বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কোকেনসহ এনসিবির হাতে গ্রেফতার আরবাজ খানের হেয়ার স্টাইলিস্ট
গ্রেফতার সূরজ গোদাম্বে 
গ্রেফতার সূরজ গোদাম্বে 

কোকেনসহ এনসিবির হাতে গ্রেফতার আরবাজ খানের হেয়ার স্টাইলিস্ট

  • এবার এনসিবির জালে খান পরিবারের ঘনিষ্ঠ সূরজ গোদাম্বে। আরবাজ খানের ব্যক্তিগত হেয়ার স্টাইলিস্ট হিসাবে কাজ করে সূরজ। 

বলিউডের মাদককাণ্ডে এবার এনসিবির হাতে সেলিব্রিটি হেয়ারস্টাইলিস্ট সূরজ গোদাম্বে। বৃহস্পতিবার কোকেনসহ সূরজকে গ্রেফতার করল দেশের কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থা। আরবাজ খান প্রোডাকশনের সঙ্গে ওতোপ্রোতভাবে জড়িত সূরজ, সলমন খানের ভাই আরবাজের ব্যক্তিগত হেয়ারস্টাইলিস্ট হিসাবে কাজ করে সে।  

এনসিবির তরফে এই গ্রেফতারি সুনিশ্চিত করা হয়েছে। এনসিবি জানিয়েছে ১৬-টি কোকেনের শিশি (অ্যাম্পুল) বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে সূরজের কাছ থেকে, প্রত্যেকটিতে ১১ গ্রাম করে কোকেন রয়েছে। এটি ব্যক্তিগত এবং কম্যার্শিয়াল ব্যবহারের মধ্যবর্তী পরিমাণ, জানিয়েছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। গোপনসূত্রে খবর পেয়ে এদিন এনসিবির যৌথ ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ের তত্বাবধানে এদিনের অপরারেশন সম্পন্ন হয়েছে। এক মাদকপাচারকারীর সঙ্গেই গ্রেফতার করা হয়েছে সূরজকে। এনডিপিএস আইনের একাধিক ধারায় গ্রেফতার করা হয়েছে সূরজকে। মেডিক্যাল পরীক্ষার পর দুজনেই আদালতে তোলা হলে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত এনসিবি হেফাজত মঞ্জুর করেছে বিশেষ এনডিপিএস কোর্ট। 

সুশান্ত মামলার সঙ্গে সম্পর্কিত মাদককাণ্ডের সঙ্গে কোনও যোগ নেই এই মামলার, এটি বলিউডের মাদককাণ্ডের সঙ্গে জড়িত পৃথক মামলা জানিয়েছেন সমীর ওয়াংখেড়ে। সূরজ গোদাম্বের উপর কী কী আরোপ লাগানো হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত করেনি এনসিবি। কোনও সেলেব্রিটিকে সূরজ মাদক সাপ্লাই করত কিনা তা তদন্ত করে দেখছে এনসিবি। 

মঙ্গলবার ও বুধবারও বলিউডের মাদককাণ্ডে একাধিক গ্রেফতারি করেছে এনসিবি। জিতেন্দ্র জৈন তথা জিত (পেশায় ডিজে) এবং আজাম জুমান শেখকে গ্রেফতার করেছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। তাঁদের কাছ থেকে মালানা ক্রিম হাশিশ, এক্সট্যাসি পিলস এবং নগদ ২.৬৩ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। 

বন্ধ করুন