বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকে ট্রোলের শিকার হচ্ছেন অমিত সাধ, মুখ খুললেন ব্রিদ তারকা
অমিত সাধ (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
অমিত সাধ (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকে ট্রোলের শিকার হচ্ছেন অমিত সাধ, মুখ খুললেন ব্রিদ তারকা

  • ‘কাই পো ছে’ তে একসঙ্গে অভিনয় করেছেন সুশান্ত-অমিত। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বলিউডের বিরুদ্ধে মুখ না খোলায় ট্রোলের মুখে পড়তে হয় ব্রিদ তারকাকে। 

ব্রিদ দ্য সিজন-টু, অবরোধের মতো ওয়েব সিরিজে অমিত সাধের অভিনয় নজর কেড়েছে নেটিজেনদের। শকুন্তলা দেবীতেও সান্যা মালহোত্রার জোড়িদার হিসাবে প্রশংসা কুড়িয়েছেন কাই পো ছে তারকা। সব মিলিয়ে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে এখন এই তারকার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। অভিনেতার কথায় সোশ্যাল মিডিয়া তাঁর কাছে অনুরাগীদের সঙ্গে ভাবনা আদান-প্রদানের জায়গা। যার সঙ্গে জুড়ে রয়েছে অনেকখানি শান্তি, আর ভালোলাগা। তবে শেষ কয়েকটা মাস সোশ্যাল মিডিয়ায় সময় কাটানোটা বেশ যন্ত্রণাদায়ক মনে হয়েছে তাঁর। কারণটা অবশ্যই অজানা নয়, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই নেটিজেনদের রোষের মুখে বলিউড। তাঁদের নিশানায় মূলত স্টারকিডরা, তবে সুশান্তের জন্য সুবিচার না চাওয়ার জন্যও রোষের মুখে পড়তে হয়েছে বলিউড তারকাদের। 

এই পরিস্থিতির সঙ্গে কীভাবে খাপ খাইয়ে নিচ্ছেন অমিত সাধ ? তিনি বললেন, ‘আমার নিজস্ব একটা সিস্টেম রয়েছে। তবে আমিও ট্রোলের মুখে পড়েছি যখনই কিছু করেছি যা কারুর পছন্দ হয়নি।  যারা ট্রোল করে তাদের আমি একটা কথাই বলতে চাই, তারা বাড়ি বসে শুধু টুইট করছে। সত্যি বলতে, তোমরা ট্রোল করছ না , মানুষকে হয়রান করছো। তবে জানি এই সব মানুষের সঙ্গে যুদ্ধে জেতা যাবে না’।

অমিত সাধের জীবনের খুব সহজ ফর্মুলা হল চুপ থাকা এবং তখনই কিছু নিয়ে বক্তব্য রাথা যখন তাঁর মন চাইবে, কেউ কিছু বলতে হবে এমন দাবি করলে নয়। 'আমি যদি চুপ থাকতে চাই তো থাকব, যদি কথা বলতে চাই তাহলে বলব কেউ থামাতে পারবে না। হতে পারে আমি সবার সঙ্গে কোনও বিষয় নিয়ে আওয়াজ না তুললাম, সেটা আমার সিদ্ধান্ত। তবে সেটার জন্য আমাকে দোষী সাব্যস্ত করা কিংবা আমার জীবনকে অতিষ্ট করে তোলাটা একদমই অর্থহীন। 

পাবলিক ফিগার হওয়ার এটাই একটা বড় সমস্যা তা মেনে নিলেন অমিত সাধ। তবে সব জিনিসেরই ভালো-মন্দ দুটো দিকই আছে,বিশ্বাস করেন অভিনেতা। এটা একটা কঠিন এবং চ্যালেঞ্জিং সময় সেটাও ভালোভাবেই জানা আছে তাঁর। তিনি আশাবাদী এই সময়টাও পার করে ফেলবে সকলে। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগীরা প্রচুর ভালোবাসা উজাড় করে দেয় সেটাও মেনে নিয়েছেন অমিত সাধ। তিনি বললেন, ‘আমাকে সুশান্তের জন্য ট্রোল করা হয়েছে। লোকে বলেছে, তুমি কেন চুপ করে আছো? তোমাকে আমি আনফলো করে দিচ্ছি। তখন আমারও মনে হয়েছে ভালো হল ফ্যানের সংখ্যা একজন কমে যাওয়া মানে, দায়িত্বশীলতার বোঝাটা একটু হালকা হল। তাতে অন্য কারুর প্রতি আমি ভালোভাবে নজর দিতে পারব।…আমার মনে হয় হতে পারে আমার তোমাকে পছন্দ নয়,কিন্তু তা বলে কাউকে গালমন্দ করাটা অনুচিত। সেইটুকু সম্মান সবার প্রতি রাখতে হবে। না হলে কোন পথে যাচ্ছে আমাদের দেশ ? তবে পালিয়ে যাওয়ার রাস্তা নেই। কারণ আমার কিছু সামাজিক দায়িত্ব রয়েছে। আমাকে অন্যের জন্য উদাহরণ হয়ে উঠতে হবে এবং পথ দেখাতে হবে’।

বন্ধ করুন