বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যুর নিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়ার পর রহস্যজনক পোস্ট অঙ্কিতার
অঙ্কিতা লোখান্ডে (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
অঙ্কিতা লোখান্ডে (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

সুশান্তের মৃত্যুর নিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়ার পর রহস্যজনক পোস্ট অঙ্কিতার

  • 'আমি আমার হৃদয়ের কথা শুনি, আমার আত্মার গান গাই, আমাকে কেউ কিনতে পারবে না, আর আমি বিক্রিও হব না', বললেন অঙ্কিতা লোখান্ডে। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর একদিকে যেমন রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে সুশান্তের সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে,তেমনই সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতা লোখান্ডেও থেকেছেন সংবাদ শিরোনামে। সুশান্তের মৃত্যুর পর য়েভাবে প্রাক্তন প্রেমিকের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন অঙ্কিতা-তাতে সকলেই তাঁর প্রশংসা করেছেন। ভালোবাসার সম্পর্ক ভেঙে গেলেও 'পবিত্র রিসতা' অটুটই থাকে তা বুঝিয়ে দিয়েছেন অঙ্কিতা। সুশান্তের বাবা কেকে সিংয়ের তরফে রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের খবর প্রকাশ্যে আসবার পর একাধিক সংবাদমাধ্যমে মুখ খুলেছেন অঙ্কিতা। দীর্ঘ সাক্ষাত্কারও দিয়েছেন,এবার ইনস্টাগ্রামে একটি অনুপ্রেরণাদায়ক বার্তা পোস্ট করলেন সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকা। 

তিনি লেখেন, তাঁরা চেয়েছিল আমি এই একটা জীবনে হাজারো জিনিস হই, প্রত্যেকটা শুনেই আমি বলেছি না এটা আমার জন্য নয়। আমি ধর্মযাজিকার পথে হাঁটছি, যে পথ দেবী দেখিয়েছেন,সেই পথ থেকে আমাকে কেউ টলাতে পারবে না। আমি আমার হৃদয়ের কথা শুনি, আমার আত্মার গান গাই, আমাকে কেউ কিনতে পারবে না, আর আমি বিক্রিও হব না'। 

View this post on Instagram

#listeningtomyhigherself

A post shared by Ankita Lokhande (@lokhandeankita) on

সুশান্তের মৃত্যুর পর অঙ্কিতা দীর্ঘ একমাস সোশ্যাল মিডিয়া থেকে গায়েব ছিলেন। গত ১৪ই জুলাই সুশান্তের জন্য প্রার্থনা করে,তাঁকে ভগবানের সন্তান বলে উল্লেখ করেন অঙ্কিতা। দিল বেচারা মুক্তির দিনও এই ছবি নিয়ে নিজের ইমোশ্যানের কথা জাহির করেছিলেন অভিনেত্রী। রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের পর অঙ্কিতার ‘সত্যের জয় হয়’ এই সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট নিয়েও হইচই পড়ে গিয়েছিল। 

অঙ্কিতা একাধিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে পরিষ্কার জানান, ২০১৬ সালে ব্রেক আপের পর গত চার বছরে সুশান্তের সঙ্গে তাঁর কোনওরকম যোগাযোগ ছিল না। তবে সুশান্তের পরিবারের সঙ্গে নিয়মিত যোগযোগ ছিল তাঁর। সুশান্তের বাবাকে ‘পাপা’ বলেই এখনও সম্বোধন করেন তাঁর প্রাক্তন প্রেমিকা। তিনি পরিষ্কার বলেন, রিয়া চক্রবর্তীকে তিনি চেনেন না এবং তবে সুশান্তের পরিবারের এই লড়াইয়ে তিনি পাশে আছেন। রিয়ার সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর পর সুশান্তের সঙ্গে তাঁর পরিবারের যে দূরত্ব তৈরি হয়েছিল সেই তত্ত্ব অবশ্য মেনে নিয়েছেন অঙ্কিতা। তিনি রিপাবলিক টিভিকে জানান, ‘সুশান্ত আমার সঙ্গে সাত বছর থাকাকালীন রানিদি (নীতু সিং)-র মুখের ওপর কোনওদিন না বলেনি। কিন্তু গত বছর নভেম্বরে ওঁর ডেঙ্গু হওয়ার পর রানিদি ওকে সঙ্গে নিয়ে যেতে চেয়েছিল-প্রথমে রাজি হয়েও ও পরে মত পাল্টে নেয়। রানিদি কাঁদতে কাঁদতে আমায় ফোন করে বলেছিল-অঙ্কিতা আমার ভাইকে আমি হারিয়ে ফেলছি’। 

এই দীর্ঘ চার বছর একবারই মাত্র সুশান্তের সঙ্গে কথোপকথন হয়েছে তাঁর, তাও সোশ্যাল মিডিয়ায়। মনিকর্ণিকা মুক্তির আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় অঙ্কিতাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সুশান্ত, উত্তর দিয়েছিলেন অঙ্কিতাও। অঙ্কিতা বলেন, সুশান্ত শেষের দিকে খুব ঘন ঘন নম্বর বদলাতো, ওঁর নম্বরও আমার কাছে ছিল না। 

অঙ্কিতা জোর গলায় প্রতিটি সাক্ষাত্কারে জানিয়েছেন,‘সুশান্ত এমন মানুষই নন যে আত্মহত্যা করতে পারেন। আমরা অনেক খারাপ,মারাত্মক খারাপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি। ও ভীষণ হাসিখুশি এবং পজিটিভ একটা মানুষ।’

বিহার পুলিশ টিম অঙ্কিতার বয়ানও রেকর্ড করে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে। একসঙ্গে সাত বছর কাটিয়েছেন সুশান্ত-অঙ্কিতা। পরিবারের পর,অঙ্কিতার থেকে স্বাভাবিকভাবে সুশান্তকে কেউ ভালোভাবে চেনেন না-তেমনটাই মত অনুরাগীদের।  ২০০৯ সালে একতা কাপুরের টেলিভিশন শো, পবিত্র রিসতায় মুখ্য ভূমিকায় দেখা মিলেছিল সুশান্ত-অঙ্কিতার। মানব-অর্চনা হয়ে কোটি কোটি ভারতীয় মনে রাজ করেছেন তাঁরা। এই সিরিয়ালের সেটেই শুরু বন্ধুত্ব, সম্পর্ক প্রেমে পর্যন্ত গড়াতে বেশি সময় নেয়নি। শুধু প্রেম সম্পর্কই নয়,রীতিমতো লিভ ইন রিলেশনশিপে ছিলেন সুশান্ত-অঙ্কিতা। 

বন্ধ করুন