বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > হারের পর রোহিত শর্মাকে আগলে রাখলেন কোহলি, ক্যাপ্টেন-এর ব্যাবহারে মুগ্ধ আফতাব
'ক্যাপ্টেন কোহলি'-র ব্যবহারে মুগ্ধ বলি-অভিনেতা আফতাব। (ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)
'ক্যাপ্টেন কোহলি'-র ব্যবহারে মুগ্ধ বলি-অভিনেতা আফতাব। (ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)

হারের পর রোহিত শর্মাকে আগলে রাখলেন কোহলি, ক্যাপ্টেন-এর ব্যাবহারে মুগ্ধ আফতাব

  • পাকিস্তানের কাছে হারের পর সাংবাদিক সম্মেলনে রোহিত শর্মা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় মুখের ওপর সপাটে জবাব দেন বিরাট কোহলি। দলের সদস্যর জন্য বিরাতের এই লড়াকু মনোভাব দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বলি-অভিনেতা আফতাব।

রবিবার দুবাইয়ে ভারতকে স্রেফ উড়িয়ে দেয় পাকিস্তান। যে পাকিস্তান রবিবারের আগে পর্যন্ত কোনও বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে জিততে পারেনি। তবে এবারকার সাক্ষাতে পাকিস্তানের সামনেই দাঁড়াতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। রবিবারের পাকিস্তানের সঙ্গে ম্যাচে চূড়ান্ত ব্যর্থ হয়েছে ভারতীয় দলের এই দুই ওপেনার রোহিত শর্মা এবং কে এল রাহুল। প্রথমে ব্যাট করতে নেমেই দলের ১ রানের মাথায় রোহিত শর্মাকে ফেরান শাহিন আফ্রিদি। ১ বল খেলে শূন্য রানে আউট হন তিনি।এর পর আফ্রিদি ফেরান কেএল রাহুলকে।

অন্যদিকে,মিডল অর্ডারে রান পাচ্ছিলেন না ইশান কিষাণ। কোহলির পরামর্শেই আইপিএলের শেষদিকে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ওপেন করতে নামেন ইশান। ওপেনে ফিরে চূড়ান্ত সফল ঝাড়খণ্ডের তরুণ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান।ফর্মে থাকলেও ইশানকে পাকিস্তান ম্যাচে মাঠে নামানো সম্ভব হয়নি কম্বিনেশনের স্বার্থে। কেননা লোকেশ রাহুল যে রকম ছন্দে রয়েছেন, তাতে তাঁকে সরিয়ে অন্য কাউকে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে পাঠানো মুশকিল। রোহিত আইপিএলে তেমন একটা নজর কাড়তে না পারলেও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে অনুশীলন ম্যাচে ওপেন করতে নেমে হাফ-সেঞ্চুরি করেন। স্বাভাবিকভাবেই টিম ম্যানেজমেন্টের আস্থা ঝুঁকেছিল এই 'সুপারহিট' জুটির ওপরেই। তবে সেই ভরসা রাখতে পারেননি তাঁরা। এত কিছুর পরেও সাংবাদিক সম্মেলনে বিরাট কোহলি যেভাবে রোহিত শর্মার সমালোচনার সামনে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছেন, তা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বলি-অভিনেতা আফতাব শিবদাসানি।

এই অবস্থায় পাকিস্তানের কাছে হারের পর সাংবাদিক সম্মেলনে বিরাট কোহলির কাছে জানতে চাওয়া হয় যে, রোহিতের বদলে ইশান কিষাণকে ওপেন করতে না পাঠানো কি ভুল হয়েছে? প্রশ্ন শুনে রীতিমতো অবাক হয়ে যান কোহলি। তাঁর প্রতিক্রিয়া ছিল, ‘টি-২০ দল থেকে আপনি রোহিত শর্মাকে বাদ দিতে বলছেন? অবিশ্বাস্য!' ওই সাংবাদিককে কটাক্ষ করে বিরাট আরও বলেন,' এককথায় দারুণ প্রশ্ন করেছেন আপনি! দারুণ! আছে আপনি যদি আমার জায়গায় থাকতেন তাহলে কী করতেন? এরকম পর্যায়ের টুর্নামেন্টে ম্যাচের বাইরে বসিয়ে রাখতেন রোহিতের মতো একজন ব্যাটসম্যানকে?' এখানেই চুপ করে যাননি ভারতীয় দলের স্কিপার। ব্যঙ্গ করে ওই সাংবাদিককে তিনি বলে ওঠেন, 'স্যার, আপনার যদি বিতর্ক তৈরি করার কোনও ইচ্ছে থাকে তাহলে দয়া করে একটু আগে থেকেই জানিয়ে দেবেন আমাকে। সেই বুঝে জবাবগুলো তৈরি করে রাখব'।

কোহলির ঠিক এই মনোভাবেই মুগ্ধ হয়েছেন আফতাব শিবদাসানি। সাংবাদিক বৈঠকে বিরাটের ওই কথোপকথনের ভিডিও টুইট করে সাধুবাদ জানিয়েছেন বলি-অভিনেতা। সঙ্গে লিখেছেন, 'নেতৃত্ব দিতে হয় এমন করে,এভাবেই'। পাশাপাশি বিশ্বকাপের হাই-ভোল্টেজ ম্যাচে ভারতের হারের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতীয় তারকা পেসার মহম্মদ শামিকে উদ্দেশ্য করে উড়ে আসতে থাকে কটুক্তি। তার প্রতিবাদে সোচ্চার হয়ে বিখ্যাত ক্রিকেট ধারভাষ্যকার হর্ষ ভোগলে একটি টুইট করেছেন। 

সেই টুইটিও রিটুইট করেছেন আফতাব।

বন্ধ করুন