বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Aryan Khan: বাবা-মা'র সঙ্গে ১০ মিনিট ভিডিয়ো কলে কথা, শাহরুখ-গৌরীকে দেখে কেঁদে ফেলল জেলবন্দি আরিয়ান

Aryan Khan: বাবা-মা'র সঙ্গে ১০ মিনিট ভিডিয়ো কলে কথা, শাহরুখ-গৌরীকে দেখে কেঁদে ফেলল জেলবন্দি আরিয়ান

ভিডিয়ো কলে কথা হল বাবা-মা'র সঙ্গে

আরিয়ানের জামিনের রায় সংরক্ষিত রেখেছে আদালত। আগামী বুধবার পর্যন্ত আর্থার রোড জেলেই থাকতে হবে শাহরুখ-পুত্রকে।

কয়েদি নম্বর ৯৫৬। মুম্বইয়ের হাইপ্রোফাইল আর্থার রোড জেলে এখন এটাই পরিচয় শাহরুখ খান পুত্রের। ইতিমধ্যেই জেলের মূল ব্যারাকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে মাদককাণ্ডে অভিযুক্ত আরিয়ান খানকে। জেলবন্দি আরিয়ান ভিডিয়ো কলে কথা বলল বাবা-মা'র সঙ্গে। শুক্রবার সংবাদ সংস্থা এএনআই এই খবর জানিয়েছে।

গোয়াগামী ক্রুজ থেকে গত ২রা অক্টোবর এনসিবি-র হাতে আটক হন আরিয়ান খান, পরদিন তাঁকে গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থা। দু দফা এনসিবি হেফাজত শেষে গত ৭ই অক্টোবর বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়েছিল আরিয়ান-সহ এই মামলার আট অভিযুক্তকে। তারপর থেকে আর্থার রোড জেলই ঠিকানা আরিয়ান খানের। 

কোভিডবিধির জন্য জেলবন্দিরা সামনাসামনি পরিবারের লোকজনের সঙ্গে সাক্ষাত্ করতে পারছেন না। মাসে দু থেকে তিনবার ভিডিয়ো কলে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলবার অনুমতি রয়েছে। সেই নিয়মমতোই শুক্রবার ভিডিয়ো কলে বড় ছেলের সঙ্গে কথা হল শাহরুখ-গৌরীর। জেল সূত্রে খবর, বাবা-মা'কে দেখেই কেঁদে ফেলেন ২৩ বছর বয়সী আরিয়ান খান। কান্না চেপেই ছেলের কাছ থেকে শাহরুখ-গৌরী জানতে চান, জেলে তাঁর কোনও সমস্যা হচ্ছে কিনা, সে ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া করছে কিনা। 

বৃহস্পতিবারই আর্থার রোড জেলের সুপারিন্টেডেন্ট নীতিন ওয়েচাল জানিয়েছেন, শাহরুখ-গৌরীর তরফে গত ১১ অক্টোবর ৪,৫০০ টাকার মানি অর্ডার পেয়েছেন আরিয়ান। জেলে থাকাকালীন পরিবারের তরফে সর্বোচ্চ এই টাকাই প্রতি মাসে পেতে পারেন কোনও অভিযুক্ত বা আসামি। জেলের ভিতরের হাত খরচের জন্য মেলে এই টাকা। এই টাকায় জেলের ক্যান্টিন থেকে প্রয়োজনীয় শুকনো খাবার (কেক, বিস্কুট) ইত্যাদি কিনতে পারবে আরিয়ান।

বিশেষ এনডিপিএস আদালত বৃহস্পতিবার (গতকাল) সংরক্ষিত রেখেছে আরিয়ান খানের জামিনের আবেদনের রায়। এনসিবির তরফে শাহরুখ পুত্রের জামিনের বিরোধিতা করে একাধিক তত্ত্ব রাখা হয়েছে। ম্যারাথন সওয়াল-জবাব পর্ব শেষে রায় সংরক্ষিত রাখেন বিচারক ভিভি পাটিল। দশেরার ছুটির পর আগামী বুধবার খুলবে কোর্ট। সেইদিন আরিয়ান-সহ আরবাজ ও মুনমুন ধমেচার জামিনের আবেদনের রায় ঘোষণা করবে সেশন কোর্ট। ততদিন পর্যন্ত আর্থার রোড জেলের ‘কয়েদি নম্বর ৯৫৬’ হিসাবেই কাটবে আরিয়ানের জীবন।

বন্ধ করুন