বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Anurager Chhowa: সূর্যর ‘বউয়ে ভরা সংসার’ নিয়েই ২০০ পর্ব পার ‘অনুরাগের ছোঁয়া’র, আক্ষেপ একটাই!

Anurager Chhowa: সূর্যর ‘বউয়ে ভরা সংসার’ নিয়েই ২০০ পর্ব পার ‘অনুরাগের ছোঁয়া’র, আক্ষেপ একটাই!

সেলিব্রেশনের মুডে গোটা টিম (ছবি- ফেসবুক)

Anurager Chhowa: টিআরপি তালিকায় দুর্দান্ত রেজাল্ট, এর মাঝেই ২০০ পর্ব অতিক্রম করে ফেলল টিম ‘অনুরাগের ছোঁয়া’। সেলিব্রেশনের মুডে সূর্য-দীপারা। 

এই মুহূর্তে বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘অনুরাগের ছোঁয়া’। অল্প কয়েক মাসেই স্টার জলসার এই মেগা পাকা জায়গা করে নিয়েছে দর্শক মনে। শুরু থেকেই স্লট লিডার ছিল স্বস্তিকা-দিব্য়জ্যোতির এই মেগা। ধীরে ধীরে টিআরপি তালিকায় দ্বিতীয়স্থানে জায়গা দখল করেছে এসভিএফ-এর প্রযোজনায় তৈরি এই শো।

শুক্রবার ছিল ‘অনুরাগের ছোঁয়া’র ২০০তম পর্ব। স্বভাবতই সেলিব্রেশনের মুডে পাওয়া গেল গোটা টিমকে। একবারও স্লট না হারিয়ে দীর্ঘ ছয় মাস পার করে ফেলা সহজ নয়, তাই নেটপাড়ায় প্রশংসা কুড়োচ্ছে ‘অনুরাগের ছোঁয়া’ টিম। কেক কেটে উল্লাসে মাতলো দিব্য-স্বস্তিকা-প্রারব্ধি-রূপাঞ্জনারা। সেই ঝলক ইতিমধ্যেই ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এই সাফল্যের মাঝেও ভক্তদের একটাই আক্ষেপ। সপ্তাহে পাঁচদিন সম্প্রচারিত হয় এই ধারাবাহিক, যেখানে বেশিরভাগ মেগাই সপ্তাহে সাত দিনই টেলিকাস্ট করা হয়। টিআরপি তালিকায় এক নম্বর স্থান দখলের ক্ষেত্রে এটাই অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে দিব্যজ্যোতি-স্বস্তিকাদের। ‘সূর্য’ দিব্যজ্যোতির কথায়, ‘অন্যান্য সিরিয়াল সম্প্রচার হয় সপ্তাহের ৬ দিন কিংবা ৭ দিনই। আমাদের সিরিয়াল সেই তুলনায় ব্যতিক্রম। ৫ দিন সম্প্রচার হয়। না হলে আমরা অনেক আগেই ২০০ এপিসোড পেরিয়ে যেতাম। সত্যি বলতে তা সত্ত্বেও কিন্ত টিআরপিতেও ভাল জায়গায় আছি আমরা’।

এদিন নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়ালে দীপা, মিশকা এবং উর্মির সঙ্গে ছবি পোস্ট করে দিব্যজ্যোতি লেখেন- ‘অনুরাগের ছোঁয়া… ২০০ নট আউট, সকলকে ধন্যবাদ এতটা ভালোবাসার জন্য, হোক না…’। এই ছবির কমেন্ট বক্সে মজার মন্তব্যে ভরিয়ে দিয়েছেন দিব্যজ্যোতির ভক্তরা। কেউ লিখেছেন, ‘সূর্য তার সব ধরণের বউকে নিয়ে’। কেউ লিখেছেন, ‘সূর্যর বউয়ে ভরা সংসার’। একথা কারুর অজানা নয়, দিব্যজ্যোতি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়শই মজা করে স্টেটাস দেন তাঁর বউ (দীপা), হতে পারত বউ (উর্মি) আর হতে চাওয়া বউ (মিশকা)-কে নিয়ে।

রূপ নয়, গুণই আসল এমন ধারণায় বিশ্বাসী সূর্য মায়ের বিরুদ্ধে গিয়ে দীপাকে বিয়ে করেছিল। কালো মেয়েকে বউমা হিসাবে মেনে নিতে আপত্তি ছিল লাবণ্য সেনগুপ্ত (রূপাঞ্জনা মিত্র)-র। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলেছে সবকিছু। এখন দীপার শাশুড়ি তাঁর মা হয়ে উঠেছে। অন্যদিকে মিশকার উস্কানিকে দীপার চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন তোলায় আজ ভাঙনের মুখে সূর্য-দীপার সম্পর্ক। ইতিমধ্যেই নিজের ভুল খানিক বুঝতে পেরেছে সূর্য। দীপাকে নিজের জীবনে ফেরত চায় সে। কিন্তু ফের ভাগ্যের পরিহাস। সন্তানের জন্ম দেওয়ার আগে মিশকার চক্রান্তে মৃত্যুমুখে দীপা! অ্যাক্সিডেন্টের পর চিকিৎসকের কথায় মা আর সন্তানের মধ্যে একজনকেই বাঁচানো সম্ভব। এই কঠিন সময়েও সূর্য পাশে নেই দীপার। তবে কি সন্তানের জন্ম দিতে গিয়ে মৃত্যু হবে দীপার? সূর্য কি নিজের হারানো ভালোবাসাকে আর ফিরে পারে না? সব উত্তর মিলবে ধারাবাহিকের আসন্ন ট্র্যাকে। 

বন্ধ করুন