বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Aindrila Sharma Health Update: সংজ্ঞা ফেরেনি, বাম চোখ, কাঁধ সামান্য নাড়িয়েছেন ঐন্দ্রিলা, এখন কেমন আছেন

Aindrila Sharma Health Update: সংজ্ঞা ফেরেনি, বাম চোখ, কাঁধ সামান্য নাড়িয়েছেন ঐন্দ্রিলা, এখন কেমন আছেন

কেমন আছেন ঐন্দ্রিলা শর্মা

Aindrila Sharma Health Update: হাসপাতাল সূত্রে খবর, সংজ্ঞা না ফিরলেও চোখ খোলার চেষ্টা করছেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। তাঁর শরীরের বাঁ দিকে সাড় ফিরছে। জানা গিয়েছে, বাম চোখ এবং বাম কাঁধ সামান্য নাড়াতে পারছেন অভিনেত্রী।

লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। এখনও ভেন্টিলেটরে রয়েছেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। শুক্রবার সন্ধ্যে পর্যন্ত শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী জ্ঞান ফেরেনি তাঁর। হাওড়ার বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসকের কড়া পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। 

ব্রেন স্ট্রোক হওয়ার জন্য গত মঙ্গলবার রাত থেকে হাওড়ার আন্দুলের এক হাসপাতালে ভর্তি ঐন্দ্রিলা। ব্রেন স্ট্রোকের ফলে মাথায় রক্তজমাট বেঁধেছিল। মঙ্গলবার রাতে সেটি অস্ত্রোপচার হয়। তখন থেকে কোমায় রয়েছেন নায়িকা। 

শুক্রবার সন্ধ্যায় একটু স্বস্তির খবর মিলেছে হাসপাতাল সূত্রে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, সংজ্ঞা না ফিরলেও চোখ খোলার চেষ্টা করছেন ঐন্দ্রিলা। তাঁর শরীরের বাঁ দিকে সাড় ফিরছে। জানা গিয়েছে, বাম চোখ এবং বাম কাঁধ সামান্য নাড়াতে পারছেন অভিনেত্রী। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, ধীরে ধীরে ভেন্টিলেটর সাপোর্ট কমিয়ে ঐন্দ্রিলা যেন স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারে, সেই চেষ্টাই করছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন: নিজের হাতে করে নিয়ে এসেছিলাম, নিজের হাতে ওকে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যাবো: সব্যসাচী

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে আচমকা অসুস্থ অনুভব করেন ঐন্দ্রিলা। প্রথমে তাঁর ডান হাত অসাড় হয়ে যায়। এরপরই ডান পা অসাড় হয়ে পড়ে অভিনেত্রীর। ৫-৭ মিনিটের মধ্যে ঐন্দ্রিলার গোটা দেহে পক্ষাঘাত দেখা দেয়। বমি করতে শুরু করেন তিনি। এরপরই বাড়ির সাবই মিলে তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালে ভর্তি করার সঙ্গে সঙ্গে অভিনেত্রীকে অপারেশন থিয়েটারে ঢোকানো হয়। চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ শুরু হয়েছে। তাড়াতাড়ি অস্ত্রোপচার করতে হবে।

হাসপাতালে এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন ঐন্দ্রিলা। এই পরিস্থিতিতে হাসপাতালে প্রতিটা মুহূর্তে অভিনেত্রীর সঙ্গে রয়েছেন প্রেমিক সব্যসাচী চৌধুরী। শুক্রবার দুপুরের দিকে সব্য়সাচী ফেসবুক পোস্টে লেখেন, ‘ঐন্দ্রিলার বিষয়ে অযথা নেতিবাচক খবর ছড়ানো বন্ধ করুন। আমি এখনও অবধি কোনও সংবাদমাধ্যমের সাথে যোগাযোগ করিনি, সাক্ষাৎকার দিইনি, দেবও না। শুধু জেনে রাখুন মেয়েটা লড়ে যাচ্ছে, সাথে লড়ছে একটা গোটা হাসপাতাল। নিজের হাতে করে নিয়ে এসেছিলাম, নিজের হাতে ওকে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যাবো। এর অন্যথা কিছু হবে না।’

বন্ধ করুন