টিম ফেক নিউজ। ছবি সৌজন্য সায়ক চক্রবর্তী।
টিম ফেক নিউজ। ছবি সৌজন্য সায়ক চক্রবর্তী।

ফেক নিউজ!! ভুয়ো খবর হইতে সাবধান!

একঝাঁক টেলি অভিনেতারা মিলে নিয়ে এল ‘ফেক নিউজ’। লকডাউনে চলছে ভুয়ো খবর প্রচার। সেই অতঙ্কে নিত্য নতুন বিপদে পড়ছেন সাধারণ মানুষ সহ বয়স্ক এবং একলা থাকা মানুষরা। ঘটে যাচ্ছে অমানবিক সব ঘটনা। এই পরিস্থিতির প্রতিবাদে তৈরি হয়েছে ছোট ছবি ‘ফেক নিউজ’। একটাই বার্তা, ভুয়ো খবর থেকে সাবধান হোন। 

কোভিড ১৯ নিয়ে যখন সারা পৃথিবী উত্তাল সেই সময় বহু মানবিক পটচিত্র আমাদের মুগ্ধ করেছে। ডাক্তার, নার্স, সেচ্ছা সেবক, পুলিশ, সংবাদ মাধ্যম, সমাজকর্মী থেকে শুরু করে পাড়ার ক্লাবের সদস্যরা, এলাকার ছেলেমেয়েরা এগিয়ে এসেছে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার কাজে। সেলেব্রিটি থেকে সাধারণ মানুষ, যে যেমন পেরেছেন সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আমরা আপলুত হয়েছি  সেই মানবিকতার আবহে । কিন্তু এই স্পর্ষকাতর সময়ে কিছু মানুষ, কিছু ভুয়ো সংবাদ মাধ্যম ভুল খবর প্রচার করে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মানুষের মনে। বিশেষকরে যাঁরা বয়স্ক সহ নাগরিক, যাঁরা একা থাকেন এই শহরে, যাঁদের সন্তানরা বাইরে থাকেন কর্মসুত্রে, এই মুহূর্তে কোনও ভাবেই ফিরতে পারছেন না তাঁদের বয়স্ক মা,বাবার কাছে, তাঁরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন এই সব ভ্রান্ত খবরে। এবং এতটাই তাঁরা ভয় পেয়ে যাচ্ছেন যে সেই আতঙ্ক কোনও কোনও ক্ষেত্রে  প্রাণহানি পর্যন্ত ঘটে যাচ্ছে। 

জানিনা, কে বা কারা এই সময়ে দাঁড়িয়ে এতটা অমানবিক কাজ করছে! আমাদের রাজ্য সরকার, সংবাদ মাধ্যম বারবার প্রচার করছে যে ভুল খবর ছড়াবেন না, ডাক্তারবাবুরা টিভিতে, সোশ্যাল মিডিয়াতে অনুরোধ করছেন করোনা নিয়ে আতঙ্ক ছড়াবেন না। এতকিছুর পরও কিন্তু ফেক নিউজ প্রচার বন্ধ করা যাচ্ছে না। 

এই ধরণের ভুল খবরে যাতে মানুষ আতঙ্কিত না হন, ভয় না পেয়ে আগে সত্যটা যাচাই করেন এবং শারীরিক কোনও অসুবিধা হলে সঠিক তথ্যটা জানতে ডাক্তার বাবুর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এই বার্তা দিতেই টলিউডের একঝঁক টেলি অভিনেতারা মিলে বানিয়ে ফেললেন শর্ট ফিল্ম ‘ফেক নিউজ’। ভাবনা সায়ক চক্রবর্তী, কাহিনি, চিত্রনাট্য, পরিচালনা মিষ্টি দাস, এডিট সুকান্ত কুণ্ডু। অভিনয় করেছেন সোমা চক্রবর্তী, দেবাদৃতা বসু, রাজ ভট্টাচার্য্য, ধ্রুব সরকার, সায়ক চক্রবর্তী, সৈরিতী বন্দোপাধ্যায়, শুভজিত কর, মিষ্টি দাস, হিয়া দে, সুকান্ত কুন্ডু, দিয়া চক্রবর্তী। এই শর্ট ফিল্মের তরফ থেকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়, দোলন রায়, মৈত্রী মিত্র এবং দিগন্ত বাগচিকে। ফেক নিউজ ইউটিউবে মুক্তি পেয়েছে। ছবির লিঙ্ক দেওয়া রয়েছে এই প্রতিবেদনের নিচে।

 

বন্ধ করুন