বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে এসে ‘আটক' পাটনার এসপিকে কোয়ারেন্টাইন ছেড়ে দিল বিএমসি
এসপি বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্তি দিল বিএমসি 
এসপি বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্তি দিল বিএমসি 

সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে এসে ‘আটক' পাটনার এসপিকে কোয়ারেন্টাইন ছেড়ে দিল বিএমসি

  • অবশেষে শুক্রবার পাটনার এসপি বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছেড়ে দিল বিএমসি।
  • আজকের মধ্যেই তাঁকে মুম্বই ছেড়ে পাটনা ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত নিয়ে মুম্বই পুলিশ বনাম বিহার পুলিশের অঘোষিত লড়াই গত দশদিনে নজর এড়ায়নি গোটা দেশের। সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে মুম্বই পৌঁছানো পাটনা পুলিশের এসপিকে কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই কোয়ারেন্টাইন করে বিএমসি। ঘটনায় প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন বিহার পুলিশের সর্বোচ্চ কার্তা।বিহার পুলিশের ডিজিপি গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে এই ঘটনার বিরুদ্ধে আলাদতে যাওয়ার হুমকি পর্যন্ত দিয়েছিলেন। অবশেষে কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্তি দেওয়া হল পাটনার এসপি বিনয় তিওয়ারিকে। তবে সেখানেও বেশ কিছু শর্ত চাপিয়েছে বিএমসি। শুক্রবার বিএমসি জানানয়, ৮ই অগস্টের আগেই পাটনা ফিরে যেতে হবে বিনয় তিওয়ারিকে। পাটনা পুলিশের দ্বিতীয় চিঠির প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বৃহন্মুম্বই পুরনিগম। 

বিএমসির তরফে জানানো চিঠির জবাবে পাল্টা চিঠি লিখে বিহার পুলিশকে জানানো হয়, এটা খুবই দুর্ভাগন্যজনক যে একজন সিনিয়ার অফিসার মহারাষ্ট্রে আসবার আগে কোভিড সংক্রান্ত গাইডলাইন সম্পর্কে যথাযথ ব্যবস্থা নেননি। যেই গাইডলাইন জনসমক্ষে রয়েছে।যে কোনও অন্তঃরাজ্য ট্রাভেলারের ক্ষেত্রে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতামূলক, করোনার ঠেকাতে এটা মহারাষ্ট্র সরকারে নিময়। 

এটা ওঁনার আগমনের পঞ্চম দিন, কিন্তু পাটনা থেকে অনুরোধ এসেছে ওঁনার পাটনা ফিরে যাওয়ার, সেই কথা মাথায় রেখে ওঁনাকে হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে নির্দিষ্ট শর্তে, ওঁনাকে ৮ অগস্ট শুরুর আগে মহারাষ্ট্র ছাড়তে হবে'। 

রবিবার সন্ধ্যায় মুম্বই পৌঁছান পাটনা (সেন্ট্রাল)-র এসপি বিনয় তিওয়ারি। এবং সেদিন রাত ১১টা নাগাদ তাঁকে গোয়েগাঁওয়ের এসআরপিএফ ক্যাম্পে কোয়ারেন্টাইন করে বিএমসি। 

বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইন করবার বিষয়টি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে ভর্তসনার মুখে পড়তে হয় মহারাষ্ট্র সরকারকে। বিচারপতি হৃষিকেশ রায়ের আদালতের পর্যবেক্ষণ থেকে পরিষ্কারভাবে জানান, ‘মুম্বই পুলিশের পেশাদার মনোভাব সকলেরই জানা, তবে একজন বিহারের পুলিশ অফিসারকে কোয়ারেন্টাইন করা ভালো বার্তা দিচ্ছে না’। এর পরেও নিজেদের অবস্থানে অনড় ছিল বিএমসি। বুধবার রাতে তাঁরা জানিয়ে দেয়  ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইন পর্ব না মিটলে কোনওভাবেই ছাড়া হবে না বিনয় তিওয়ারিকে। তারপরই বৃহস্পতিবার আরও কড়া ভাষায় মুম্বই পুলিশ ও বিএমসির সমালোচনা করেন বিহারের ডিজিপি। বলেন, 'মুম্বই পুলিশ সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশও মানছে না। তাহলে ওঁরা লিখিত দিক যে ওঁরা সুপ্রিম নির্দেশ মানবে না এবং আমাদের এসপিকে গ্রেফতার করা হয়েছে'। তিনি বলেন, বিহার পুলিশের অফিসারকে কোয়ারেন্টাইন করাটা মুম্বই পুলিশের অপেশাদার সিদ্ধান্ত। আমরা অ্যাডভোকেট জেনারেলের সঙ্গে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত নেব। আদালতে যাওয়ার রাস্তা খোলা রয়েছে'। এরপরেই শুক্রবার সকালে বিনয় তিওয়ারিকে মুক্তি দেওয়ার কথা জানায় বিএমসি। 

এসপি বিনয় তিওয়ারিকে বিএমএসি সোজা মুম্বই এয়ারপোর্টে যাওয়ার উপদেশ দিয়েছে, এবং ফেস কভার, মাস্ক এবং নির্দিষ্ট হাইজিন রুটিন মেনে চলতে বলা হয়েছে। 

বন্ধ করুন