বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মামা-শ্বশুরের মন জয় করতে চিতল মাছের মুইঠা রাঁধবে মিঠাই, সিদ্ধার্থ কিনবে মাছ!
মামা-শ্বশুরের মন জয় করতে চিতল মাছের মুইঠা রাঁধবে মিঠাই।
মামা-শ্বশুরের মন জয় করতে চিতল মাছের মুইঠা রাঁধবে মিঠাই।

মামা-শ্বশুরের মন জয় করতে চিতল মাছের মুইঠা রাঁধবে মিঠাই, সিদ্ধার্থ কিনবে মাছ!

মিঠাই আর সিদ্ধার্থর বিয়ে নিয়ে চড়ছে উৎসাহের পারদ। কী হয়, কী হয় একটা ব্যাপার কাজ করছে যেন!

TRP তালিকায় চলতি সপ্তাহেও সেরা-র আসন ধরে রেখেছে মিঠাই। আর হবে না-ই বা কেন! সেখানে যে এখন এসেছএ বিয়ের টুইস্ট। কিছুদিন আগেই সিদ্ধার্থ আর মিঠাই এর ডিভোর্স কেস চলছিল। কিন্তু তারই মাঝে দাদাই-এর ‘মিঠাই এর সাথে এক ছাদের তলায় সিদ্ধার্থ কোনওদিন স্বামী-স্ত্রীর মতো থাকতে পারবে না’ চ্যালেঞ্জ অ্যাকসেপ্ট করে মিঠাইয়ের সাথে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ‘উচ্ছেবাবু’। 

ফুলসজ্জা পর্বের এক-একটা প্রোমো সামনে আসতেই পাগল হয়েছেন নেটিজেনরা। এবারের প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে, ফুলশয্যার রাতে একই খাটে সিদ্ধার্থর সঙ্গে শুয়ে ছটফট করছে মিঠাই। গায়ে থাকা ভারী গয়নার জন্য ঘুমোতে পারছে না সে। যাতে বিরক্ত হয় সিদ্ধার্থ। তারপর নিজেই মিঠাই-এর গা থেকে গয়না খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করে। প্রথমে গয়না কীভাবে খুলতে হয় তা জানার জন্য ইউটিউবের শরণাপন্ন হয়। কিন্তু গয়না খোলার টিউটোরিয়াল খুঁজে না পাওয়ায়, নিজেই হাত লাগায় সেই কাজে। তারপর সকালে উঠে বাড়ির সকলের উৎসুখ মুখ, লুচি নিয়ে চ্যালেঞ্জও সামলে নেয় ‘তেতো’ মুখে।

তবে এবার সিদ্ধার্থর সামনে নতুন চ্যালেঞ্জ। আসছেন সিদ্ধার্থর মায়ের বড় দাদা। আর তিনি আবার নতুন নাত বউয়ের হাতে খেতে চেয়েছেন চিতল মাছের মুইঠা। আর দাদা-দের কারসাজিতে এবারেও মাছ কেনার চ্যালেঞ্জ নিয়ে বসেছে সিদ্ধার্থ! এখন দেখার কী হয়। বাজার থেকে ভালো চিতল মাছ কী কিনতে পারবে সে? আর মিঠাইও কী পারবে মামাশ্বশুরের মনোর মতো করে চিতল মাছের মুইঠা বানাতে? শেষমেশ কী হবে?

মিঠাই আর সিদ্ধার্থ কী এভাবেই ভালোবেসে ফেলবে একে-অপরকে-- আপাতত এটাই সব থেকে বড় কৌতূহল দর্শকদের। জি বাংলার এই ধারাবাহিকে মিঠাই-এর ভূমিকায় অভিনয় করছেন সৌমিতৃষা কুণ্ডু, অন্যদিকে সিদ্ধার্থের চরিত্রে দেখা মিলছে অদৃত রায়ের। তাঁদের টক-ঝাল প্রেমেই মজে আছে এখন দর্শক। তবে তাতে গুড়ের ছোঁয়া কবে আসে, সেটাই দেখার!

বন্ধ করুন