বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Anik Dutta: 'চুপ! একদম চুপ...' SSC দুর্নীতি নিয়ে বিদ্বজ্জনদের বৈঠকে মেজাজ হারালেন অনীক
সাংবাদিক সম্মেলনে মেজাজ হারান অনীক।

Anik Dutta: 'চুপ! একদম চুপ...' SSC দুর্নীতি নিয়ে বিদ্বজ্জনদের বৈঠকে মেজাজ হারালেন অনীক

  • অনীককে থামানোর চেষ্টা করেন বিকাশবাবু। তাঁর হয়ে সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেন। কিন্তু নিজের জায়গায় অনড় থাকেন অনীক।

বিতর্কের মুখে পরিচালক অনীক দত্ত। জনৈক সাংবাদিকের সঙ্গে 'দুর্ব্যবহার'-এর অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে।

শনিবার এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে একটি বৈঠকের আয়োজন করেন বিদ্বজনেরা। অনীক ছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন চন্দন সেন, পবিত্র সরকার, বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য, রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ আরও অনেকেই। প্রশ্নোত্তর পর্ব, আলোচনা— সবই ঠিকঠাক চলছিল। এ সবের মাঝেই আচমকা মেজাজ হারান 'অপরাজিত'র পরিচালক।

প্রথমে বামপন্থী আমলের 'অনিলায়ন’ বিতর্ক ও হোল টাইমারদের চাকরি প্রসঙ্গে প্রশ্ন রাখা হয় সিপিএমের বর্ষীয়ান নেতা এবং আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যের কাছে। প্রশ্নকর্তা তৃণমূলের মুখপত্র 'জাগো বাংলা'র জনৈক সাংবাদিক। তাঁর প্রশ্নের উত্তরও দেন বিকাশ। অনীকদের উদ্দেশে প্রশ্ন করা হয়, এ বিষয়ে কেন তাঁরা কখনও সিপিএমের মঞ্চে কোনও কথা বলেননি। একই সঙ্গে পরিচালকের জানতে চাওয়া হয়, কেন বিজেপি-র বিরুদ্ধে তাঁকে সে ভাবে সরব হতে দেখা যায় না।

এর পরেই দানা বাঁধে সমস্যা। শুরু হয় গন্ডগোল। কার্যত তর্কাতর্কি শুরু হয়ে যায় সেখানে। প্রশ্ন শুনেই নাকি মেজাজ হারান অনীক। সেই সাংবাদিকের দিকে আঙুল তুলে চিৎকার করতে শুরু করেন ক্রুদ্ধ পরিচালক। পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘আমার ফেসবুক দেখুন। কী বলতে চান? আমি বিজেপি-র দালালি করি?’ এর পরেই হুঙ্কার, 'চুপ! একদম চুপ করে থাকুন'। এমনকী 'জাগো বাংলা'র বিরুদ্ধেও ক্ষোভ উগরে দেন তিনি।

অনীককে থামানোর চেষ্টা করেন বিকাশবাবু। তাঁর হয়ে সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেন। কিন্তু নিজের জায়গায় অনড় থাকেন অনীক। সেই সাংবাদিকের দাবি, তাঁর কাছে কোনও রকম ক্ষমা চাননি পরিচালক।

ঘটনাটি নিয়ে ইতিমধ্যেই চর্চা শুরু হয়েছে নানা মহলে। অনীকের আচরণের সমালোচনা করছেন অনেকেই।

বন্ধ করুন