বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > টানা ৬ ঘণ্টার অস্ত্রোপচার, জেগে উঠে দেখি স্তন ক্যানসার থেকে মুক্তি: ছবি মিত্তল
অস্ত্রোপচারের পর ছবি মিত্তল

টানা ৬ ঘণ্টার অস্ত্রোপচার, জেগে উঠে দেখি স্তন ক্যানসার থেকে মুক্তি: ছবি মিত্তল

  • সফল হয়েছে ছবি মিত্তলের অস্ত্রোপচার। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে পোস্ট করলেন ছবি মিত্তল। ‘ডাক্তার চোখ বুজে স্বপ্ন দেখতে বলায় নিজের স্তনের কথা ভাবছিলাম’, মন্তব্য অভিনেত্রীর। 

স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছবি মিত্তল। সোমবার অস্ত্রোপচার হয়েছে অভিনেত্রীর। সফল হয়েছে অস্ত্রোপচার। টানা ছ’ঘণ্টা অস্ত্রোপচারের পর আপাতত স্থিতিশীল তিনি। মঙ্গলবার সকালে ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে জানিয়েছেন ছবি।

হাসপাতালের বিছানায় শোওয়া তিনি, হাসি মুখে একটি নিজস্বী শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। এরপরই দীর্ঘ পোস্টে জানিয়েছেন, ‘অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট আমায় চোখ বন্ধ করে সুন্দর কিছু ভাবতে বলেছিলেন। তখন আমি আমার সুন্দর স্তনগুলোকে আবার আগের মতো পুরোপুরি সুস্থ ভাবে যেন দেখতে পেলাম। তার পরেই আমি ঘুমের দেশে। জ্ঞান ফেরার পরে দেখি, আমি ক্যানসারমুক্ত! অস্ত্রোপচারটি ৬ ঘণ্টা ধরে চলেছিল। নানা ধাপে অস্ত্রোপচার হয়েছিল। রোগমুক্ত করে স্তনকে আগের আকারে ফিরিয়ে আনা সময়সাপেক্ষ। সেটাই হয়েছে আমার সঙ্গে। খারাপের শেষ।’ আরও পড়ুন: স্তন ক্যানসারের অস্ত্রোপচারের আগে হাসপাতাল থেকে নাচের ভিডিয়ো শেয়ার ছবি মিত্তলের

ভক্তরা যারা অভিনেত্রীর জন্য প্রার্থনা করেছিলেন, তাঁদের উদ্দেশ্যে ছবি লিখেছেন, ‘আপনাদের প্রার্থনা আমার উপর ছিল। আমার এখন আরও বেশি প্রয়োজন, কারণ আমি অনেক যন্ত্রণার মধ্য়ে আছি। ব্যথা, যে বিশাল যুদ্ধের কথা মনে করিয়ে দেয় আমি শুধু মুখে হাসি নিয়ে জিতেছি। রক্তাক্ত বিবরণ দেওয়ার আগে আমার সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের সকলকে অনেক ধন্যবাদ। আপনাদের মেসেজ আমার চোখে জল এনেছে। আমার জন্য আরও প্রার্থনা করুন। মা-বাবা পাশে না থাকলে এত বড় লড়াই লড়তে পারতাম না। কখনও ভালোবেসে, কখনও শাসন করে, কখনও সাহস জুগিয়ে সারাক্ষণ পাশে ছিলেন। আর তোমাদের চোখে জল দেখতে চাই না। ক্যানসার মুক্ত।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে নিজের অসুস্থতার খবর জানিয়েছিলেন ছবি। অস্ত্রোপচারের আগে অভিনেত্রীকে শান্ত মেজাজে থাকতে বলেছেন চিকিৎসক। তাই নিজের মনকে শান্ত রাখতে, হাসপাতালের রুমেই ক্যামেরা চালু করে খানিক নেচে নিলেন অভিনেত্রী। মানসিক ভাবে অভিনেত্রী কতটা শক্ত, তার এই ভিডিয়োই প্রমাণ। অস্ত্রোপচারের পর নি

বন্ধ করুন