বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ওমিক্রন আতঙ্ক বি-টাউনে! করিনা-অমৃতার পর কোভিড পজিটিভ তাঁদের প্রিয় বান্ধবীরাও
এবার কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ সীমা-মাহিপের

ওমিক্রন আতঙ্ক বি-টাউনে! করিনা-অমৃতার পর কোভিড পজিটিভ তাঁদের প্রিয় বান্ধবীরাও

  • ৮ তারিখে করণ জোহরের পার্টি গিয়েই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন করিনা-অমৃতা, এমনটাই মনে করা হচ্ছে। 

বলিউড জুড়ে ফের থাবা বসাল করোনা। করিনা কাপুর খান ও অমৃতা আরোরার কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ, এ কথা সামনে এসেছে সোমবারই। এবার জানা গেল করোনার কবলে পড়েছেন করিনা-অমৃতা ঘনিষ্ঠা মাহিপ কাপুর এবং সীমা খানও।

পেশায় জুয়েলারি ডিজাইনার মাহিপ, অভিনেতা সঞ্জয় কাপুরের স্ত্রী। অন্যদিকে ফ্যাশন ডিজাইনার সীমা খান সোহেল খান পত্নী। দুজনেরই দেখা মিলেছে নেটফ্লিক্সের ‘দ্য ফাবিউলাস লাইভস অফ বলিউড ওয়াইফস’ (The Fabulous Lives Of Bollywood Wives) সিরিজে। মাহিপের কোভিড আক্রান্ত হওয়ার খবরে শিলমোহর দিয়েছেন স্বামী সঞ্জয় কাপুর। তিনি জানান, ‘হ্যাঁ, মাহিপের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ, হালকা উপসর্গ রয়েছে। এই মুহূর্তে ও হোম-আইসোলেশনে রয়েছে’। 

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, বিএমসির তরফে জানা গিয়েছে সীমা খান সবার প্রথম কোভিড আক্রান্ত হন। এবং সে কথা না জেনেই করণ জোহরের পার্টিতে হাজির হয়েছিলেন সোহেল পত্নী। গত ৮ ডিসেম্বরের ওই পার্টিতে গিয়েই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন করিনা-অমৃতাও। 

সীমারও কোভিডের সামন্য উপসর্গ রয়েছে। গত ১১ ডিসেম্বর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে সীমার, জানিয়েছে বিএমসি। এরপর কোভিড পরীক্ষা করান করিনা, অমৃতারাও। করণ জোহরের ওই পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন মালাইকা আরোরা, আলিয়া ভাট, অর্জুন কাপুররাও। তিনজনেই এর আগে করোনার কবলে পড়েছেন। 

সীমা খান ও মাহিপ কাপুর
সীমা খান ও মাহিপ কাপুর

করোনাবিধি ভেঙে একাধিক পার্টি করেছেন বেবো-অমৃতারা, এমন অভিযোগ আগেই এনেছে বৃহন্মুম্বই পুরসভা। কোভিড আক্রান্ত করিনা সঠিক তথ্য দিচ্ছেন না, এমন অভিযোগও আনা হয়েছে বিএমসির তরফে। ইতিমধ্যেই সইফ-করিনার বাড়ি সিল করা হয়েছে পুরসভার তরফে। মঙ্গলবার বিএমসি করিনার বাড়িতে স্যানিটাইজেশনের কাজ করছে। 

মঙ্গলবার সকালে করিনার বাড়ির বাইরের ছবি
মঙ্গলবার সকালে করিনার বাড়ির বাইরের ছবি

সোমবার রাতে ইনস্টাগ্রামে একটি বিবৃতি জারি করেন করিনা। নবাব ঘরনি নিজের কোভিড পজিভিট হওয়ার খবর জানিয়ে তাঁর সংস্পর্শে আসা সকলকে করোনা টেস্ট করিয়ে নেওয়ার আবেদন জনান। করিনার কথায়, ‘আমার কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ। আমি সেটা জানামাত্রই নিজেকে আইসোলেট করে নিয়েছি, এবং সবরকম নিয়মবিধি মেনে চলছি। আমি অনুরোধ জানাচ্ছি যাঁরা আমার সংস্পর্শে এসেছেন দয়া করে টেস্ট করিয়ে নি। আমার পরিবার এবং স্টাফেদের সকলের করোনার ডবল ডোজ নেওয়া রয়েছে এবং তাঁদের কোভিডের কোনও উপসর্গ নেই’। কেমন আছেন করিনা? বেবো জানান, ‘ভগবানের কৃপায় আমি ভালো আছি, আশা করছি খুব তাড়াতাড়ি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠব’।

করিনার বাবা রণধীর কাপুর জানিয়েছেন, করিনার সঙ্গে বাড়িতেই রয়েছে দুই ছেলে তৈমুর ও জেহ। নাতিদের তাঁর কাছে এনে রাখবার প্রস্তাব দিয়েছিলেন রণধীর, তবে সেটি নাকোচ করে করিনা জানিয়েছেন, তাঁর  বিশেষ সমস্যা নেই দুই ছেলে তাঁর কাছেই থাকবে। 

বন্ধ করুন