বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Aindrila-Arijit: ঐন্দ্রিলার লড়াইয়ে পাশে অরিজিৎ!চিকিৎসার খরচের ভার নেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ গায়কের: রিপোর্ট

Aindrila-Arijit: ঐন্দ্রিলার লড়াইয়ে পাশে অরিজিৎ!চিকিৎসার খরচের ভার নেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ গায়কের: রিপোর্ট

পাশে দাঁড়ালেন ঐন্দ্রিলা

Aindrila-Arijit: ঐন্দ্রিলা শর্মার চিকিৎসার যাবতীয় খরচ নিজের কাঁধে তুলে নেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন গায়ক অরিজিৎ সিং, এমনটাই খবর সূত্রের। 

জীবন-মৃত্যুর দোলাচলে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। গত ১৭ দিন ধরে হাওড়ার এক বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউ-তে লড়াই চালাচ্ছেন বাংলা টেলিভিশনের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী। গত ১লা নভেম্বর ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন ‘জিয়ন কাঠি’ নায়িকা। তারপর থেকেই কোমায় ঐন্দ্রিলা। শরীরে কোনও সাড় নেই। আপতত সম্পূর্ণ ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রয়েছেন তিনি। এর মাঝেই ঐন্দ্রিলার পাশে অরিজিৎ সিং। বহরমপুরের মেয়ে ঐন্দ্রিলার চিকিৎসার ব্য়ায়ভার বহনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন গায়ক, এমনই খবর হাসপাতাল সূত্রের। এমনটাই জানা গিয়েছে নিউজ ১৮-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে। যদিও এই ব্যাপারে অরিজিৎ সিং বা ঐন্দ্রিলার পরিবারের তরফে কিছু জানা যায়নি। 

সূত্রের খবর, গত কয়েকদিনে ঐন্দ্রিলার চিকিৎসার বিল ১২ লক্ষ টাকা অতিক্রম করেছে। এই বিলের অঙ্ক আরও বাড়তে পারে। তবুও ঐন্দ্রিলার চিকিৎসায় কোনও কসুর করছে না তাঁর পরিবার। দেশের স্বনামধন্য নিউরো মেডিসিন এবং নিউরো সার্জেনদের উড়িয়ে আনার চেষ্টা করছে অভিনেত্রীর পরিবার। এর মাঝেই অরিজিৎ সিং পাশে দাঁড়ালেন ঐন্দ্রিলার পরিবারের। প্রয়োজনে চিকিৎসার যাবতীয় খরচ, এমনকী রাজ্যের বাইরে অন্য কোথাউ ঐন্দ্রিলার চিকিৎসা করাতে হলে সবরকম আর্থিক সাহায্য করতে তৈরি ‘আশিকি ২’ গায়ক। 

এর মাঝেই শুক্রবার সন্ধ্যায় হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে গত দু-দিনের তুলনায় ঐন্দ্রিলার শারীরিক অবস্থার সামান্য় উন্নতি হয়েছে, তবে এখনও অতি সঙ্কটজনক ঐন্দ্রিলা। যা শুনে কিছুটা হলেও মনে বল পাচ্ছেন ঐন্দ্রিলার ভক্তরা। তবে এখনও সম্পূর্ণ ভেন্টিলেশন সাপোর্টেই রয়েছেন অভিনেত্রী। বৃহস্পতিবার জানা গিয়েছে ‘গ্লাসগো কোমা স্কেল’-এ ঐন্দ্রিলার গড় ৩। এই স্কেলে কোনও রোগীর মান নির্ধারিত হয় চোখের নড়াচড়া, অঙ্গ সঞ্চালনা, মৌখিক প্রতিক্রিয়ার ভিত্তিতে। সুস্থ মানুষের এই গড় থাকে ১৫, ঐন্দ্রিলার ক্ষেত্রে এটি অনেকটাই কম। 

তবে হাল ছাড়েনি অভিনেত্রীর পরিবার। এখনও ক্রমাগত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা ঐন্দ্রিলাকে ফিরিয়ে আনার। সর্বক্ষণ পাশে রয়েছে তাঁর মা, দিদি এবং সব্যসাচী। বাবা তো নিজেই ডাক্তার। ঐন্দ্রিলার পছন্দের গান বাজছে ICU-তে। গল্প করছেন মেয়ের সঙ্গে ঐন্দ্রিলার মা। সব্যসাচী তো সেই থেকে হাসপাতালই ছাড়েননি। তবে উলটোদিক থেকে আর কোনও প্রতিক্রিয়া আসছে না।

চলতি সপ্তাহের গোড়াতেই জানা যায়, ব্রেন স্ট্রোকের পর নায়িকার মাথার যে পাশে অস্ত্রোপচার হয়েছিল ঐন্দ্রিলার, তার বিপরীত দিকে রক্ত জমাট বেঁধেছে। এরপর থেকেই দ্রুত ঐন্দ্রিলার পরিস্থিতি বিগড়োতে থাকে। বুধবার সকালে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হন তিনি। তবু ‘মিরাকেল’ ঘটবেই, ‘ফিনিক্স’ হয়ে ফিরবেন ঐন্দ্রিলা, এমনটা বিশ্বাস তাঁর পরিবারের। তাই লড়াই থামাতে না-রাজ তাঁরা। অভিনেত্রীর আরোগ্য়া কামনায় শামিল গোটা বাংলা।

বন্ধ করুন