ল্যাদের শ্যুটিংয়ের একটি দৃশ্যে অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী
ল্যাদের শ্যুটিংয়ের একটি দৃশ্যে অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী

বাঙালি এবার ল্যাদ খাবে না দেখবেও, সৌজন্যে ঋত্বিকের প্রথম অ্যানিমেশন শর্ট ফিল্ম

  • রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্তের পর আবারও একসঙ্গে পরিচালক প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য এবং অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী। এবার দর্শকদের ল্যাদ উপহার দেবেন এই জুটি।
  • অভিনেতা ঋত্বিক প্রথমবার কাজ করলেন অ্যানিমেশন ফিল্ম। তাও স্বপ্ল দৈর্ঘ্যের ছবি। নাম ল্যাদ।

ল্যাদ কি? ল্যাদ হল বাঙালির অন্যতম প্রিয় খাদ্য-যা চোখে দেখা যায় না বটে তবে খেতে মন্দ লাগে না। ল্যাদ খেতে কার না ভালো লাগে বলুন? তবে এবার শুধু ল্যাদ খাবেন না, ল্যাদ দেখবেনও বটে। সৌজন্যে রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্তের পরিচালক-অভিনেতা জুটি।

প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের তৈরি করেছেন একটি স্বল্প দৈর্ঘ্যের অ্যানিমেশন ফিল্ম ল্যাদ। সেখানে লিড রোলে দেখা মিলবে অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তীর।

কর্পোরেট জগতের জাঁতাকলে আটকে পড়া এক কর্মী কিঙ্করের জীবনের গল্প ফুটে ওঠবে এই ছবিতে। একদিকে শয়তান বস তো অন্যদিকে স্ত্রীর চোখরাঙনিতে ক্লান্ত সে। তাঁর এই ল্যাদহীন জীবনে আচমকাই কিঙ্করের সাক্ষাত্ ভূতের রাজা-রাজা দার সঙ্গে। সেই ভূতের রাজা কিঙ্করকে দেবে এক মজাদার বর- ‘ল্যাদ বর’। এর পর কি কি কাণ্ড কারখানা ঘটবে সেই নিয়েই এগোবে এই শর্ট ফিল্ম।

পরিচালক প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের সঙ্গে অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী
পরিচালক প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের সঙ্গে অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী


ঋত্বিক মানে কিঙ্করের মতে, শর্ট ফিল্মের নাম ল্যাদ হলেও ছবি তৈরির প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত পরিশ্রম সাধ্য ব্যাপার ছিল, তবে নতুন ধরণের চ্যালেঞ্জ-খুব ভালো লেগেছে’।প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের কথায়, ল্যাদ শব্দটি শোনার পরই আমার মনে হয়েছিল বিষয়টা দারুণ মজার এবং চ্যালেঞ্জিং হবে। এমন কিছু হবে যেটার সঙ্গে আমি পরিচিত নই এবং আগে কখনও করি নি।

‘এই মিজকিক্যাল শর্ট ফিল্মের গান মূলত জ্যাজ ব্লু জঁরের। যদিও মিউজিক অ্যারেঞ্জমেন্টে যতটা সম্ভব অভিনবত্বের ছোঁয়া দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে’,জানালেন এই শর্ট ফিল্মের মিউজিক ডিরেক্টর এবং গীতিকার অনির্বাণ অজয় দাস।

ল্যাদের গান গেয়েছেন সঙ্গীত শিল্পী দিব্যেন্দু মুখোপাধ্যায়।

আইসিই মিডিয়া ল্যাবের প্রযোজনায় ১১ জানুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়ায় মুক্তি পাবে ঋত্বিক চক্রবর্তী অভিনীত প্রথম অ্যানিমেশন শর্ট ফিল্ম ল্যাদ।

বন্ধ করুন