বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কন্ডোম পরখ করতে নারাজ সারা-অনন্যা, দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন রাকুল প্রীত!
অনন্যা-রাকুল-সারা
অনন্যা-রাকুল-সারা

কন্ডোম পরখ করতে নারাজ সারা-অনন্যা, দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন রাকুল প্রীত!

  • এবার ‘কন্ডোম টেস্টার’এর ভূমিকায় দেখা যাবে রাকুল প্রীত সিংকে!

রনি স্ক্রুওয়ালার বলিউড ছবিতে এবার নতুন এক ভূমিকায় দেখা মিলবে অভিনেত্রী রাকুল প্রীত সিংয়ের! ফের একবার নতুন ধরণের এক গল্প নিয়ে আসছেন পরিচালক। কন্ডোম টেস্টারের গল্প নিয়ে ছবি তৈরি হবে সেই ছবি। মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন অভিনেত্রী রাকুল প্রীত সিং।

যদিও রাকুলের আগে নাকি এই ভূমিকার জন্য রনির মাথায় এসেছিল সারার নাম। ইন্ডাস্ট্রিতে বর্তমানে সাধারণত কোনও প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে হালফিলে অভিনেতাদের তিনটি ছবির চুক্তি হয়। সারা ইতিমধ্যেই আরএসভিপি মুভিজের ‘অশ্বত্থামা: দ্য ইমমর্টাল’ ছবিতে কাজ করছেন। সংস্থার তরফ থেকে তাই সারাকে এই ছবির চরিত্রের জন্য অফার করা হয়েছিল। যদিও ছবিতে এই ধরণের চরিত্রের জন্য মানা করেন সারা। এই জাতীয় কোনও চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি তৈরি নন বলে জানিয়েছেন। 

রিপোর্ট আরো বলছে, এই কন্ডোম টেস্টারের চরিত্রে সংস্থার তরফে সারার পর পছন্দ করা হয়েছিল অনন্যা পাণ্ডেকে। তবে এই ধরণের সাহসী চরিত্রে অভিনয়ের জন্য এখনো দক্ষতা হয়নি তাঁর, জানিয়েছেন নায়িকা। শেষ পর্যন্ত ছবির চরিত্রের জন্য অফার করা হয় রাকুলকে। নায়িকার নাকি গল্প পছন্দ হয়েছে।

কী আসলে এই কন্ডোম টেস্টার? অনেকেই কাছে এই শব্দটি নতুন। অনেকেই বিষয়টি সম্পর্কে অজানা। কিন্তু এটিও এক প্রকাশ পেশার মধ্যে পড়ে। যদিও আমাদের দেশে এই ‘নিরোধ’ সম্পর্কিত নানা বিষয় নিয়ে এখনো লুকোচুরি ব্যাপারটা রয়েছে। তবে কন্ডোম টেস্টারের ব্যাপারটা এখনো অনেকের অজানা। 

কন্ডোম টেস্টারের কী কাজ?

মূলত, দেশের নামী কন্ডোম তৈরির কারখানাগুলো প্রাপ্তবয়স্কদের সঙ্গে চুক্তি করেন। কারখানা থেকে কন্ডোম তৈরি হয়ে বেরোলেই সেটা প্রাপ্তবয়স্কদের দেওয়া হয়। যৌন সঙ্গম করে তাঁরা কন্ডোমের কার্যক্ষমতার রিপোর্ট দেয়। সেই কন্ডোম টেস্টারদের রিপোর্ট বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। তাঁদের ওপর ভিত্তি করেই কন্ডোম কোম্পানিগুলো বাজারে নতুন কন্ডোম নিয়ে আসে। পেশাদার কন্ডোম টেস্টারদের ভূমিকাও যথেষ্ট জরুরি এখানে। ছবিতে তেমনই এক কন্ডোম টেস্টারের ভূমিকায় দেখা মিলবে রাকুল প্রীত সিংয়ের।

ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, ‘এটা কৌতুকমূলক ছবি। যাঁরা কন্ডোম ব্যবহারকে অপছন্দ করেন তাঁদের ওপর ভিত্তি করে তৈরি। এমনকি কন্ডোম কেনার সময়ও ভারতীয়রা গিয়ে বলতে লজ্জা পান। ছবিটি সাহসী, তবে হাস্যকরও, অনেকটা ড্রিম গার্লের মতো’। সূত্রের খবর, রাকুলেরও ছবির স্ক্রিপ্ট পছন্দ হয়েছে। তিনি ছবি করতে রাজিও আছেন। যদিও ছবির নাম এখনো কিছু ঠিক হয়নি। জানা গেছে, করোনার পরিস্থিতি একটু ঠিক হলে ছবির জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়ে, শ্যুটিং শুরু করবেন নায়িকা।

 

বন্ধ করুন