বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'সেলেবদের সেল চলছে', টলিউড তারকাদের নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য শ্রীলেখার
শ্রীলেখা মিত্র (ছবি-ইন্টারনেট)
শ্রীলেখা মিত্র (ছবি-ইন্টারনেট)

'সেলেবদের সেল চলছে', টলিউড তারকাদের নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য শ্রীলেখার

  • দলবদল আর রাজনীতিতে যোগদান নিয়ে টলি সেলেবদের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন শ্রীলেখা মিত্র। 

কেউ যাচ্ছেন জোড়াফুলে, কেউ কেউ আবার পদ্মশিবিরে নাম লেখাচ্ছেন। অনেকেই একদল ছেড়ে অন্যদলের সৈনিক হিসাবে দলীয় পতাকা হাতে তুলে নিচ্ছেন। টলিউড জুড়ে এখন রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার হিড়িক লেগেছে তা স্পষ্ট। এই বিষয় নিয়েই এবার ফেসবুকে বিস্ফোরক পোস্ট শ্রীলেখা মিত্রর। বরাবর বামপন্থায় বিশ্বাসী শ্রীলেখা মনে করেন, ‘বামই একমাত্র বিকল্প’। মনের কথা মন খুলে বলতে কোনও দিন কুন্ঠাওবোধ করেন না শ্রীলেখা। 

মুড়ি-মুড়কির মতো তারকাদের রাজনীতিতে যোগদান নিয়ে এবার মুখ খুললেন শ্রীলেখা। ফেসবুকের দেওয়ালে এদিন অভিনেত্রী লেখেন, ‘সেল সেল সেল… সেলেবস (তবে শিল্পী নয়)-দের সেল চলছে’। সেলেবস আর শিল্পী এক নয়, তা নিজের পোস্টের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছেন শ্রীলেখা। শিল্পীসত্ত্বা কোনওদিন বিকিয়ে যায় না, সাফ জানালেন শ্রীলেখা। 

বৃহস্পতিবার সকালে সহকর্মী সুজয় প্রসাদ চট্টোপাধ্যায়ের একটি পোস্টও নিজের ফেসবুকের দেওয়ালে শেয়ার করেন শ্রীলেখা। শিবির পালটানো নিয়ে আদিখ্যেতা দেখানোর কোনও মানে হয় না সেটা জানিয়েছিলেন বাচিক শিল্পী সুজয় প্রসাদ। বিস্ফোরক সেই পোস্টে সুজয় লেখেন, ‘টলিউডের শিবির পাল্টানো নিয়ে আদিখ্যেতা বা উষ্মা প্রকাশ করার কোনো মানেই হয় না। ছবির বাজার খারাপ, মাচা প্রায় উঠে যেতে বসেছে(এখানে রোজগার সবাই করে, শুধু ধরনটা আলাদা), কাট্ মানির সম্ভাবনা কমেছে। আহা, এই বাজারে জীবনযাত্রা তো বজায় রাখতে হবে। নতুন গাড়ি কিনতে হবে। নতুন বাড়ির ইন্টিরিয়র নিয়ে একটা এ প্লাস স্টোরি করাতে হবে(দয়া করে সর্ষের মধ্যে ভূত খুঁজবেন না)। নতুন নারীদের নিয়ে গুজব PLUG IN করতে হবে। মোট কথা টিঁকে থাকতে হবে। সুতরাং এক্ষেত্রে কোনো রাজনৈতিক দলকে গালি দিয়ে লাভ নেই।তারা পাপোশ খুঁজছে, আমরা জোগান দিচ্ছি। কী মজা! হাততালি’। 

এই পোস্ট শেয়ার করে শ্রীলেখা লেখেন, ‘একদম ঠিক কথা ভাই’।

মঙ্গলবার বিজেপি নেতা অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রসেনজিত্ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে যাওয়া নিয়েও গতকাল কটাক্ষ করেছিলেন শ্রীলেখা। কোনওরকম রাখঢাক না রেখে বিস্ফোরণ ঘটান অভিনেত্রী। সেই সাক্ষাত্-এর ছবি শেয়ার করে লেখেন- 'আমার নিন্দুকেরা যাঁরা আমাকে মিথ্যেবাদী প্রমাণ করার চেষ্টা করেছিলেন, তাঁরা আশা করি খানিকটা উত্তর পেলেন'। সঙ্গে হ্যাশট্যাগ হিসাবে যোগ করেন #সবইমায়া। প্রসেনজিত্কে নিশানায় রেখেই যে এই পোস্ট তা বুঝতে কারুর অসুবিধা হয়নি। গত বছর ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম দুই কাণ্ডারী প্রসেনজিত্ চট্টোপাধ্যায় ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের বিরুদ্ধে স্বজনপোষণ ইস্যুতে বিস্ফোরক অভিযোগ এনেছিলেন শ্রীলেখা। সেই প্রেক্ষিতেই বুম্বাদাকে উদ্দেশ্য করে শ্রীলেখার মন্তব্য, ‘এবার ধীরে ধীরে বাংলার মানুষদের কাছে সুপারস্টারদের আসল রূপটা বেরিয়ে আসবে’।

উল্লেখ্য, গতকাল বিজেপিতে যোগদান করেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত, সৌমিলি বিশ্বাস, পাপিয়া অধিকারীরা। আজ (বৃহস্পতিবার) পদ্মশিবিরে নাম লেখান যুব তৃণমূলের প্রাক্তন সহসভাপতি, অভিনেতা হিরণ চট্টোপাধ্যায়। একুশের ভোটের আগে ছোটপর্দা ও বড়োপর্দার বহু মুখ টিএমসি ও বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। 

বন্ধ করুন