অঙ্গদ বেদী ও নেহা ধুপিয়া (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
অঙ্গদ বেদী ও নেহা ধুপিয়া (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

লাঞ্চ না সেরে ফ্যানেদের সঙ্গে আড্ডা! নেহার কাছে বকা খেলেন অঙ্গদ

  • অঙ্গদের ভিডিয়ো বার্তায় আচমকাই এন্ট্রি নেহার.. বললেন কড়া ভাষায় পত্নী জানালেন 'রাজমা ঠান্ডা হয়ে যাচ্ছে'..

বিয়ের পর পুরুষের কাছে সুখী গৃহস্থের একটাই মন্ত্র-সবসময় বউয়ের কথা শুনে চলতে হবে। এ কথা হারে হারে টের পাচ্ছেন অভিনেতা অঙ্গদ বেদী। ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো বার্তা ভাগ করে নিচ্ছিলেন অঙ্গদ, কিন্তু আচমকাই সেখানে উদিত হন স্ত্রী নেহা ধুপিয়া। দাবি একটাই- ‘জলদি চল রাজমা ঠান্ডা হয়ে যাচ্ছে’!

ভিডিয়োর শুরুতেই দেখা গেল বিছানায় শুয়ে একদম রিল্যাক্স মুডে অনুরাগীদের খোঁজখবর নিচ্ছেন অঙ্গদ। এরমাঝেই নেহার কন্ঠস্বর শোনা যায়-‘লাঞ্চ তৈরি হয়ে গেছে’। এরপর অঙ্গদ বলেন ‘স্ত্রীর কথা সবসময় শোনা উচিত’। অঙ্গদের এই লাইন শেষ হওয়ার আগে বিরক্তির সুরে নেহা ফের বলেন, ‘জলদি এসো রাজমা ঠান্ডা হয়ে যাচ্ছে, দয়া করে জলদি করো’।


এই মজাদার ভিডিয়োর ক্যাপশনে অঙ্গদ লিখেছেন, ‘জীবনকে ভালোবাসতে হলে, স্ত্রীকে ভালোবাসতে হবে’। এই তারকা দম্পতির এই মিষ্টি ভিডিয়ো ইতিমধ্যেই মন জিতে নিয়েছে নেটিজেনদের।

২০১৮ সালের মে মাসে চুপিসাড়ে বিয়ের পর্ব সারেন অঙ্গদ-নেহা। ছ’মাস পরে অঙ্গদ-নেহার ঘর আলো করে আসে তাঁদের কন্যা সন্তান মেহের। লকডাউন পিরিয়ডে 'কনটেন্ট ক্রিয়েটার' অঙ্গদের প্রত্যেক ভিডিয়োতেই প্রায় নিজের উপস্থিতি জানান দিচ্ছেন নেহা ধুপিয়া।


বিয়ের আগে নেহার প্রেগন্যান্ট হওয়ার খবর অঙ্গদই প্রথম নেহার বাবা-মা’কে জানিয়েছিলেন। নেহার শো’তে সেই অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে অঙ্গদ জানিয়েছিলেন ‘ আমার হাত-পা ঠান্ডা হয়েগিয়েছিল। আমি জানতাম তুমি বলবে না। আমাকেই বলতে হবে। তোমার মা তো পাগল হয়ে গিয়েছিল। নাক দিয়ে রক্ত ঝড়ছিল ওনার, যা যা হল তারপর। প্রচন্ড নাটকীয়। প্রচুর বকা খেয়েছিলাম!’


বন্ধ করুন