বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'এ আর রহমান অনুপ্রেরণা', ‘৯৯ সঙ্গস’ মুক্তির পর অকপট অভিনেতা এহান ভাট
এহান ভাট ও এ আর রহমান
এহান ভাট ও এ আর রহমান

'এ আর রহমান অনুপ্রেরণা', ‘৯৯ সঙ্গস’ মুক্তির পর অকপট অভিনেতা এহান ভাট

ছবির জন্য ৭৫০ জন অডিশন দিয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে সিলেক্ট হন এহান।

এ আর রহমানের প্রযোজনায় ৯৯ সঙ্গস দিয়ে ডেবিউ করেছেন এহান ভাট। চরিত্রে অভিনয়ের জন্য ৭৫০ জন অডিশন দাতার মধ্যে এহানকে নির্বাচন করেন ছবি নির্মাতারা। কীভাবে অডিশনের পর এহানকে সিলেক্ট করা হয়? হিন্দুস্তান টাইমসকে জানালেন অভিনেতা। অডিশন দেওয়ার কয়েক মাস পরে নাকি তাঁক কাছে ফোন আসে, তিনি শর্টলিস্ট হয়েছেন। 

তবে সবথেকে বড় অবাক করার মতো বিষয় এহানের কাছে, সেখানে পৌঁছানোর পর তিনি জানতে পারেন তিনি শর্টলিস্ট নয় সিলেক্ট হয়েছেন এবং তিনিই ছবিটা করছেন। প্রোডাকশন টিম থেকে তাঁর বাড়িতে মা-বাবাকে ফোন করেও জানাতে বলে। এহান নাকি সেই সময় আবেগপ্লুত হয়ে গিয়েছিলেন। পাশাপাশি মনে মনে তিনি এটাও ভাবছিলেন, ‘মজা করছে না তো আমার সঙ্গে’।

তিনি আরো বলেন, ছবির চরিত্রে অভিনয় করার আগে তিনি পিয়ানো শিখেছেন। যেতেতু তিনি এ আর রহমানের ছবিতে কাজ করছেন, তাই তাঁকে মাথায় রাখতে হয়েছিল শুধুমাত্র সময়মতো আসা এবং শ্যুটিং করে চলে গেলেই হবে না। এ আর রহমান মানেই তাঁকে মিউজিকের ওপর বাড়তি জোর দিতে হবে। মিউজিকের বিষয়গুলো সুন্দর করে তুলে ধরতে হত। বাদ্যযন্ত্রের সঙ্গে সরগড় হতে হবে।

এহান জানিয়েছেন, তিনি এ আর-এর পরামর্শমতো তাঁর মিউজিকের স্কুলে ভরতি হয়েছিলেন। কারণ, অভিনেতা হিসেবে তাঁর ছবিতেও ভুল মিউজিক কর্ড ব্যবহার করতে পারবেন না তিনি। তাই ভালো করতে, চেন্নাইয়ে তাঁর মিউজিক স্কুলে এহানকে ভরতি করিয়েছিলেন। এক বছর টানা প্রত্যেকদিন তিনি ট্রেনিং নিয়েছিলেন।

এহানের পরিবারের সকলে ডাক্তার অথবা ইঞ্জিনিয়ার। তবে তিনি ছক ভেঙে অভিনয়কে কেরিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছেন। তিনি জানান, প্রথমে তিনি বাড়িতে সবাইকে মিথ্যে বলেছিলেন। মা-বাবাকে জানিয়েছিলেন, ‘একজন পরিচালক আমাকে ডেকেছে। তাঁদের আমাকে পছন্দ হয়েছে। তাঁরা আমার ওপর আস্থা রেখেছে’। ছেলে অভিনেতা হবে শুনে এহানের বাবা-মা নাকি একটু প্রথমে অবাক হয়েছিলেন'। তবে এহান নিজের ওপর বিশ্বাস রেখেছিলেন।

এহান জানিয়েছেন, মুম্বইতে আসার পর তিনি খাবার থেকে বাড়ি ভাড়া অনেক কিছু নিয়ে প্রথমে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলেন। তবে তাঁর প্রবল ইচ্ছা শক্তি তাঁকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করেছে। তিনি মনে মনে ঠিক করেছিলেন, ‘আমি যদি এখান থেকে যাই তবে খালি হাতে মোটেই যাব না’।

এ আর রেহমানকে মেন্টর হিসেবে মেনে চলেন এহান ভাট। তাঁর সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘তিনি সেখানে ছিলেন এবং গায়কদের কাস্টিং থেকে শুরু করে, কথোপকথন থেকে শুরু করে সমস্ত বিষয়ে জড়িত ছিলেন। ঠিক যেন তার শিশুদের মতো’।

তাঁদের দুজনের সম্পর্ক নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘সহজেই একজন প্রযোজক এবং অভিনেতার সম্পর্ক হতে পারে, তবে তাঁর সঙ্গে এটা ছিল অন্যরকম। তিনি আমাকে নিজের ভাইয়ের মতোই আচরণ করেন। ৯৯ সঙ্গসের থেকে অনেক বেশি কিছু আমাদের সম্পর্ক’।

এহানের কথায়, ‘গত ৪ বছরে আমি যতবার তাঁর সঙ্গে দেখা করেছি সে কখনো আমার অভিনয় নিয়ে অভিযোগ করেনি। ৯৯ সঙ্গসে আমার চরিত্রে নিয়েও কোনো অভিযোগ করেনি। আমাদের মধ্যে শুধুমাত্র আলোচনা হত, কীভাবে আরো ভালো মানুষ হওয়া যায়, অনুপ্রেরণা হওয়া যায়, কীভাবে বিনোদন জগতের দুর্দশাগুলি থেকে দূরে থাকা যায় এবং কঠোর পরিশ্রম করা যায়। আমি তাঁর কাছ থেকে এই সমস্ত কিছু শিখেছি এবং ছবিটি শেষ হওয়ার পরেও আমার জীবনের রোল মডেল তিনি’।

আরো বলেন, রহমানের কথায় অনেকে সফলতা ধরে রাখতে পারেননা। নিজের লক্ষ্যকে স্থির রেখে মাটিকে পা রেখে চলা উচিত। ১৬ এপ্রিল হিন্দি, তামিল, তেলেগু ভাষায় মুক্তি পেয়েছে রোম্যান্টিক ছবি ‘৯৯ সঙ্গস’। এই সিনেমা দিয়ে একজন লেখক ও প্রযোজক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছেন বিশ্ববন্দিত এই সংগীত ব্যক্তিত্ব এ আর রহমান। ছবিতে অভিনয় করেছেন এহান ভাট এবং এডিলসি ভার্গাসে।

বন্ধ করুন