বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > টলিউডে করোনা আতঙ্ক! বছরের প্রথমদিনই কোভিড পজিটিভ সৃজিত-জিৎ ও উজ্জ্বয়িনী
করোনা আক্রান্ত দুই সংগীতশিল্পী
করোনা আক্রান্ত দুই সংগীতশিল্পী

টলিউডে করোনা আতঙ্ক! বছরের প্রথমদিনই কোভিড পজিটিভ সৃজিত-জিৎ ও উজ্জ্বয়িনী

  • টলিপাড়া জুড়ে জাঁকিয়ে বসেছে করোনা আতঙ্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানালেন সৃজিত-জিৎ ও উজ্জ্বয়িনী। 

টলিপাড়ায় নতুন করে থাবা বসালো করোনা আতঙ্ক। দেশজুড়ে কোভিডের তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কার মাঝেই বছরের প্রথম দিন টলিউডের তিন তারকার কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ এল। শনিবার সন্ধ্যায় পরপর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান জিৎ ও সৃজিত। একটু রাত গড়াতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ হওয়ার কথা জানান গায়িকা উজ্জ্বয়িনী মুখোপাধ্যায়ও। 

টুইট বার্তা সংগীতশিল্পী জিৎগঙ্গোপাধ্যায়  লিখলেন, ‘কোভিড আক্রান্ত হয়েছি। মৃদু উপসর্গ রয়েছে আমার। শরীর আপাতত ঠিকই আছে। আইসোলেশনে রয়েছি। চিকিৎসকদের সব পরামর্শ মেনে চলছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পদক্ষেপ করছি।’ গত ৭২ ঘন্টায় যাঁদের সঙ্গে তাঁর সাক্ষাৎ হয়েছে তাঁদের সকলকেই কোভিড পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার অনুরোধ সামনে রাখেন জিৎ।

করোনার এই বাড়বাড়ন্তে চিন্তায় সকলেই। ফেসবুকের দেওয়ালে করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়ে সৃজিত লেখেন, ‘আমার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আমি এখন আইসোলেশনে রয়েছি। গত ৭২ ঘন্টা আমার সংস্পর্শে আসা মানুষজনেরা দয়া করে নিজেদের টেস্ট করিয়ে নিন’।

শনিবার রাতে ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুকে নিজের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান উজ্জ্বয়িনী। গায়িকার কথায়, গত কয়েকদিন ধরে ধুম জ্বর আসে তার। এরপর তড়ঘড়ি করোনা টেস্ট করান তিনি, আগে থেকেই নিজেকে আইসোলেশনে রেখেছিলেন। এরপর আশঙ্কা সত্যি করে তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। উজ্জ্বয়িনী জানান, ‘আমি চিকিত্সকদের সবরকম পরামর্শ মেনে চলেছি। দয়া করে আমার সংস্পর্শে আসা মানুষজনেরা করোনা পরীক্ষা করিয়ে নিন’। কঠিন সময়ে পাশে দাঁড়ানোর জন্য ফ্যানেদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন গায়িকা। 

উজ্জ্বয়িনীর পোস্ট
উজ্জ্বয়িনীর পোস্ট

ইতিমধ্যে অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তীর দিদি, অভিনেত্রী চিত্রাঙ্গদা এবং মা শতরূপা সান্যাল করোনা পজিটিভ। পরিস্থিতি এমনই যে আপতত স্থগিত হয়ে গিয়েছে চিত্রাঙ্গদার বিয়ে। করোনা পজিটিভ ঋতাভরীর সহকারী মধুজাও। আমেরিকা থেকে ফিরে করোনা পজিটিভ পরিচালক সুমন ঘোষের রিপোর্টও। সব মিলিয়ে টলিউড জুড়ে জাঁকিয়ে বসেছে করোনা। 

রাজ্যে হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। রাজ্যে শনিবার করোনা সংক্রমণ ৪,৫০০ পার করেছে। উদ্বেগ আরও বাড়িয়ে রাজ্যে ১২ শতাংশ পার করেছে দৈনিক সংক্রমণের হার। তবে এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মৃত্যু। শনিবারের বুলেটিনে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের।

 

 

বন্ধ করুন