পুরোনো চোটের ব্যাথা মাথাচাড়া দিল আলিয়ার! (এএফপি)
পুরোনো চোটের ব্যাথা মাথাচাড়া দিল আলিয়ার! (এএফপি)

গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ির সেটে চোট পেয়েছেন আলিয়া? সত্যিটা শুনুন নায়িকার কাছে

গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ির সেটে চোট পাওয়ার জল্পনায় জল ঢাললেন আলিয়া ভাট। পুরোনো চোটের ব্যাথা মাথাচাড়া দেওয়ায় শ্যুটিং থেকে ছুটি নিয়েছিলেন আলিয়া।

গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ির সেটে চোট পাওয়ার জল্পনায় জল ঢাললেন আলিয়া ভাট। মঙ্গলবার ইন্সটাগ্রাম স্টোরিতে আলিয়া নিজের শারীরিক পরিস্থিতি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা দিলেন। গোটা ঘটনার সূত্রপাত সোমবার আলিয়ার একটি ইন্সটাগ্রাম স্টোরিকে ঘিরে। যেখানে এডওয়ার্ডের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে আলিয়া ক্যাপশন দেন, মায়ের সঙ্গে সেলফি টাইম..কারণ মায়ের পিঠে চোট তাই রাত ২টোর সময় আর কিচ্ছু করবার নেই’!

ছবিতে কম্বল মুড়ি দিয়ে শুয়ে থাকতে দেখা গেছে আলিয়াকে, এবং মুঠোফোনের ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে রয়েছে এডওয়ার্ড। এরপরই বেশ কিছু সংবাদমাধ্যমে লেখালেখি শুরু হয়ে যায় গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ির সেটে চোট পেয়েছেন আলিয়া। তবে সে কথা উড়িয়ে আলিয়া জানালেন এটা পুরোনো চোটের ব্যাথা।

দেখুন আলিয়ার ইন্সটাগ্রাম নোট
দেখুন আলিয়ার ইন্সটাগ্রাম নোট


আলিয়া লেখেন, 'যে সব প্রতিবেদনে বলা হয়েছে আমি নাকি ছবির সেটে চোট পেয়েছি সেগুলো সব ভুয়ো..এটা পুরোনো চোট, ব্যাথা আবার চাগাড় দেওয়ায় বাড়িতে একটু আরাম করছিলাম.. কোনও দুর্ঘটনা হয়নি.. তাই দয়া করে আমাকে নিয়ে লম্বা লম্বা প্রতিবেদন লেখার আগে একবার বিষয়টা পরিষ্কার করে নেবেন যে আমার কী হয়েছে? যাইহোক বাড়িতে রেস্ট নিয়ে আমি এখন পুরো ফিট, আজ থেকেই সেটে ফিরলাম। যারা আমার দ্রুত আরোগ্য কামনা করে মেসেজ পাঠিয়েছিলে তাদের সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ’।

প্রসঙ্গত প্রথমবার পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালির ছবিতে কাজ করছেন আলিয়া। কামাথিপুরা, মুম্বইয়ের রেড লাইট এলাকা। ষাটের দশকে এই কমাথিপুরার ত্রাশ ছিলেন গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ি। যিনি ম্যাডাম অফ কামাথিপুরা নামেই পরিচিত। সেই গঙ্গুবাইয়ের চরিত্রেই এবার আলিয়া ভাট। দিনকয়েক আগেই সামনে এসেছে ‘গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ি’ –র ফার্স্ট লুক পোস্টার।



এস হুসেন জাইদির লেখা বই 'মাফিয়া কুইনস অফ মুম্বই' থেকে জানা যায়, মাত্র ১৬ বছর বয়সে বাবার হিসাবরক্ষকের সঙ্গে গঙ্গা হরজীবনদাস কাথিওয়াড়িয়া গুজরাত থেকে মুম্বইয়ে পালিয়ে এসেছিলেন। কিন্তু প্রেমে ধোঁকা খেতে হয়েছিল এই কিশোরীকে। বিয়ে করেও স্বামী তাঁকে বিক্রি করে দেয়। ডন করিম লালা একাধিক গ্যাং মেম্বার তাঁকে বারবার ধর্ষণ করে। তবুও হাল ছাড়েন গঙ্গুবাই। ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন। শেষমেষ করিম লালার সঙ্গে সাক্ষাত্ করেন গঙ্গুবাই। তাঁর এই অদম্য মনোভাব জয় করে নিয়েছিল করিম লালার মন। তাঁকে নিজের বোনের সম্মান দেয় করিম লালা। এরপরই কামাতিপুরায় একটি গণিকালয় শুরু করেন গঙ্গুবাই।

চলতি বছরের ১১ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে ‘গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ি’।

বন্ধ করুন