বাড়ি > বায়োস্কোপ > ৬৫ বছরের উর্ধ্বের কলাকুশলীরাও কাজ করতে পারবেন, নির্দেশ বম্বে হাইকোর্টের
উদ্ধব সরকারের করোনা সংক্রান্ত শ্যুটিং বিধি বদল হাইকোর্টের 
উদ্ধব সরকারের করোনা সংক্রান্ত শ্যুটিং বিধি বদল হাইকোর্টের 

৬৫ বছরের উর্ধ্বের কলাকুশলীরাও কাজ করতে পারবেন, নির্দেশ বম্বে হাইকোর্টের

ফিল্ম ও টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তির সঙ্গে দ্বিচারিতা নয়। তাঁদেরকেও উপার্জনের সুযোগ দিতে হবে, মহারাষ্ট্র সরকারকে বলল বম্বে হাইকোর্ট। 

করোনার জেরে দীর্ঘদিন দেশজুড়ে বন্ধ ছিল শ্যুটিংয়ের কাজ। জুন মাসের শুরুতে মহারাষ্ট্র সররকারের তরফে শ্যুটিংয়ের অনুমতি মিললেও একটি ১৬ পাতার নিয়মবিধি জারি করা হয়। সেখানে স্পষ্টই বলা হয়েছিল ৬৫ বছরের উর্ধ্বের কোনও শিল্পী বা টেকনিশিয়ান শ্যুটিংয়ে যোগ দিতে পারবেন না। তবে উদ্ধব ঠাকরে সরকারের এই সিদ্ধান্তকে শুক্রবার খারিজ করে দিল বম্বে হাইকোর্ট।  এদিন আদলত জানায়, ৬৫ বছরের বেশি বয়সী কলাকুশলীরাও যোগ দিতে পারবেন শ্যুটিং সেটে, জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএনআই।

এদিন বিচারপতি এসজে কথাওয়াল্লা এবং আরআই চাগলার বেঞ্চ এই মামলার রায় দিতে গিয়ে খারিজ করে দেন মহারাষ্ট্র সরকারের তরফে জারি ৩০শে মে এবং ২৩শে জুনের নির্দেশিকা। 

মহারাষ্ট্র সরকারের নির্দেশিকাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে হাইকোর্টে দুটি পিটিশন দাখিল হয়েছিল। একটি ফিল্ম ও টেলিভিশন অভিনেতা প্রমোদ পান্ডে (৭০)-এর তরফে,অন্যটি ইন্ডিয়ান মোশন পিকচার্স প্রোডিউসার অ্যাসোশিয়েশনের তরফে। মহারাষ্ট্র সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রকাশ্য মুখ খুলেছিলেন সুরেখা সিক্রি, কনওয়ালজিত সিংয়ের মতো বর্ষীয়ান অভিনেতারা। 

মহারাষ্ট্র সরকারের তরফে জানানো হয়েছিল শিল্পী ও টেকনিশিয়ানদের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কারণ এই করোনা সংকটের সময় বয়স্কদের বেশি ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও হাইকোর্ট পাল্টা জানায়, দ্বিচারিতা কেন? যদি সরকার অন্য সকল সেক্টের ৬৫ বছরের বেশি বয়স্ক মানুষকে কাজ করবার অনুমতি দেয়,তাহলে ফিল্ম এবং টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে যুক্ত মানুষদেরকে সেই সুযোগ থেকে কেন বঞ্চিত করা হবে?  পাশাপাশি বম্বে হাইকোর্ট নিজের পর্যবেক্ষণ থেকে বলেন, কোনও মানুষকে তাঁর জীবিকা অর্জনের রাস্তা থেকে আটকানো যায় না। 

বন্ধ করুন