবা তিনি কোনও পার্টিতে যোগ দেননি। 

কঙ্গনা এর আগে এনটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে জানিয়েছিলেন আদিত্য পাঞ্চলির হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তিনি। তিনি জানান, ‘আমার বাবার বয়সী এই মানুষটা আমাকে মাথায় এত জোরে মেরেছিল, যে আমি মাথা ঘুরে মাটিতে পড়ে যাই এবং রক্ত ঝরতে শুরু করে। আমার তখন কত বয়স,খুব বেশি হলে ১৭। এরপর আমি ওঁর মাথায় চপ্পল মেরে পালিয়ে আসি, ওঁর মাথা দিয়েও রক্ত পড়ছিল’। কঙ্গনার এই সাক্ষাত্কারের জেরে আদিত্য পাঞ্চলি নায়িকার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা ঠুকে দেন। কঙ্গনার দিদি রঙ্গোলি চান্দেলের বেশ কিছু টুইটের জন্য মানহানির মামলা করেন আদিত্য পাঞ্চলি। 

আজ তক'কে আদিত্য পাঞ্চলি বলেন, কঙ্গনার নোপোটিজম থিয়োরি তো ইতিমধ্যেই ভুল প্রমাণিত হয়েছে, সুশান্তের মৃত্যুর মামলায়। তাহলে কঙ্গনা কি নিজের পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দেবেন?  তিনি জোর গলায় বলেন, ‘ওঁনাকে বলুন পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দিতে, কারণ উনি ভুল ছিলেন সুশান্তের মামলায়। সুশান্তের বাবা পাটনায় যে এফআইআর দায়ের করেছেন সেখানে তো নেপোটিজমের কোনও গল্প নেই।উনি স্পষ্টই সেখানে ৩০৬ ধারা আরোপ করেছেন রিয়ার উপর। তাহলে কেন কঙ্গনা ইন্ডাস্ট্রির মানুষজনের নাম নিয়ে দোষারোপ করছে’।

কঙ্গনা রিপাবলিক টিভিকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে বলেছিলেন, 'আমি জানাচ্ছি, যদি আমি এমন কিছু বলে থাকি, যা আমি প্রমাণ করতে পারব না, যা পাবলিক ডোমেনে উপস্থিত নেই। তাহলে আমি আমার পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দেব। 

উল্লেখ্য ২০০৫ সাল থেকে আদিত্য পাঞ্চলি ও কঙ্গনা রানাওয়াতের প্রেম সম্পর্কে থাকার খবর শোনা গিয়েছিল বলিউডে। নিজের মুখে সেই সম্পর্ক মেনেও নিয়েছিলেন বিবাহিত আদিত্য পাঞ্চলি। কিন্তু কঙ্গনা বরবারই বলেছেন একটা সময় তাঁরা খুব ভালো পরিচিত ছিলেন কিন্তু তারপর সেই সম্পর্কে চিড় ধরে। প্রসঙ্গত ২০০৭ সালে আদিত্য পাঞ্চলির বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন কঙ্গনা।

বন্ধ করুন