বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বাংলা সিরিয়ালের সঙ্গে মিল আছে ‘ব্রহ্মাস্ত্র’র, খুঁজে বের করল ইউটিউবার ঝিলম গুপ্ত
ব্রহ্মাস্ত্রকে বাংলা সিরিয়াল আর ঝালমুড়ির সঙ্গে তুলনা করল ঝিলম। 

বাংলা সিরিয়ালের সঙ্গে মিল আছে ‘ব্রহ্মাস্ত্র’র, খুঁজে বের করল ইউটিউবার ঝিলম গুপ্ত

  • ব্রহ্মাস্ত্র নিয়ে রিভিউ শেয়ার করেছেন ইউটিউবার ঝিলম গুপ্তা। আর সেখানে তিনি কখনও এই সিনেমার সঙ্গে তুলনা টেনেছেন বাংলা ধারাবাহিকের তো কখনও আবার ঝালমুড়ির।

৯ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছে ব্রহ্মাস্ত্র। রণবীর-আলিয়াকে পর্দায় দেখার অপেক্ষা ছিল বিগত ৫ বছর ধরে। অয়ন মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় ভারতের প্রথম অস্ত্রোভার্স আসছে বলে কথা! তবে সিনেমা মুক্তি পেলেও দর্শক মন থেকে দ্বন্দ্ব যায়নি। কারণ একদিকে রিপোর্ট বলছে সিনেমা হাউজফুল। কোটি কোটি টাকার টিকিট বিক্রি হচ্ছে রোজ। আর চলচ্চিত্র সমালোচকরা সমানে নিন্দে করছেন গল্পের বুনোটনের, অভিনয়ের। তবে ভিএফএক্স সবাই বলছে দেখার মতো!

ব্রহ্মাস্ত্র নিয়ে রিভিউ শেয়ার করেছেন ইউটিউবার ঝিলম গুপ্তা। আর সেখানে তিনি কখনও এই সিনেমার সঙ্গে তুলনা টেনেছেন বাংলা ধারাবাহিকের তো কখনও আবার ঝালমুড়ির। বুঝলেন না তো? আসলে বাংলা ধারাবাহিকেও ভিলেন হয় মেয়ে, আর এই সিনেমার ভিলেনও মেয়ে। মানে মৌনি। আর ঝালমুড়ি কারণ একগাদা মশলা মিলিয়ে যেমন একটা দুর্দান্ত স্বাদ তৈরি হয় তেমনই প্রেম, সায়েন্স ফিকশন আর হিন্দু মাইথোলজি মিলে এই সিনেমায় এগিয়েছে সিনেমার গল্প। ভিএফএক্সের প্রশংসাও ঝিলমের মুখে। তবে তিনি জানালেন, এই সিনেমা ওয়ান টাইম ওয়াচ।

বক্স অফিসেও বেশ ভালো ফল করেছে এই সিনেমা। Boxofficeindia.com-এর রিপোর্ট অনুসারে ব্রহ্মাস্ত্রর হিন্দি ভার্সন দু দিনে ৬৮ কোটি (শনিবার ৩৭ কোটি)-র কাছাকাছি আয় করেছে। আর সবকটি ভাষা মিলিয়ে মোট আয় ৭৬ কোটির মতো। রিপোর্ট বলছে, শনিবার অন্যান্য ভাষায় আয় হয়েছে ৩.৫-৪ কোটির মতো। আর আন্তর্জাতিক বাজারে তা ৩ মিলিয়ান ডলার ছাড়িয়েছিল। উইকেন্ডে তা ৯-১০ মিলিয়ান ডলার হয়ে যাবে বলেই আন্দাজ করা যাচ্ছে।

হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার রিভিউ বলছে, ‘এই ছবির চিত্রনাট্যের বাঁধন কখন কখনও একটু বেশিই জটিল মনে হবে আপনার। পাশাপাশি ২ ঘন্টা ৪৫ মিনিট দীর্ঘ ছবি আপনার ধৈর্যের পরীক্ষা নিতে পারে, এমনটা অস্বীকার করবার জায়গা নেই। ছবির প্রথমার্ধের ২০ মিনিট খুব অনায়াসে ছেঁটে ফেলতে পারতেন পরিচালক। রণবীর-আলিয়ার রোম্যান্স এই ছবির অন্যতম ইউএসপি। ছবির দ্বিতীয়ার্ধ অনেক বেশি টানটান। সেখানে ব্রহ্মাস্ত্র নিয়ে অনেক জটিল ধাঁধার জট খুলবে। চিত্রনাট্য খানিকটা জটিল হলেও ছবির ভিএফএক্সের কাজ সত্যিই প্রশংসনীয়। বড় পর্দায় এই সিনেম্যাটিক অভিজ্ঞতা না দেখাটা বড় মিস!’

 

বন্ধ করুন