বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মেয়ে গাড়ি চালালে চড়েন না ‘ঊর্মি’ অন্বেষার বাবা, গোপন কথা ফাঁস দিদি নম্বর ১-এ
মেয়ের গাড়ি চালানো নিয়ে কী বলল অন্বেষার বাবা?

মেয়ে গাড়ি চালালে চড়েন না ‘ঊর্মি’ অন্বেষার বাবা, গোপন কথা ফাঁস দিদি নম্বর ১-এ

  • এদিকে ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’তে বেশ অনেকবারই ট্যাক্সি চালাতে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রীকে।

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-র দিন থেকেই শুরু হয়েছে ‘দিদি নম্বর ১’-র নতুন সিজন। আর প্রথম দিনে সেখানে বিশেষ অতিথি হিসেবে হাজির ছিলেন অন্বেষা হাজরা, দিতিপ্রিয়া রায়, উষসী রায় ও সন্দীপ্তা সেন। রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে আড্ডায় মেয়ে অন্বেষা হাজরার গাড়ি চালানো নিয়ে মজার মন্তব্য করতে দেখা গেল অভিনেত্রীরব বাবাকে। 

অন্বেষার বাবা অভিজিৎ হাজরাকে রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন করেন, ‘মেয়ে তো সিরিয়ালে খুব গাড়ি চালায়। বাস্তবে কোনওদিন ও গাড়ি চালালে আপনি পাশে বসেছেন?’ আর তাতে অভিজিৎবাবুর উত্তর, ‘আমার আসলে অত টাকার ইন্সোরেন্স করা নেই।’ শুনে অন্বেষার পাশাপাশি রচনাও হাসিতে ফেটে পড়েন।

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’-তে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন অন্বেষা। নাম ঊর্মি। গল্পের নায়ক সাত‍্যকির চরিত্রে রয়েছেন ঋত্বিক মুখার্জি। বড়লোক বাড়ির মেয়ের মধ্যবিত্ত বাড়িতে বিয়ে করে আসা, একান্নবর্তী পরবারকে মাতিয়ে রাখে প্রাণোচ্ছ্বল মেয়েটি। এখনও পর্যন্ত গল্পে পরকীয়া, শাশুড়ি-বউমা কুটকাচালি ঢোকাননি পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দার। আর তাই ধারাবাহিকের গল্পও ঘর করে নেয় দর্শক মনে প্রতি সপ্তাহে। TRP তালিকায় বেশ ভালোই নম্বর থাকে ঊর্মি-সাত্যকি জুটির।

প্রসঙ্গত, সোমবার ১৪ তারিখ ভ্যালেন্টাইনস ডে উপলক্ষে সম্প্রচার হয় সিজনের প্রথম এপিসোড। জি বাংলার জনপ্রিয় শো-র মধ্যে পয়লা নম্বরে থাকে ‘দিদি নম্বর ১’। বাংলার নানা প্রান্ত থেকে দিদিরা আসেন এখানে। খেলা-গল্প-মজায় মাতিয়ে রাখেন দর্শকদের রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। রচনা সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, দিদি নম্বর ১ তাঁর কাছে নতুন প্রেরণা নিয়ে আসে। কারণ তিনি চারপাশে বিভিন্ন বয়সী দিদিদের জীবন সংগ্রামের গল্প শুনে উদ্বুদ্ধ হন। জীবনের মানে খুজে নিতে পারেন নতুন ভাবে। তাঁর মনে হয়, ‘সবাই পারলে আমি কেন পারব না।’

বন্ধ করুন