বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অঙ্কিতার বর ভিকির মতে সুশান্তের মৃত্যু তাঁদের ‘সম্পর্কের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ’ ছিল

অঙ্কিতার বর ভিকির মতে সুশান্তের মৃত্যু তাঁদের ‘সম্পর্কের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ’ ছিল

সুশান্তকে নিয়ে কথা বলতে শোনা গেল ভিকি আর অঙ্কিতাকে।

‘পবিত্র রিস্তা’য় কাজের সময় থেকেই আলাপ হয় সুশান্ত আর অঙ্কিতার।

স্টার প্লাসের নতুন রিয়েলিটি শো ‘স্মার্ট জোড়ি’তে অংশ নিয়েছেন অঙ্কিতা লোখান্ডে আর ভিকি জৈন। ২০২১-র ডিসেম্বরেই বিয়ে করেন তাঁরা প্রায় চার বছরের সম্পর্কের পর। তবে অঙ্কিতা ভিকির স্ত্রী হিসেবে এখনও যতটা না পরিচিত, তাঁর থেকে তিনি বেশি চর্চায় থাকেন প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রাক্তন বান্ধবী হিসেবে। এবার ‘স্মার্ট জোড়ি’তে এই নিয়ে কথা বলতে শোনা গেল ভিকিকে। সঙ্গে জানালেন, সুশান্তের মৃত্যু তাঁদের সম্পর্কের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় এবং শক্ত পরীক্ষা ছিল। 

‘পবিত্র রিস্তা’য় কাজের সময় থেকেই আলাপ হয় সুশান্ত আর অঙ্কিতার। ২০১০ সাল থেকে ২০১৬ সাল অবধি সম্পর্কে ছিলেন তাঁরা। এরপর ২০১৯ সাল থেকে অঙ্কিতা আর ভিকির সম্পর্কের খবর সামনে আসতে থাকে। ২০২০ সালের জুন মাসে নিজের ফ্ল্যাটেই ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় সুশান্তের দেহ। সেই সময় প্রাক্ত প্রেমিকের পরিবারের সাথে দেখা করেছিলেন অঙ্কিতা। তাঁকে নিয়ে পোস্ট করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এমনকী, সুশান্তের রহস্য মৃত্যু নিয়ে মুখ খুলেছিলেন সাংবাদিকদের সামনেও। 

ভিকি শো-তে জানান, ‘ওই সময়টা আমাদের সম্পর্কের জন্য খুব কঠিন একটা পরীক্ষা ছিল। অনেকেই সেই সময় আমাকে নিয়ে ট্রোল করছিল। আমাদের সম্পর্ককে ফেক বলছিল। অনেকেই ব্যাপারটা খারাপভাবে দেখছিলেন। কিন্তু ও নিজের সমস্ত কর্তব্য পূরণ করেছে যা ওর করার প্রয়োজন ছিল। যখনই প্রয়োজন পড়েছে ওর তরফে যা বলার আছে তা ও বলেছে। আর এটা জন্যই সবসময় আমি ওর পাশে থেকেছি।’

অঙ্কিতার কথায়, ‘আমি তো আমার অতীত ভুলেও গিয়েছিলাম। কিন্তু সেই মুহূর্তে আমার ওখানে উপস্থিত হওয়া দরকার ছিল। আমি তো ভিকিকে বলতেও পারছিলাম না। কিন্তু ও নিজে থেকেই ব্যাপারটা বুঝে নিয়েছিল।’

প্রসঙ্গত, সুশান্তের মৃত্যুর পর ছুটে যান অঙ্কিতা। যেখানে অভিনেতার পরিবারের পাশে দাঁড়াতে দেখা যায়নি অভিনেতার তৎকালীন প্রেমিক রিয়াকে। সুশান্তকে নিয়ে ওঠা ননা ভুল তথ্য নিয়েও সে সময় গলা উঁচু করতে দেখা যায় অঙ্কিতাকে। এমনকী, অভিনেতার মৃত্যুর কয়েকমাসের মাথায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিকির সাথে ছবি দেওয়া নিয়েও নেটপাড়ার রষের মুখে পড়েন তিনি।

বন্ধ করুন