রজনীকান্তের পর এবার অমিতাভ বচ্চন! করোনা নিয়ে ভুল তথ্য টুইট বিগ-বির (এএনআই)
রজনীকান্তের পর এবার অমিতাভ বচ্চন! করোনা নিয়ে ভুল তথ্য টুইট বিগ-বির (এএনআই)

করোনাভাইরাস নিয়ে ভুল তথ্য দিলেন অমিতাভ বচ্চন! হতবাক নেটিজেনরা

  • হাততালি দিলেই মরবে করোনা! হোয়াটস্যাপে ঘোরাফেরা করা এই ভুল তথ্য এবার টুইট করলেন বিগ বি। পিআইবি, রবিবারই টুুইট করে জানায় এই দাবি একেবারেই অসত্য।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আর্জিতে রবিবার দেশজুড়ে পালিত হয়েছে জনতা কার্ফু। পাশাপাশি নমোর ডাকেই বিকাল পাঁচটায় পাঁচ মিনিটের জন্য হাততালি বা কাঁসর,ঘন্টা সহযোগে অভিবাদন জানানো হয়েছে জরুরি পরিষেবায় নিযুক্তদের উদ্দেশে। এই থ্যাঙ্কস গিভিংয়ের কর্মযজ্ঞে শামিল হয়েছিল গোটা বচ্চন পরিবার। সোশ্যাল মিডিয়াতেও সেই ঝলক তুলে ধরেছিলেন অমিতাভ। তবে সোমবার করোনাভাইরাস নিয়ে টুইটারে ভুল তথ্য শেয়ার করে বসলেন শাহেনশা! যা চমকে দিয়েছে নেটিজেনদের।


মোদি জাতির উদ্দেশে ভাষণে বিকাল পাঁচটায় ধন্যবাদ জ্ঞাপনের আবেদন জানানোর পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরাফেরা করছিল বেশকিছু ভুয়ো তথ্য। যার মধ্যে অন্যতম হাততালি দিলেই নাকি মরবে করোনাভাইরাস। কিন্তু প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো (পিআইবি) রবিবার সাফ জানিয়ে দেয় এই দাবির কোনও সারবত্তা নেই।


তারপরেও সোমবার সকালে এই ভুল তথ্যই উঠে এল অমিতাভের টুইটারের দেওয়ালে। তিনি লেখেন, ‘এই জ্ঞানটা দেওয়া হচ্ছে ২২ মার্চ অমাবস্যা, মাসের সবচেয়ে অন্ধকারময় দিন। ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া এবং অশুভ শক্তি এইদিন সবচেয়ে বেশি প্রভাব বিস্তার করে। হাততালি এবং শঙ্খ বাজালে তার থেকে যে কম্পন তৈরি হয় তাতে ভাইরাসের ক্ষমতা হ্রাস অথবা নষ্ট হয়ে যায়। এদিন চন্দ্র নতুন নক্ষত্র রেবতিতে প্রবেশ করেছে। সঞ্চারিত এই কম্পন রক্ত সঞ্চালনকে স্বাভাবিক রাখতেও সাহায্য করে’।

ঠিক কী জানিয়েছে PIB?

পিআইবির তথ্য যাচাইকারী টুইটার হ্যান্ডেল @PIBFactCheck থেকে বলা হয়, 'না! সবাই একসঙ্গে হাততালি দিলে করোনাভাইরাস ধ্বংস হবে না। যাঁরা করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় নিঃস্বার্থভাবে জরুরি পরিষেবার কাজ করছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতাস্বরূপ বিকেল পাঁচটার সময় জনতা কার্ফুর হাততালির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।'




অমিতাভ বচ্চনের মতো ব্যক্তিত্ব এই ধরণের টুইট করায় হতভম্ব নেটিজেনরা। এর আগে করোনাভাইরাস নিয়ে ভুল তথ্য শেয়ার করার জন্য থালাইভা রজনীকান্তের ভিডিয়ো বার্তা ডিলিট করে দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ।

বন্ধ করুন