বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যু: CBI তদন্তের সুপারিশ জানাতে পারে না বিহার সরকার, দাবি রিয়ার আইনজীবীর
নীতিশের সুপারিশে আপত্তি টিম রিয়ার 
নীতিশের সুপারিশে আপত্তি টিম রিয়ার 

সুশান্তের মৃত্যু: CBI তদন্তের সুপারিশ জানাতে পারে না বিহার সরকার, দাবি রিয়ার আইনজীবীর

  • ফের একবার বিহার পুলিশের আইনগত অধিকারের প্রশ্ন তুলে নীতিশ কুমারের সিবিআই তদন্তের সুপারিশকে ভিত্তিহীন ও যুক্তিহীন বলে দাবি করলেন রিয়ার আইনজীবী। 

১৪ জুলাই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর সিবিআই তদন্ত চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর উদ্দেশ্যে টুইট করেছিলেন সুশান্তের গার্লফ্রেন্ড রিয়া চক্রবর্তী। আজ বিহার সরকারের তরফে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার আনুষ্ঠানিক সুপারিশ করা হল কেন্দ্রের কাছে। অথচ সেই সুপারিশেই আপত্তি জানাচ্ছে রিয়া চক্রবর্তী! হ্যাঁ, নীতিশ কুমার সরকারের সিবিআই তদন্তের সুপারিশের আবেদন নাকি সংবিধান বিরোধী। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ৫০ দিনের মাথায়, মঙ্গলবার অবশেষে অভিনেতার মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের আর্জি গেল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে। সুশান্তের বাবার আবেদনে এদিন মঞ্জুরি দেন নীতিশ কুমার। তবে এই মঞ্জুরির কয়েক মিনিটের মধ্যেই রিয়া চক্রবর্তীর আইনজীবী ফের একবার প্রশ্ন তুললেন এই তদন্তে বিহার সরকারের জুরিসডিকশন (আইনগত অধিকারক্ষেত্র) নিয়ে। 

রিয়া চক্রবর্তীর হয়ে এই মামলা লড়ছেন সতীশ মানেসিন্ধে। তিনি দাবি করেন, সেই মামলা কোনওদিনই হস্তান্তর করা যেতে পারে না যার কোনও আইনি ভিত্তি নেই। ‘জিরো এফআইআর’ হিসাবে এই মামলা মুম্বই পুলিশের হাতে হস্তান্তর করা যেতে পারে। সিবিআইকে এমন একটা কেস হস্তান্তর, যেটা বিহারের জুরিসডিকশনের মধ্যে পড়ে না, এটা আইনের পবিত্রতাকে ভঙ্গ করা'।

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার জনান, আজ বিহারের ডিজিপি সুশান্তের বাবার সঙ্গে আলোচনা করেন। এবং তিনি (কেকে সিং) এই মামলার তদন্ত সিবিআইকে দিয়ে করাতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। সেই কারণে আমরা সিবিআই তদন্তের সুপারিশ জানিয়েছি। 

উল্লেখ্য আগামিকাল সুপ্রিম কোর্টে রিয়া চক্রবর্তীর পিটিশনের শুনানি হবে। রিয়া চক্রবর্তীর পিটিশনের শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে ৫ অগস্ট। সেই পিটিশনে এই মামলার তদন্ত নিয়ে বিহার পুলিশের জুরিসডিকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন রিয়া,তাঁর দাবি এই মামলার এফআইআর বিহারে দাখিল হলেও তদন্তের অধিকার রয়েছে একমাত্র মুম্বই পুলিশের। গত ২৯শে জুলাই এই পিটিশন দাখিল করেন রিয়া। তবে শুনানির মাত্র ২৪ ঘন্টা আগে এই মামলার তদন্তভার সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়ার বিহার সরকারে সুপারিশ ঘিরে শোরগোল গোটা দেশে। এখন সর্বোচ্চ আদালতে সবচেয়ে বড় প্রশ্ন হতে চলেছে এই সুপারিশ জানানোর অধিকার বিহার সরকারের রয়েছে কিনা! রিয়ার পিটিশনের পাল্টা ক্যাভিয়েটও সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করেছেন সুশান্তের পরিবার, বিহার সরকার। এই শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টে বিহার সরকারের প্রতিনিধিত্ব করবেন প্রাক্তন অ্যাটোর্নি জেনারেল মুকুল রোহাতগি। কেন সুশান্তের মৃত্যু মুম্বইতে ঘটার পরেও এফআইআর পাটনায় দায়ের হয়েছে, কী কারণে এই সিদ্ধান্ত বিহার সরকারের এবং কেন বিহার পুলিশের টিম মুম্বইতে মামলার তদন্ত করছে-সেই সব প্রশ্নের উত্তর আদালতকে জানাবেন মুকুল রোহাতগি।

বন্ধ করুন