বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ঝোলা গুড় ও দুধ দিয়ে খুকু-বিহানের ফুলশয্যা! রোজ খাবার নষ্ট করা নিয়ে রাগ দর্শকের
জমে উঠেছে খুকুমণি আর বিহানের ফুলশয্যা।
জমে উঠেছে খুকুমণি আর বিহানের ফুলশয্যা।

ঝোলা গুড় ও দুধ দিয়ে খুকু-বিহানের ফুলশয্যা! রোজ খাবার নষ্ট করা নিয়ে রাগ দর্শকের

  • ফুল দিয়ে সাজানো খাটে কী করবে বিহান আর খুকুমণি, প্রশ্ন দর্শক মনে!

‘গুড় দিয়ে রুটি, চিনি দিয়ে চা, খুকুমণির রান্না চেটেপুটে খা’! আবারও মারপিটের মুডে খুকুমণি। বিহানের গায়ে যে একটাও আঁচড় লাগতে দেবে না বুঝিয়ে দিল আবারও!

কিছুদিন আগে খুকুমণির সিঁথিতে সিঁদুর ভরে দেয় বিহান! আর তারপর সে জানায়, অন্য সবার মতো তাঁরও ফুলশয্যা হবে। মানসিক ভারসাম্যহীন এই ছেলেটিকে ‘রাজপুত্তুর’ বলে ডাকে বাপ-মা মরা খুকুমণি। তবে, সিঁথিতে সিঁদুর পরতেই সে বিহানের বাড়ির সদস্যদের সাথে লড়তে শুরু করেছে মুখোমুখি। যাতে এই ছেলেটিকেও সে ফিরিয়ে দিতে পারে যোগ্য সম্মান। 

টিআরপির লড়াইয়ে একমাত্র মিঠাই ছাড়া সকলকেই ‘পেঁপে দিয়ে চেপে’ দি্য়েছে খুকুমণি। আপাতত স্টার জলসার সেরা সে। বিহানের দুষ্টু সৎ ভাই, দজ্জাল সৎ মায়ের কাছ থেকে প্রতিবাদী খুকুমণি সারাক্ষণ আগলে রেখেছে বিহানকে।

নতুন প্রোমোয় দেখা যাচ্ছে ফের একবার বিহানের গায়ে হাত তোলায় নিজের দেওরকেই মারধর করছে খুকুমণি। মুখের মধ্যে রুটি ঠেঁসে ধরে বুঝিয়ে দিয়েছে সে বিহানকে চোখের আড়াল করবে না! কোনও ক্ষতি হতে দেবে না!

আর বিহান যখন তাঁকে প্রশ্ন করে, ‘তাহলে কি ফুলশয্যা হবে না’? তখন খুকুমণি উত্তর দেয়, ‘কেন হবে না, এই তো আমি নিজের হাতে তোমায় সাজিয়ে দেব’! তবে ইতিমধ্যেই গুড় আর দুধের কম্বিনেশন নিয়ে জোর হাসি নেটপাড়ায়। সঙ্গে আবার খাবার নষ্ট করা নিয়েও প্রতিবাদ উঠেছে, ‘সত্যি বলছি, রোজ রোজ এই খাবার নষ্ট করা, খাবার ফেলে দেওয়াটা মোটেও ভালো লাগছে না!’, ‘ধারাবাহিক গুলো সস্তা বিনোদনের নামে ভুল শিক্ষা দিচ্ছে’র মতোও কমেন্ট পড়েছে সেখানে!

বন্ধ করুন