বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Anurag Kashyap: ‘পরিস্থিতি এখন হাতের বাইরে…’, ‘পাঠান’ বিতর্কে মোদীর মন্তব্যের পালটা দিলেন অনুরাগ

Anurag Kashyap: ‘পরিস্থিতি এখন হাতের বাইরে…’, ‘পাঠান’ বিতর্কে মোদীর মন্তব্যের পালটা দিলেন অনুরাগ

‘পাঠান’ বয়কট বিতর্কে মুখ খুললেন পরিচালক-প্রযোজক অনুরাগ কাশ্যপ

Anurag Kashyap: ‘বয়কট বলিউড’ ট্রেন্ড বন্ধ করতে অবশেষে হাল ধরলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সিনেমা নিয়ে ‘অপ্রয়োজনীয় মন্তব্য’ করতে নিষেধ করলেন দলীয় কর্মীদের। এ বার সেই বিষয়ে মুখ খুললেন পরিচালক-প্রযোজক অনুরাগ কাশ্যপ।

চার বছর পর রুপোলি পর্দায় কামব্যাক করছেন শাহরুখ খান। ‘পাঠান’-এর প্রথম গান মুক্তির পর থেকেই বিতর্কের শুরু। কেউ গানটিকে ‘অশ্লীল’ বলেছেন, কেউ আবার গানে দীপিকা পাড়ুকোন গেরুয়া রঙের বিকিনি পরায় ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগ তুলেছেন। ছবি মুক্তির আগেই বিতর্কের জেরবার নির্মাতারা।

পরিস্থিতি সামাল দিতে দলীয় কর্মীদের ছবিটি নিয়ে অহেতুক মন্তব্য থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর এই পদক্ষেপে কিছুটা স্বস্তিতে ছবি নির্মাতা থেকে শুরু করে যুক্ত অন্য কলাকুশলীরাও। বিষয়টি নিয়ে এবার মুখ খুললেন পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ। খ্যাতনামা এই পরিচালকের কথায়, বিষয়টি নিয়ে অনেক দেরিতে মুখ খুলেছেন প্রধানমন্ত্রী, ‘জনতা এখন নিয়ন্ত্রণের বাইরে’।

আরও পড়ুন: পাপারাৎজ্জির তাড়ার চোটে হোঁচট খেলেন, খচে বোম হয়ে আঙুল তুলে বকাঝকা দিলেন রিয়া

ছবি নিয়ে বিতর্ক এবং বয়কট প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে অনুরাগের মন্তব্য, ‘৪ বছর আগে এই পদক্ষেপ নেওয়া উচিত ছিল, এখন পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে গিয়েছে। এখন মনে হয় না কোনও কাজে দেবে। কেউ কারও কথা শুনবে বলে মনে হয় না। যে জনতা শুধু ঘৃণা করতেই ব্যস্ত, কুসংস্কার যাদের শক্তি, নীরবতা তাদের অন্যতম অস্ত্র। জনতা এখন নিয়ন্ত্রণের বাইরে'।

গত কয়েক বছরে, হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি অনেক বিতর্কের মুখে পড়েছে। স্বজনপ্রীতি, সেলিব্রিটি সংস্কৃতি, মাদক-কাণ্ড এবং সিনেমা ও অনুষ্ঠানের বিষয়বস্তু রয়েছে তারমধ্যে। খ্যাতনামা পরিচালকের কথায়, ‘এ এক অদ্ভুত সময়। ক্রিকেট দল থেকে রাজনৈতিক দল— সব কিছুকেই বয়কট করা হচ্ছে।’ নিজেরই দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে নরেন্দ্র মোদীর এই কড়া বার্তাকে স্বাগত জানিয়েছেন একাধিক ছবি নির্মাতা, ‘অলমোস্ট পেয়ার উইথ ডিজে মোহাব্বত’ প্রযোজক শারিক প্যাটেলও রয়েছেন তারমধ্যে। 

উল্লেখ্য, বয়কট ট্রেন্ডের মুখে পড়ে ক্ষতি হচ্ছে বিনোদন ব্যবসার। করোনা, লকডাউনের পর বক্স অফিসে লাভের মুখ দেখছেন না বেশির ভাগ প্রযোজক। তার উপর এই বয়কট ট্রেন্ড যেন গোদের উপর বিষ ফোড়া। তবে প্রধানমন্ত্রীর বার্তার পরে কিছুটা আশাবাদী বিনোদন জগতের সঙ্গে যুক্ত সকলে। 

বন্ধ করুন