বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Amitabh Bachchan: দিওয়ারের সেই আইকনিক দৃশ্যটির কথা মনে আছে? তার আগে ১৫ ঘণ্টা ঘরবন্দি ছিলেন অমিতাভ

Amitabh Bachchan: দিওয়ারের সেই আইকনিক দৃশ্যটির কথা মনে আছে? তার আগে ১৫ ঘণ্টা ঘরবন্দি ছিলেন অমিতাভ

অমিতাভ বচ্চন দিওয়ারের আইকনিক মন্দিরের দৃশ্যে।

Amitabh Bachchan: ‘দিওয়ার’-এর আইকনিক দৃশ্যের শ্যুটিং করতে গিয়ে ভয় পেয়েছিলেন অমিতাভ। মেকআপ করে নিজেকে ১৫ ঘণ্টা রুমে আটকে রেখেছিলেন। রোম খাড়া করা অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করলেন ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’র মঞ্চে।

১৯৭৫ সালে ‘দিওয়ার’ ছবির হাত ধরে বডিউডে প্রথম সাফল্য আসে অমিতাভ বচ্চনের। কিন্তু এই ছবির এক দৃশ্যের শ্যুটিং করতে গিয়ে নাকি ভয় পেয়েছিলেন অমিতাভ। সম্প্রতি সেই নিয়ে মুখ খুলেছিলেন বিগ বি। 

অমিতাভ জানিয়েছিলেন, মন্দিরের দৃশ্যে শ্যুটিং করার সময় ভয় পেয়েছিলেন তিনি। এমনকি সেটে যাওয়ার আগে কিছুক্ষণ নিজেকে একটি ঘরে বন্ধ করে রেখেছিলেন। রিয়ালিটি শো ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’তে ‘দিওয়ার’ ছবির সেই শ্যুটিংয়ের দিনের কথা মনে করেন বিগ বি। আরও পড়ুন: ‘প্রবীণ বলে কিন্তু মানুষ আপনাকে..’, জয়ার ‘আছাড় খেয়ে পড়ার’ মন্তব্যে সপাটে উরফি

যশ চোপড়া পরিচালনা করেছেন ‘দিওয়ার’। দুই ভাইয়ের দরিদ্রতার সঙ্গে লড়াই করার গল্প ফুটে উঠেছিল এই ছবিতে। তাঁদের মধ্যে একজন অসামাজিক কাজের সঙ্গে জড়িয়ে পড়লেও অন্যজন বড় হয়ে পুলিশ অফিসার হয়ে ওঠে। ছবিতে আরও অভিনয় করেন শশী কাপুর, নীতু সিং, পারবিন ববি এবং নিরূপা রায়। শশী ও অমিতাভ দুই ভাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। আরও পড়ুন: দুবাইতে রাতপরী শানায়া, লুকস দেখে ঘায়েল ভক্তরা, প্রশংসা বেস্টি সুহানার

অমিতাভ বচ্চনের লেখা ব্লগ প্রচণ্ড ফলো করেন প্রতিযোগী বিক্রম খুরানা। একথা ফাঁস করতেই বিগ বি নিজের অতীতের অভিজ্ঞতা নিয়ে বলে ওঠেন, ‘অনেক ক্ষেত্রে কোনও দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে দেখে মনে হয়ে একটু কঠিন। চটপট করে ওঠা সম্ভব নয়। সেইটার উপর কাজ করতে একটু সময়ের প্রয়োজন।’ আরও পড়ুন: ডিপনেক, বডি হাগিং পোশাকে চকচক করছেন জাহ্নবী, নায়িকাকে দেখে ঘুম উড়েছে নেটিজেনদের

অভিনেতা আরও বলেন, ‘ব্যক্তিগত জীবনের কথা বলতে গেলে (আপনাকে বলে রাখি) দিওয়ার ছবিতে একটি দৃশ্য ছিল যেখানে আমার চরিত্র বিজয় প্রথমবার মন্দিরে প্রবেশ করবে, নিজের মায়ের জন্য প্রার্থনা করতে। আমার জন্য খুব কঠিন দৃশ্য ছিল। সকালে উঠে মেকআপ সেরে নিয়েছি, সম্পূর্ণ রেডি ছিলাম। (পরিচালক) যশ চোপড়াজি সেটে এসে বললেন, ‘চলো ভাই। বিশ্বাস কিন্তু করুন, আমি আমার ঘর থেকে বেরোতে পারছিলাম না।’ আরও পড়ুন: ‘সাজিদের সঙ্গে বেশ ভালোই সময় কেটেছে’, বিতর্কের মাঝে এ কী বললেন সৃজিতা

‘সকাল ৭টায় শুরু হয়েছিল। কিন্তু আমি আমার রুমে রাত ১০টা পর্যন্ত বসে ছিলাম। ভেবেই যাচ্ছিলাম কীভাবে ওই দৃশ্যে অভিনয় করব, আর বেরোতে পারছিলাম না। এমন একটি চরিত্র ছিল যিনি ঈশ্বরে বিশ্বাস করতেন না এবং তাঁকে তাঁর মায়ের জীবনের জন্য প্রার্থনা করতে হয়েছিল। ভাবছিলাম ক্যামেরার সামনে কী বলব, কীভাবে অভিনয় করব।’

'যে লেখক স্ক্রিপ্ট লিখেছিলেন, তাঁকে সেলাম জানাতে চাই। প্রথম লাইনটি ছিল 'আজ খুশ তো বহুত হঙ্গে তুম'। সত্যিই অসাধারণ সংলাপ।' অমিতাভের মুখে এই সংলাপ ফের শুনে করতালিতে গমগম করে উঠেছিল ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’র মঞ্চ।

 

বন্ধ করুন