বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কেন বিয়ে করেননি সঞ্জীব কুমার? ফাঁস করলেন অঞ্জু মহেন্দ্রু, কারণ শুনলে চমকে যাবেন!
সঞ্জীব কুমার। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)
সঞ্জীব কুমার। (ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস)

কেন বিয়ে করেননি সঞ্জীব কুমার? ফাঁস করলেন অঞ্জু মহেন্দ্রু, কারণ শুনলে চমকে যাবেন!

  • অর্থ, চূড়ান্ত যশ- খ্যাতি থাকা সত্বেও ব্যক্তিগত জীবনে বড্ড একা ছিলেন সঞ্জীব কুমার।এক পুরোনো সাক্ষাৎকারে সঞ্জীব কুমার প্রসঙ্গে নানান অজানা কথা ফাঁস করেছিলেন অঞ্জু মহেন্দ্রু।

মাত্র ৪৭ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছিলেন কিংবদন্তি বলি-অভিনেতা সঞ্জীব কুমার। দুর্ধর্ষ সব পারফরমেন্স এর পাশাপাশি বহু ক্লাসিক ছবির অন্যতম অংশ ছিলেন সঞ্জীব।'শোলে' ছবিতে তাঁর অভিনীত 'ঠাকুর' চরিত্রটি তো জায়গা করে নিয়েছে বলিউডের ইতিহাসে। তবে অর্থ, চূড়ান্ত যশ- খ্যাতি থাকা সত্বেও ব্যক্তিগত জীবনে বড্ড একা ছিলেন সঞ্জীব। তাঁকে ঘিরে একাধিক নায়িকার সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন শোনা গেলেও কোনওদিন কোনও সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি তিনি। রয়ে গেছিলেন অবিবাহিতও। তবে তাঁর মানে এই নয় যে নারীসঙ্গ থেকে বহু মাইল দূরে ছিলেন তিনি। বর্ষীয়ান অভিনেত্রী অঞ্জু মহেন্দ্রুর মতে, প্রায় বেশিরভাগ সময়টাই নারী পরিবেষ্টিত হয়ে থাকতেন 'হরি ভাই'।

এক পুরোনো সাক্ষাৎকারে সঞ্জীব কুমার প্রসঙ্গে নানান অজানা কথা ফাঁস করেছিলেন অঞ্জু। বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর কথায়, 'বহু মহিলা নানারকম মুখরোচক খাবারের পদ নিজের হাতে বানিয়ে সঞ্জীবকে খাওয়াত কিংবা টিফিন বাক্স করে পাঠিয়ে দিত। স্বাভাবিকভাবেই তাঁরা উঠে আসত বলি-তারকার গুড বুকে। কারণ খেতে বড্ড ভালোবাসতেন উনি। আবার কেউ কেউ সত্যিকারেরই প্রেমে পড়েছিলেন সঞ্জীবের'।

নিজের কেরিয়ারের শুরুতে অঞ্জু মহেন্দ্রু। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)
নিজের কেরিয়ারের শুরুতে অঞ্জু মহেন্দ্রু। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)

সঞ্জীবকুমারের আসল নাম ছিল হরিহর জেঠলাল জরিওয়ালা। ইন্ডাস্ট্রির সবাই ভালোবাসে তাঁকে ডাকতেন 'হরি ভাই' বলে। একটা সময় হেমা মালিনী এবং সুলক্ষণা পন্ডিতের সঙ্গে সঞ্জীব কুমারের নাম জড়িয়েছিল। পরবর্তী সময় ধর্মেন্দ্রকে হেমা বিয়ে করলেও সুলক্ষণা আজীবন অবিবাহিত রয়ে গেছিলেন। সে প্রসঙ্গ উঠতেই অঞ্জু সোজাসুজি বলে উঠেছিলেন, 'প্রতিবারই যখনই কোনও নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জোড়াতেন হরি ভাই তাঁর ইয়ার দোস্তের দল তাঁকে বোঝাতে যে ওই মেয়ে তাঁর অর্থ ও সম্পত্তির দেখেই এসেছে। একফোঁটাও ভালোবাসে না সঞ্জীব কুমারকে। এবং অবাক ব্যাপার সেই চিন্তাই ধীরে ধীরে গেঁথে গেছিল তাঁর মনে। তিনিও ঠিক ওরকমই ভাবতে শুরু করে দিয়েছিলেন। আমি এই বিষয়ে জানামাত্রই একাধিকবার ওঁকে বুঝিয়েছিলাম। বকা পর্যন্ত দিয়েছিলাম। তবু কাজের কাজ হয়নি'।

বর্ষীয়ান অভিনেত্রী আরও জানান যে মানুষ হিসেবে দারুণ চিত্তাকর্ষক ছিলেন 'হরি ভাই'। এর ওপর তাঁর হাসিটিও ছিল দারুণ সুন্দর। মেয়েরা যে আকৃষ্ট হবেন তাঁর প্রতি এতে আর নতুন কী। কিন্তু 'ঠাকুর'-এর মনে গেঁথে গেছিল তাঁর বিশাল সম্পত্তির কারণেই নারীরা সম্পর্কের ভান করে আসে তাঁর কাছে। আমৃত্যু এই ধর্ণা রয়ে গেছিল তাঁর। 'তাই তো শেষজীবনে তাঁর না হল বিয়ে না তো হল কোনও সংসার', আক্ষেপের সুরে জানিয়েছিলেন অঞ্জু।

বন্ধ করুন