বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > গোয়ার বিচে নগ্ন হয়ে দৌড়,পুনম পাণ্ডের পর এবার এফআইআর মিলিন্দ সোমনের নামে
পোষাকহীন মিলিন্দ! (ছবি-টুইটার)
পোষাকহীন মিলিন্দ! (ছবি-টুইটার)

গোয়ার বিচে নগ্ন হয়ে দৌড়,পুনম পাণ্ডের পর এবার এফআইআর মিলিন্দ সোমনের নামে

  • পুনমের পর কি এবার গ্রেফতার করা হবে মিলিন্দ সোমনকে?

গোয়ার সংরক্ষিত চাপোলি বাঁধে ‘অশ্লীল’ ভিডিয়ো শ্যুট করে বৃহস্পতিবারই গ্রেফতার হতে হয়েছিল পুনম পাণ্ডেকে। এবার একই দোষের জন্য মামলা রুজু হল অভিনেতা,মডেল, ফিটনেস প্রমোটার মিলিন্দ সোমনের বিরুদ্ধে। আইপিসির ২৯৪ (অশ্লীল কাজ অথবা গান), এবং আইটি আইনের ৬৭ ধারায় ( ইলেকট্রনিক মাধ্যমে অশ্লীল জিনিস পোস্ট করা) মামলা দায়ের করা হয়েছে মিলিন্দের বিরুদ্ধে।

বুধবারই গোয়ার বিচে নগ্ন হয়ে দৌড়াতে দেখা গিয়েছে মিলিন্দ সোমনকে। জন্মদিন উপলক্ষ্যে সেই ছবি টুইটারে নিজেই পোস্ট করেছিলেন মিলিন্দ। সেই ছবি উত্তাপের পারদ বেশ কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছিল। ৫৫-তে পা দিয়েও যে তরুণ তুর্কি মিলিন্দ, সে কথা মনে করাচ্ছিলেন এই প্রাক্তন সুপারমডেলের ভক্তরার। তবে আলিগড় খ্যাত চিত্রনাট্যকার অপূর্ব আসরানি সহ টুইটারের একটা অংশ গোটা বিষয় নিয়ে একটা প্রশ্ন তুলে দেয়- মহিলা টপলেস হলে এফআইআর, আর পুরুষ নগ্ন হয়ে দৌড়ালে তাঁর প্রশংসা কেন? কীসের এই দ্বিচারিতা? কারণ বুধবারই গোয়ায় ক্যানাকোনা থানায় এফআইআর দায়ের হয় পুনম পাণ্ডের বিরুদ্ধে। দিন কয়েক আগেই রাজ্যের এক সংরক্ষিত বাঁধে টপলেস ভিডিয়ো শ্যুট করায় পুনমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়।

কোলভা পুলিশ থানায় মিলিন্দ সোমনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। গোয়া সুরক্ষা মঞ্চ নামের এক এনজিওর তরফে এই অভিযোগ আনা হয়েছে জানান, গোয়ার (দক্ষিণ) এসপি পঙ্কজ কুমার সিং।

নিজের জন্মদিনের এই ছবিতে মিলিন্দ ক্যাপশনে লিখেছিলেন- 'নিজেকেই জানাই শুভ জন্মদিন। ৫৫ এবং ছুটে চলেছি'। এই ছবিতে ফ্রেমবন্দি করেছেন মিলিন্দের ২৯ বছরের ছোট স্ত্রী অঙ্কিতা কোনওয়ার। জন্মদিন উপলক্ষ্যে গোয়াতেই ছুটি কাটাচ্ছেন এই দম্পতি। 

অন্যদিকে ‘অশ্লীল’ ভিডিয়ো শুটিংয়ের অভিযোগে গ্রেফতার পুনম পাণ্ডে এবং তাঁর স্বামী স্যাম বম্বে বৃহস্পতিবার রাতে ২০,০০০ টাকার পৃথক ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন পান। মডেল-অভিনেত্রী এবং তাঁর স্বামীর জামিন মঞ্জুর করেছেন ক্যানাকোনার ফার্স্ট ক্লাস জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট। তবে তাঁদের একাধিক শর্ত মেনে চলতে হবে। জামিনের শর্ত হিসেবে আদালতের অনুমতি ছাড়া তাঁরা গোয়া ছাড়তে পারবেন না। ছ'দিন থানায় হাজিরা দিতে পারে।

বন্ধ করুন