বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বেরিয়ে আছে বক্ষযুগল, রাইমাকে কটাক্ষ নেটপাড়ায়

রাইমা সেন যতটা না ছবিতে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন, তার থেকে অনেক বেশি তিনি খবরে এসেছেন নিজের সাহসী ফোটোশ্যুটের কারণে। যদিও সেসব তিনি কেয়ার করেন না। সাফ জানিয়েছিলেন, ক্যামেরার সামনে নগ্ন হয়ে ফোটোশ্যুট করতেও কোনও সমস্যা নেই সুচিত্রা সেনের নাতনির । বরং, ফোটোশ্যুট করতে তিনি ভালোবাসেন। চিত্রগ্রাহক তথাগত ঘোষের ক্যামেরায় প্রায়ই ধরা দেন রাইমা। আর সকলের মন জয় করে নেন নিমেষে।

সোনালি শর্ট ড্রেসে একটি ছবি সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন রাইমা। যেখানে তিনি বসে আছেন একটু সামনের দিকে ঝুঁকে। খোলা চুল ছড়িয়ে আছে কাঁধের দু'পাশ দিয়ে। মেরুন লিপস্টিক আর স্মোকি আই-তে পুরুষদের ঘুম কেড়েছেন। গলায় থাকা চেনের লকেট ঠিক শেষ হয়েছে তাঁর বক্ষ বিভাজিকার কাছে এসেই।

ইনস্টাগ্রামে রাইমার সেই আগুন ধরানো ছবি।
ইনস্টাগ্রামে রাইমার সেই আগুন ধরানো ছবি।

রাইমার রুপের আগুনে পুড়ে ছাড়খাড় হয়েছেন অনেকেই। কাজল কালো চোখের প্রশংসা তো ভুরুভুরি। একজন তো সাফ জানিয়েছেন, রাইমার চোখের জন্য তিনি মরে যেতেও রাজি। আর আরেক নেট-নাগরিক আবার প্রশ্ন তুলেছেন, ‘তুমি ছবি করা বন্ধ করে দিলে কেন বলো তো?’। কেউ কেউ লিখেছেন এভাবেই তাঁরা বারবার প্রেমে পড়েন। যদিও নোংরা মন্তব্যও হয়েছে। হয়েছে কটাক্ষ। ‘খেয়ে নিতে ইচ্ছে করছে’ বলে খারাপ ইঙ্গিত করেছেন একজন। এক ব্যক্তি আবার পরামর্শ দিয়েছেন, ‘শোনো শুধু শাড়ি পরবে। ওতেই তোমায় বেশি ভালো লাগে।’

বরাবরই মহানায়িকা সুচিত্রার সঙ্গে রাইমার চেহারার মিল খুঁজে পান সকলে। আর তাই কোনও ছবি দিলেই তুলনা টানা হয়। যা রাইমার কেরিয়ারে ড্র ব্যাক হিসেবে কাজ করেছে। খুব অল্প বয়সে শাবানা আজমির সঙ্গে ‘গডমাদার’ ছবিতে ডেবিউ করেছিলেন রাইমা সেন। এরপর বলিউড আর টলিউডে একের পর এক কাজ করলেও বারবার তাঁর তুলনা টানা হত সুচিত্রা সেনের সঙ্গে। বেশ কয়েক বছর তাঁকে সিনেমায় দেখা যায়নি। তবে ৪০ পেরিয়েও সমান সুন্দরী তিনি! টক্কর দিতে পারেন যে কোনও উঠতি তরুণী নায়িকাকে।

বন্ধ করুন