বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'বুম' এর ভরাডুবির পর দেউলিয়া হয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গে মুখ খুললেন জ্যাকি!
'বুম' ছবির ব্যর্থতার পর তা নিয়ে মুখ খুলেন জ্যাকি। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
'বুম' ছবির ব্যর্থতার পর তা নিয়ে মুখ খুলেন জ্যাকি। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

'বুম' এর ভরাডুবির পর দেউলিয়া হয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গে মুখ খুললেন জ্যাকি!

  • ২০০৩ সালে বক্স অফিসে সশব্দে মুখ থুবড়ে পড়ে 'বুম'। বুম' এর ভরাডুবির পর একপ্রকার দেউলিয়া হয়ে যান জ্যাকি। দেনা মেটাতে বেচতে হয়েছিল বাড়িও! সম্প্রতি সেইসব বিষয় নিয়ে মুখ খুলীন এই তারকা-অভিনেতা স্বয়ং।

২০০৩ সালে জ্যাকি শ্রফের স্ত্রী আয়েশা শ্রফের প্রযোজনায় বড়পর্দায় মুক্তি পেয়েছিল 'বুম'।এই ছবির মাধ্যমেই বলিউডে পা রেখেছিলেন ক্যাটরিনা কইফ। এছাড়াও ছবিতে ছিলেন অমিতাভ বচ্চন,গুলশান গ্রোভার, জিনত আমনের মতো সব অভিনেতা-অভিনেত্রী। ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মডেল পদ্মালক্ষ্মীও। তবে সবমিলিয়ে বক্স অফিসে সশব্দে মুখ থুবড়ে পড়ে এই ছবি। 'বুম' এর ভরাডুবির পর একপ্রকার দেউলিয়া হয়ে যান জ্যাকি শ্রফ। দেনা মেটাতে বেচতে হয়েছিল বাড়িও! সম্প্রতি সেইসব বিষয় নিয়ে মুখ খুলীন এই তারকা-অভিনেতা স্বয়ং।

সম্প্রতি বলিউড বাবল-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই প্রসঙ্গে জ্যাকি জানিয়েছেন দেউলিয়া হয়ে যাওয়া সত্বেও সমস্ত দেনা তিনি শোধ করেছিলেন। জ্যাকির কথায়, ' আমি শুধু এটুকু জানি যে আমরা সবাই মাইল একটা জিনিসের জন্য চেষ্টা করেছিলাম এবং সেটা পারিনি। তার জন্য যে মূল্য চোকাতে হতো তাতে রাজি ছিলাম আমি। যতটা সম্ভব পরিশ্রম করে গেছি, কাজ করে গেছি সবার সব দেনা পাওনা মেটানোর জন্য যাতে আমার পরিবারের দিকে কেউ প্রশ্ন তুলতে না পারে।' এখানেই না থেমে তিনি আরও বলেন, 'ব্যবসায় তো লাভ-লোকসান লেগে থেকেই। ব্যবসা মানেই এই নয় যে তুমি সবসময় লাভের মুখই দেখবে। কিন্তু এটুকু জানা উচিৎ কীভাবে সৎ থাকবে।'

 

'বুম' ছবির পোস্টার। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক
'বুম' ছবির পোস্টার। ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক

জ্যাকির কথায় আরও জানা গেল এসবের প্রভাব তিনি ও তাঁর স্ত্রী তাঁদের দুই সন্তান টাইগার এবং কৃষ্ণার ওপর পড়তে দেননি। তাঁর কথাতেই জানা গেল, ওই সময়টায় তাঁর দুই সন্তান অনেকটাই ছোট ছিল। তবে একটি প্রতিবেদনে জানা গেছিল সেইসময় টাইগার তাঁর বাবাকে কথা দিয়েছিলেন যে একদিন তাঁদের এই বিক্রি হয়ে যাওয়া বাড়িই ফের একবার কিনবেন। এবং ভবিষ্যতে তা তিনি করেওছিলেন। সেই প্রসঙ্গে জ্যাকি বলেন তাঁর দুই সন্তানকে নিয়েই তিনি যারপরনাই গর্বিত। তবে তার স্ত্রী ওই বাড়ি ফের কেনা হোক এটা চাননি। তবে নাছোড়বান্দা টাইগার তা শোনেননি। মা এবং তাঁর গোটা পরিবারের স্বার্থেই ফের একবার তাঁদের পুরোনো বাড়ি কিনেছিলেন তিনি।

 

টাইগার শ্রফ। ছবি সৌজন্যে - টুইটার
টাইগার শ্রফ। ছবি সৌজন্যে - টুইটার

 

এই প্রসঙ্গে ২০২০ সালে জুন মাসে 'জি কিউ' ম্যাগাজিনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে টাইগার জানিয়েছিলেন 'বুম' ফ্লপ হওয়ার পরবর্তী সময়ে তাঁদের পরিস্থিতির কথা। 'হিরোপান্তি'-র নায়ক জানিয়েছিলেন এক এক করে তাঁর চোখের সামনে ঘরের আসবাবপত্র বিক্রি হয়ে যাচ্ছিল। এমনকি তাঁর সবার খাটটাও। এমনও দিন গেছে যে তাঁকে মাটিতেও শুতে হয়েছে ঘরে খাট না থাকার কারণে! সেসব দিন যে তাঁর জীবনের সবথেকে 'অন্ধকার অধ্যায়' ছিল সে ব্যাপারেও অকপটে জানিয়েছেন এই বলি-নায়ক।

 

বন্ধ করুন