বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > দীর্ঘ লড়াইয়ে পর ক্যানসার-যুদ্ধে জয়ী, শ্যুটিং ফ্লোরে কামব্যাক করলেন নাফিসা আলি
নাফিসা আলি (ছবি ইনস্টাগ্রাম)
নাফিসা আলি (ছবি ইনস্টাগ্রাম)

দীর্ঘ লড়াইয়ে পর ক্যানসার-যুদ্ধে জয়ী, শ্যুটিং ফ্লোরে কামব্যাক করলেন নাফিসা আলি

  • 'রকি অউর রানি কি প্রেম কাহানি' ছবি দিয়ে ফের পর্দায় ফিরছেন নাফিসা।

বয়স ৬৪-র কোঠায়। ২০১৮ সালে মারণ রোগ ক্যানসার বাসা বেঁধেছিল শরীরে। অথচ জীবনকে কীভাবে উপভোগ করতে হয়, সেইটা ভালভাবেই জানতেই অভিনেত্রী নাফিসা আলি। হাসি মুখে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন অভিনেত্রী। অদ্ভুত অনিশ্চয়তা নিয়ে ছিল লড়াই। বর্তমানে ক্যানসার যুদ্ধে জয়ী তিনি। 

সুস্থ হওয়ার পর ধীরে ধীরে জীবনের মূলস্রোতে ফিরছেন অভিনেত্রী। নাফিসার স্বাভাবিক জীবন মানেই অভিনয়, সেই কাজই শুরু করলেন তিনি। সম্প্রতি ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নিয়েছেন। চিকিৎসক এবং পরিবারের সম্মতিতে শ্যুটিং ফ্লোরে ফিরেছেন। মুম্বইয়ের মাধ আইল্যান্ডে এম পদ্মকুমারের ছবির শ্যুটিং শুরু করেছেন নাফিসা। অভিনেত্রীর কথায়, ‘ক্যানসার ও করোনা-লকডাউন আমাকে যেন একটা বাক্সের মধ্যে আটকে রেখেছিল। সারাদিন নিজের জগতেই থাকতাম। কখনও কখনও ভীষণ একা লাগত, ভীষণ হতাশা অনুভব করতাম’।

তিনি আরও বলেন, শ্যুটিং ফ্লোরে ফিরতে পেরে নিজে মানসিক ভাবে খুশি এবং শান্তি পেয়েছেন। যদিও চিকিৎসকেরা আপাতত তাঁকে ক্যানসার মুক্ত বলেছেন। কিন্তু পাঁচ বছর না গেলে তিনি সম্পূর্ণ বিপদ-মুক্ত কিনা তা বলা যাবে না। তাঁর কথায়, ‘আমি জীবন ভালবাসি, মানুষ ভালবাসি। সৃষ্টি দ্বারা ঘিরে থাকতে চাই আমি। সিনেমা আমার প্যাশন, আমার ভালবাসা’।

২০১৮ সালে স্টেজ থ্রি লিউকোডারমায় আক্রান্ত হয়েছিলে অভিনেত্রী। দু’বছর আগে পেরিটোনাল ক্যানসারের অস্ত্রোপচার হয় তাঁর। ওধুষ এবং চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলছেন তিনি। অভিনেত্রীর সাহস এবং লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়েছেন নেটিজেনরা। অভিনেত্রীর কথায়, মারণ রোগের কামড় এলেও মনের জোর হারানো চলবে না জীবনে।

করণ জোহরের ‘রকি অউর রানি কি প্রেম কাহানি’ ছবি দিয়ে বলিউডে কামব্যাক করছেন নাফিসা আলি। ছবিতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন রণবীর সিং ও আলিয়া ভাট।

 

বন্ধ করুন