বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ক্যানসারের ধকল শরীরে, বাদ গিয়েছে আধখানা ফুসফুস! মায়ের আবদারে নাচলেন ঐন্দ্রিলা
সোশ্যাল মিডিয়ায় নাচের ভিডিও পোস্ট করলেন ঐন্দ্রিলা। 
সোশ্যাল মিডিয়ায় নাচের ভিডিও পোস্ট করলেন ঐন্দ্রিলা। 

ক্যানসারের ধকল শরীরে, বাদ গিয়েছে আধখানা ফুসফুস! মায়ের আবদারে নাচলেন ঐন্দ্রিলা

  • দ্রুত সেরে ওঠার জন্য দু'হাত ভরে শুভেচ্ছা পাঠাল নেটপাড়া। 

অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মার মনের জোর বরবারই এক নতুন শিক্ষা দিয়ে যায় সকলকে। যেভাবে তিনি হাসি মুখে ক্যানসারের সাথে লড়াই করে চলেছেন, তা প্রেরণা যোগায় হাজার হাজার মানুষকে। তাঁর আর সব্যসাচীর প্রেমও নেটপাড়ার কাছে ‘কাপল গোল’। সোমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের পোস্ট করলেন ‘জিয়ন কাঠি’র নায়িকা। সবার সঙ্গে ভাগ করে নিলেন নিজের নাচের ভিডিয়ো। 

মায়ের আবদারেই ঐন্দ্রিলার এই নাচ। আর সেকথা জানিয়েছেন নিজের লেখায়। নাচের ভিডিয়োর সাথে দিয়েছেন একটি দীর্ঘ নোট। যাতে উল্লেখ আছে, ছোটবেলা নাচ করতে এত ভালোবাসতেন যে নাচের জন্য বরা খেতেন। তবে বড় হওয়ার পর আসতে আসতে নাচের অভ্যাস কমে। তারপর তো শুধু ধারাবাহিকের প্রয়োজনে আর মায়ের আবদারে নাচ করতেন। আর আজ, ক্যানসারের অস্ত্রোপচার হওয়ার পাঁচ মাস পর ফের মায়ের আবদার রাখতেই নাচ করেছেন। পায়ে গ্রিপ কম, তাই নাচ কতটা ভালো হয়েছে নিজেও জানেন না! তবে ভালো হয়েছে মন। ঐন্দ্রিলার কথায়,'মনে হলো যেন আবার পুরোনো আমিকে খুঁজে পেলাম'।

তবে নাচ ভালো বা খারাপ হওয়া নিয়ে ঐন্দ্রিলার মনে যতই সংশয় থাকুক, নেটিজেনরা সকলে তাঁকে দু'হাত ভরে ভালোবাসা আর আশীর্বাদ করেছেন। যাতে দ্রুত নিজের স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেন তিনি। কালার্স বাংলার ‘ঝুমুর’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে অভিনয় সফর শুরু করেন। স্টার জলসার ‘জীবন জ্যোতি’ ধারাবাহিকেও মুখ্য চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। সান বাংলার ‘জিয়ন কাঠি’ ধারাবাহিকে অভিনয় করেন তুলির ভূমিকায়।

একবার নয়, দু'বার ক্যানসার থাবা বসিয়েছে তাঁর শরীরে। ২০১৬ সালে এই মারণ রোগকে হারিয়ে পা রাখেন টলিউডে। তারপর ২০২০ সালে জানতে পারেন ফের ক্যাসার বাসা বাঁধেছে শরীরে। আর এবার ফুসফুসে। অস্ত্রোপচার করে আধখানা ফুসফুসই কেটে বাদ দিতে হয়েছে। এখনও কেমো চলছে, ডিসেম্বর মাস অবধি চলবে। হাত পায়ের জোর কম। প্রেসারও ফল করে মাঝেমধ্যে। আর ব্যথা তো আছেই।

তবে, সেই সবের মধ্যেও বেঁচে থাকার রশদ খুঁজে নেন। দুর্গা পুজোতেও সব্যসাচীকে সাথে নিয়ে ঘুরে এসেছিলেন পুজো মণ্ডপে। সে ছবিও ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বন্ধ করুন