বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Arpita Mukherjee: এ বছর পুজো নিয়ে বিশেষ প্ল্যান ছিল SSC দুর্নীতিকাণ্ডের অভিযুক্ত অর্পিতার!
অর্পিতা মুখোপাধ্যায়।

Arpita Mukherjee: এ বছর পুজো নিয়ে বিশেষ প্ল্যান ছিল SSC দুর্নীতিকাণ্ডের অভিযুক্ত অর্পিতার!

  • Arpita Mukherjee: বেলঘরিয়ার দেওয়ান পাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসবের মণ্ডপেই পুজোর ক'টা দিন কাটতো অর্পিতার। গ্রেফতারির চার-পাঁচ দিন আগেও ‘ঘরের মেয়ে’ আলোচনা করেছিলেন পুজোর প্ল্যানিং নিয়ে। 

সামনেই দুর্গাপুজো। ঢাকে কাঠি পরে গিয়েছে, চারিদিকে সাজোসাজো রব। তবে জেলবন্দি অর্পিতা মনমরা। অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে নাকতলার উদয়ন সঙ্ঘের পুজোর ‘মুখ’ হিসাবে সেভাবে কোনওদিনই মনে রাখেনি কেউ। তবে তাঁর ফ্ল্যাট থেকে টাকার পাহাড় উদ্ধার হওয়ার পর রাতারাতি সংবাদ শিরোনামে তিনি। এসএসসি দুর্নীতি কাণ্ডে অভিযুক্ত অর্পিতা কলকাতার নামী পুজোর মুখ হলেও ওতোপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন আরও এক পুজোর সঙ্গে।

বেলঘরিয়ার বনেদি বাড়ির মেয়ে তিনি। দেওয়ান পাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটির পুজো হয় অর্পিতার পরিবারের' জমিতে। সেই বাড়ির মেয়ে হিসাবে পুজোর আয়োজনে রীতিমতো হাত লাগাতেন তিনি।

পুজো কমিটির এক উদ্যোক্তার কথায়, পাড়ার বাসিন্দারাই মিলেমিশে এই পুজো করেন। অর্পিতা ঘরের মেয়ে হিসাবেই পুজোর সরঞ্জাম কিনে পাশে দাঁড়াতেন। সেলেব হিসাবে কোনওদিন কোনওরকম অ্যাটিটিউড দেখাননি অর্পিতা বরং বরাবর খুব মিশুকে স্বভাবের। এই বছর ৭৫-এ পা দেবে এই পুজো। সেইজন্য অনেক পরিকল্পনা ছিল অর্পিতার। গ্রেফতারির চার-পাঁচ দিন আগে নিজে ফোন করেছিলেন পুজো কমিটির উদ্যোক্তাদের। কী জানিয়েছিলেন অর্পিতা? সেলেব-কন্যা কথা দিয়েছিলেন টলিউডের নামী কোনওতারকাকে নিয়ে আসবেন পাড়ার পুজোয়।

আরও পড়ুন- পা তুলতেই স্পষ্ট অন্তর্বাস!লাল শর্ট স্কার্টে সমুদ্রে ‘হাসিন’ জলকেলি

গত বছর পুজোয় বিজয় সম্মেলনী অনুষ্ঠানের মিষ্টির খরচ দিয়েছিলেন অর্পিতা। মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে নিজের মামা হিসাবে পরিচয় দিতেন। প্রতিবেশীরাও জানত অর্পিতার বাবার সূত্রেই পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলাপ অর্পিতার। টলিউডের পাশাপাশি ওড়িয়া ছবির পরিচিত মুখ অর্পিতা। অভিনয় এবং মডেলিং করেই আর্থিকভাবে স্বচ্ছল অর্পিতা, জানত প্রতিবেশিরা। অর্পিতার টলিগঞ্জ ও বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে ৫১ কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনা কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না অভিনেত্রীর পরিচিতরা। এই অর্পিতাকে যেন চেনেই না তাঁরা!

অনান্য বছর পূজোর কটা দিন বেলঘরিয়ার এই পুজো মণ্ডপেই কাটে অর্পিতার, তবে এইবার মায়ের মুখ দেখা হবে না। সংশোধনাগারের অন্ধকারে বসেই কাটবে অর্পিতার শারদীয়া, অন্তত তেমনটাই ধারণা।

বন্ধ করুন