বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Anand L Rai Confessed his mistake: 'আমরা সব থেকে বড় ভুল ছিল…’! জনসমক্ষে নিজের কোন ভুল স্বীকার করলেন আনন্দ

Anand L Rai Confessed his mistake: 'আমরা সব থেকে বড় ভুল ছিল…’! জনসমক্ষে নিজের কোন ভুল স্বীকার করলেন আনন্দ

নিজের কোন ভুল স্বীকার করলেন আনন্দ

Anand L Rai on Raksha Bandhan: রক্ষা বন্ধন ছবি কেন বক্স অফিসে চলল না, কেন দর্শকদের থেকে সাড়া পেল না ছবি জানালেন পরিচালক আনন্দ এল রাই। কী বললেন তিনি?

'রক্ষা বন্ধন' বক্স অফিসে মোটেই ভালো চলেনি। দর্শকদের থেকে তেমন সাড়া পায়নি এই ছবি। এই ছবির ব্যর্থতার বিষয় বলতে গিয়ে বলেন তিনি এই ছবির জন্য যে স্ট্র্যাটেজি নিয়েছিলেন সেখানেই গলদ ছিল। কিন্তু কী স্ট্র্যাটেজি নিয়েছিলেন তিনি? দেখুন।

আনন্দ এল রাই জানান তিনি দর্শকদের মধ্যে ভেদাভেদ করে ফেলেছিলেন, অন্যদিকে অতি চতুরতার সঙ্গে ছবিটা করতে গিয়েও যে তিনি ভুল করে ফেলেছেন সেটা স্বীকার করে নেন পরিচালক।

চলতি বছরের অগস্ট মাসে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় রক্ষা বন্ধন। এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল অক্ষয় কুমার, ভূমি পেডনেকর, সাদিয়া খাতিব, সহেজমিন কৌর, দীপিকা খান্না, এবং স্মৃতি শ্রীকান্ত। এই ছবিতে অক্ষয় কুমার ওরফে লালা কেদারনাথ এবং তাঁর চার বোনের গল্প দেখা গিয়েছে। গল্পটি মূলত ফোকাস করেছে তিনি তাঁর বোনদের বিয়ে দিতে গিয়ে কী কী সমস্যার মধ্যে পড়েছিলেন, সেগুলো কী করে সমাধান করেছিলেন সেটার উপর। এখানে পণপ্রথা, মানুষের চেহারা নিয়ে ব্যঙ্গ করার মতো সমাজের নানান দিককে তুলে ধরা হয়েছে, যা আজও অনেক ভারতীয় মহিলাকেই সহ্য করতে হয়। এই ছবিটি বড়পর্দায় মুক্তির পাওয়ার পর প্রথম সপ্তাহে ৩৭.৫০ কোটি টাকার ব্যবসা করে।

পিটিআইকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে পরিচালক জানান, 'এই ছবি যখন তৈরি করছিলাম আমি ভেবেছিলাম দর্শকদের এমন কিছু দিই যার সঙ্গে তাঁরা পরিচিত, আর তাছাড়া আমি দর্শকদের বি, সি ক্যাটাগরিতে ভাগ করেছিলাম তাঁদের শহর অনুযায়ী। এটা করা আমরা সব থেকে বড় ভুল ছিল। দর্শকদের মধ্যে ভেদাভেদ করাটা আমার কাজ নয়। আমার ছবির গল্পে আরও অনেক বেশি নজর দেওয়া উচিত ছিল। এই ছবি আমাকে অনেক বড় শিক্ষা দিয়েছে।' একই সঙ্গে তিনি জানান, 'আসলে আমরা এখন সবাই কম বেশি একটা জিনিস নিয়ে লড়াই চালাচ্ছি যে দর্শকরা কোন ধরনের গল্প দেখতে পছন্দ করেছেন বা চাইছেন। কিন্তু সেটায় আমরা ব্যর্থ হয়েছি। হয়তো আমি অতিরিক্ত চতুরতার সঙ্গে ছবিটি করতে গিয়েছিলাম। ভুল বুঝেছি।'

'এটা আমার দ্রুততম ছবি ছিল, কিন্তু তাও আমি কাজ করতে বেশ উপভোগ করেছি। কিন্তু আমি খালি ভাবছি এই ছবি নিয়ে যে এত কঠোর পরিশ্রম করলাম সেটা কেন কাজ করল না। রক্ষা বন্ধন ছবিটির প্রতিটা ধাপ সুন্দর করে বিন্যাস করা ছিল। আগেও এরম করেছি, তখন সফলতা পেয়েছিলাম। ভেবেছিলাম এখনও হয়তো পাব। তবে কাজের ক্ষেত্রে আমি অসৎ ছিলাম না। এটা স্রেফ একটা কৌশল ছিল যা কাজ করেনি। আমি বুঝেছি ২০০-৩০০ কোটির কথা না ভেবে আমাকে আমার কাজটুকু খালি করে যেতে হবে' এমনটাই সাক্ষাৎকারে জানান পরিচালক।

তিনি বলেন মানুষ আজও কোন ছবি দেখবে আর দেখবে না সেটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে ছবির গল্পের উপর। উদাহরণস্বরূপ তিনি দৃশ্যম ২ ছবির কথা বলেন। আনন্দ এল রাই বলেন, 'তারকা নয়, গল্পই হচ্ছে শেষ কথা, অন্তত আমার কাছে।'

বন্ধ করুন