বাড়ি > বায়োস্কোপ > মেনে নিতে পারছে না বলিউড! অক্ষয় থেকে সোনু সুদ সবাই 'শকড'
অকালেই শেষ আরও একটা জীবন!
অকালেই শেষ আরও একটা জীবন!

মেনে নিতে পারছে না বলিউড! অক্ষয় থেকে সোনু সুদ সবাই 'শকড'

  • অক্ষয় কুমার,রীতেশ দেশমুখ থেকে সোনু সুদ-সুশান্তের আত্মহত্যার খবরে বাকরুদ্ধ সকলেই। 

আর কী আমরা দেখব ২০২০-তে? আর কত তারকা এভাবেই নিভে যাবেন। মৃত্যুশোকের ধাক্কা আর সামলাতে মায়ানগরী। তবে এবছরের সবচেয়ে বড়ো চাঞ্চল্যকর মৃত্যুর খবর বোধহয় এল ১৪ জুন। আত্মহত্যা করলেন সুশান্ত সিং রাজপুত! হ্যাঁ, মাত্র ৩৪ বছর বয়সে চলে গেলেন পর্দার মহেন্দ্র সিং ধোনি। এটাও কি সম্ভব? প্রশ্ন বলিউডের মনে। সুশান্তের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা বলিউড। 

অভিনেতা অক্ষয় কুমার লেখেন,'আমি হতভম্ব এবং ভেঙে পড়েছি সুশান্তের মৃত্যুর খবরে'। রীতেশ দেশমুখ লেখেন, ‘অবিশ্বাস্য,বাকরুদ্ধ, সুশান্ত সিং রাজপুত আর নেই..! মারাত্মক শোকাহত’। সোনু সুদ লেখেন 'ভেঙে পড়েছি'।

সুশান্তের এই আত্মহত্যা বড়ো ক্ষতি ইন্ডাস্ট্রির,তাঁর পরিবারের ও অনুরাগীদের কাছ-লেখেন সঞ্জয় দত্ত।

রবিবার সকালে সুশান্তের বাড়ির পরিচারক তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখে পুলিশকে খবর দেন। কোন সময় এই ঘটনা ঘটেছে সেই নিয়ে এখন কোনও তথ্য মেলেনি। তবে বান্দ্রা পুলিশ সুশান্তের মৃত্যুর খবর সাংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছে। এদিন বান্দ্রার কাটার রোডের ফ্ল্যাটে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে সুশান্তের দেহ। ইতিমধ্যেই সেই ফ্ল্যাট মুড়ে ফেলা হয়েছে পুলিশি নিরাপত্তা বলয়ে।

২০০৮ সালে বালাজি টেলিফ্লিমসের কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিলের সঙ্গে অভিনয় কেরিয়ার শুরু করেন সুশান্ত সিং রাজপুত। প্রথমবার লিড রোলে দর্শক তাকে দেখেছে একতা কাপুরের পবিত্র রিসকা ধারাবাহিকে। রাতারাতি গোটা দেশের মনের মণিকোঠায় মানব হিসাবে জায়গা করে নিয়েছিলেন সুশান্ত। এরপর ২০১৩ সালে কাই পো ছে ছবির সঙ্গে রুপোলি সফর শুরু করেন সুশান্ত। কেরিয়ারের শুরুতেই একের পর এক ছক্কা হাঁকিয়েছেন অভিনেতা। বর্তমান প্রজন্মের অন্যতম প্রতিভাববান তারকা হিসাবে তাঁকে মনে করা হত। বক্স অফিসে তাঁর শেষ ছবি ছিল ছিঁছোড়ে। যদিও নেটফ্লিক্সের ছবি ড্রাইভে শেষবার দেখা গিয়েছে তাঁকে।

বন্ধ করুন