বাড়ি > বায়োস্কোপ > হাসি ফুটল অঙ্কিতার মুখে,হবু বরের যমজ ভাগ্না-ভাগ্নিকে কোলে নিয়ে ছবি পোস্ট নায়িকার
আবির ও আবিরাকে কোলে নিয়ে অঙ্কিতা লোখান্ডে (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
আবির ও আবিরাকে কোলে নিয়ে অঙ্কিতা লোখান্ডে (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

হাসি ফুটল অঙ্কিতার মুখে,হবু বরের যমজ ভাগ্না-ভাগ্নিকে কোলে নিয়ে ছবি পোস্ট নায়িকার

  • অঙ্কিতা লোখান্ডের পরিবারে এল নতুন সদস্য। প্রেমিক ভিকি জৈনের দিদির দুই যমজ সন্তানকে কোলে নিয়ে ছবি পোস্ট করলেন সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রাক্তন প্রেমিকা। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুটা বড় ধাক্কা অঙ্কিতা লোখান্ডের কাছে। প্রেম সম্পর্ক ভাঙলেও পরস্পরের প্রতি সম্মানটা বরবার বজায় রেখেছিলেন এই জুটি। সুশান্তের পরিবারের সঙ্গেও গত চার বছর ধরে নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছেন অঙ্কিতা লোখান্ডের। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর তাই ছুটে গিয়েছিলেন প্রাক্তন প্রেমিকের পরিবারের পাশে দাঁড়াতে। সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছেও মন খুলে কথা বলেছেন অঙ্কিতা। অবশেষে সোমবার হাসিমুখে অঙ্কিতা লোখান্ডের দেখা পেল অনুরাগীরা। সৌজন্যে অঙ্কিতার পরিবারের দুই খুদে সদস্য। ইনস্টাগ্রামে এই দুই যমজ ছবি শেয়ার করে নিয়েছেন অঙ্কিতা। তিনি লেখেন, আমাদের পরিবারে খুশির জোয়ার- একটা নতুন জীবন শুরু, আমাদের জীবন চক্রটা আরও পরিপূর্ণ হল এই দুই যমজ পুচুকের আগমনে। স্বাগত জানান-আবির এবং আবিরাকে। 

ছবিতে দেখা গেল এই দুই খুদে সদস্য অঙ্কিতার কোলে চুপ করে ঘুমিয়ে রয়েছে। অন্যদিকে অঙ্কিতা ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে হাসছেন। অঙ্কিতা এই দুই খুদের পরিচয় না জানালেও, টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে খবর নায়িকার হবু বর ভিকি জৈনের দিদির বর্ষা জৈনের যমজ সন্তান আবির ও আবিরা। সুতরাং অঙ্কিতা এই দুই খুদের হবু মামিমা। 

নিজের প্রেম সম্পর্ক নিয়ে বরাবরই কোনও লুকোছাপা করেন না অঙ্কিতা। ভিকির সঙ্গে প্রেমে সম্পর্কে জড়ানোর কথাও প্রকাশ্যে বছর খানেক আগেই স্বীকার করে নিয়েছিলেন অঙ্কিতা। তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলেও হামেশাই একসঙ্গে দেখা মেলে এই জুটির। 

জুন মাসের শুরুতেই শোনা গিয়েছিল ভিকির সঙ্গে বাগদানও সেরে ফেলেছেন অঙ্কিতা। যদিও এব্যাপারে প্রকাশ্যে কিছুই জানাননি নায়িকা। এবং সুশান্তের আচমকা মৃত্যু সব হিসেব উল্টে-পাল্টে দেয়। 

অঙ্কিতার জীবনে অন্য মানুষ থাকা সত্ত্বেও সুশান্তের ব্যাপারে কথা বলা থেকে পিছিয়ে আসেননি তাঁর প্রাক্তন প্রেমিকা। রিপাবলিক টিভিকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে অঙ্কিতা জানিয়েছেন, ‘সুশান্ত এমন মানুষই ন যে আত্মহত্যা করতে পারেন। আমরা অনেক খারাপ,মারাত্মক খারাপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি। ও ভীষণ হাসিখুশি এবং পজিটিভ একটা মানুষ।’ আক্ষেপের সুরে তিনি বলেন, ‘ওর নামের সঙ্গে ডিপ্রেশনের মতো শব্দ জুড়ে দেওয়া হচ্ছে! এটা আমি মানতে পারব না। হতে পারে ওর মন ভেঙেছিল, হতে পারে কোনও কোনও বিষয় নিয়ে আপসেট ছিল,চিন্তিত ছিল -আমরা সকলেই থাকি। কিন্তু ডিপ্রেশন খুব জটিল একটা শব্দ। আর ওকে বাই-পোলার বলা হচ্ছে? এইগুলো মেনে নেওয়া যায় না’।

২০০৯ সালে একতা কাপুরের টেলিভিশন শো, পবিত্র রিসতায় মুখ্য ভূমিকায় দেখা মিলেছিল সুশান্ত-অঙ্কিতার। মানব-অর্চনা হয়ে কোটি কোটি ভারতীয় মনে রাজ করেছেন তাঁরা। এই সিরিয়ালের সেটেই শুরু বন্ধুত্ব, সম্পর্ক প্রেমে পর্যন্ত গড়াতে বেশি সময় নেয়নি। শুধু প্রেম সম্পর্কই নয়,রীতিমতো লিভ ইন রিলেশনশিপে ছিলেন সুশান্ত-অঙ্কিতা। ২০১৬ সালের শুরুর দিকে আচমকাই ভেঙে যায় এই সম্পর্ক। 

বন্ধ করুন